মানসিক নির্যাতন শিশুকে আত্মহত্যা প্রবণ করে

2346 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
অনেক সময় শিশুদের আবেগ প্রবণতাকে কঠোরভাবে দমন করা হয় এবং অবজ্ঞা করা হয়। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই আচরণ (emotionally abuse) শিশুর মানসিক সমস্যা বা রোগের কারণ হতে পারে। পাশাপাশি তারা এর সঙ্গে যৌন নির্যাতনের তুলনা করেছেন।


অনেক সময় শিশুদের আবেগ প্রবণতাকে কঠোরভাবে দমন করা হয় এবং অবজ্ঞা করা হয়। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই আচরণ (emotionally abuse) শিশুর মানসিক সমস্যা বা রোগের কারণ হতে পারে। পাশাপাশি তারা এর সঙ্গে যৌন নির্যাতনের তুলনা করেছেন।

সম্প্রতি আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন তাদের এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ মন্তব্য করেন। যদিও এতদিন আলোচনার বাইরেই থেকে গিয়েছিল বিষয়টি।

গবেষণায় নেতৃত্ব দেন দ্য ট্রমা সেন্টার অ্যাট জাস্টিস রিসোর্স ইনস্টিটিউটের গবেষক যোসেফ স্পিনাজোলা (পিএইচডি)।

তিনি বলেন, শিশুদের এ ধরনের নির্যাতনমুক্ত রাখতে হলে বা অবজ্ঞার হাত থেকে বাঁচাতে হলে সামাজিকভাবে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

গবেষণায় ন্যাশনাল চাইল্ড ট্রমাটিক স্ট্রেস নেটওয়ার্কের সংগ্রহে থাকা ৫,৬১৬ শিশুর জন্ম থেকে বেড়ে ওঠার ইতিহাস নেওয়া হয়। সেখানে দেখা যায় অধিকাংশ শিশুর ক্ষেত্রেই যৌন নির্যাতন, শারীরিক নির্যাতন কিংবা মানসিক নির্যাতন যেমন ভয় দেখানো, অপমান করা, প্রত্যাশার মূল্যায়ন না করা ইত্যাদি কোনো না কোনো বিষয় রয়েছে।

মানসিকভাবে নির্যাতিত শিশুরা পরবর্তীতে উদ্বিঘ্নতা, বিষন্নতা, হীনমন্যতায় ভোগার পাশাপাশি আত্মহত্যা প্রবণ হয়ে ওঠে। শারীরিক এবং যৌন নির্যাতনের শিকার হওয়ার পরও এমনটি হতে পারে। একইসঙ্গে অন্যদের সঙ্গে মানিয়ে চলার ক্ষমতাও লোপ পেতে পারে। তবে শিশুর সুস্থ বিকাশে মানসিক নির্যাতনের বিষয়কে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে শারীরিক এবং যৌন নির্যাতন কোনোভাবেই মানসিক নির্যাতন নয়। আবার শারীরিক এবং যৌন নির্যাতনের মতো মানসিক নির্যাতন ততটা গুরুত্বপূর্ণ হয় না। যদিও একজন শিশুর ওপর তিনটি বিষয়েরই সমান প্রভাব পড়ে।

যে কারণে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করার পরামর্শ দিচ্ছেন গবেষকরা।

ইউএস চিল্ড্রেনস ব্যুর’র তথ্য মতে প্রায় তিন মিলিয়ন মার্কিন শিশু প্রতি বছর মানসিক নির্যাতনের শিকার হয় তাদের অভিভাবক এবং পরিবারের সদস্যদের দ্বারা।

প্রিয় পাঠক, ‘মনোকথা’ আপনাদের পাতা। মনোরোগ নিয়ে যে কোনো মতামত ও আপনার সমস্যার কথা জানাতে পারেন আমাদের। আমরা পর্যায়ক্রমে অভিজ্ঞ মনোরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে আপনাদের প্রশ্নের জবাব জানিয়ে দেবো। আপনি চাইলে গোপন রাখা হবে আপনার নাম-পরিচয় এমনি কি ঠিকানাও।

সমস্যার কথা জানানোর সঙ্গে সমস্যার বিস্তারিত বিবরণ, আপনার নাম, বয়স, কোথায় থাকেন, পারিবারিক কাঠামো এবং এজন্য কোনো চিকিৎসা নিচ্ছেন কি না এ বিষয়ে বিস্তারিত আমাদের জানান। শুধুমাত্র সেক্ষেত্রেই সমস্যা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা জানানো সম্ভব হবে।
 
এছাড়া মানসিক সমস্যা সংক্রান্ত বা এ বিষয়ে বিশেষ যে কোনো লেখা যে কেউ পাঠিয়ে দিতে পারেন আমাদের। 



বাংলাদেশ সময়: ১২৪৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০১৪

পঞ্চগড়ে ভাষা সৈনিক সুলতান বইমেলা শুরু
চুয়াডাঙ্গায় গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
৬ বছর পর কোন্দলপূর্ণ শিবগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন
'লাইটিং দ্য ফায়ার অব ফ্রিডম' দেখলেন প্রধানমন্ত্রী-রেহানা
ইতালিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যু


ফেনী ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আলোকচিত্র প্রদর্শনী
মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে প্রবেশকালে আটক ৪ 
জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোলরক্ষক সোহান দুর্ঘটনায় নিহত
গ্রন্থমেলায় মুহাম্মদ আসাদুজ্জামানের ‘ভালোবাসার গল্প’
কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসে অন্যরকম একুশ