হাটে হাটে গবাদিপশুর স্বাস্থ্য-ক্যাম্প

935 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: শোয়েব মিথুন/ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
ঈদের বাকি আর মাত্র চারদিন। এরই মধ্যে রাজধানীসহ সারাদেশের হাটগুলোতে কোরবানির পশু উঠে গেছে। এখন চলছে বেচা-কেনার প্রস্তুতি। পছন্দের পশুটি কিনতে মানুষের ভিড় বাড়ছে হাটে হাটে।


ঢাকা: ঈদের বাকি আর মাত্র চারদিন। এরই মধ্যে রাজধানীসহ সারাদেশের হাটগুলোতে কোরবানির পশু উঠে গেছে।

এখন চলছে বেচা-কেনার প্রস্তুতি। পছন্দের পশুটি কিনতে মানুষের ভিড় বাড়ছে হাটে হাটে। তবে বাদ সেঁধেছে ভেজালযুক্ত পশু নিয়ে। কেননা হাটে গেলেই চোখে পড়ে মোটাতাজা পশু। ভয় এখন, টাকা দিয়ে ভেজাল কিনছেন না তো! এ সংশয় মনে নিয়ে কিনতে হচ্ছে কোরবানির পশু।
 
তবে সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, শুক্রবার থেকে রাজধানীর সবগুলো মার্কেটেই থাকছে বিশেষ স্বাস্থ্য ক্যাম্প। এখানেই গবাদিপশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে।
 
রাজধানীর পশুহাটগুলোর কর্ণধার সরকারি সেবা সংস্থা সিটি কর্পোরেশন। এ সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, অপর্যাপ্ত জনবল ও উপকরণ নিয়ে নামেমাত্র স্বাস্থ্য ক্যাম্প বসানো হচ্ছে।

তাও আবার পশু হাটে প্রবেশ করার এক সপ্তাহ পরে। তাই, সরকারের এই ঘোষণা অনেকটাই নিষ্ফল বলে মনে করেন বিশেজ্ঞরা।
 
ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনছার আলী খান বৃহস্পতিবার দুপুরে তার কার্যালয়ে বাংলানিউজকে বলেন, গবাদিপশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার মতো প্রয়োজনীয় উপকরণ আমাদের কাছে পর্যাপ্ত নয়। যতটুক আছে, তা দিয়েই শুক্রবার থেকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শুরু হবে হাটে হাটে।
 
তিনি বলেন, রাজধানীর প্রতি হাটেই আমাদের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা থাকবেন। সেখানেই গরুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়ে দেওয়া হবে যে, মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর কোনো ওষুধ গরুকে খাওয়ানো হয়েছে কিনা।

তবে যদি স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর প্রমাণিত হয়, তাহলে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তার কোনো উত্তর জানা নেই এই কর্মকর্তার।
 
অনেক আগে থেকেই রাজধানীর হাটে গবাদিপশুর আনাগোনা শুরু হয়েছে, তাহলে এই স্বাস্থ্য ক্যাম্প কতটুক কার্যকর হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাস্তবতা তো আপনারাও বোঝেন! আমাদের কিইবা করার আছে! সরকার থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তাই, আমাদের যা না করলেই নয়, তাই-ই করতে হচ্ছে।
 
প্রতি বছরের মতো এবারও রাজধানীতে গাবতলীর স্থায়ী হাটসহ ১৯টি হাট বসানো হয়েছে কোরবানির পশু কেনা-বেচার জন্য।
 
শেষপর্যন্ত এবারও থাইরয়েন, হরমন স্টেরয়েড, কোটিসল, ডেক্রামিথাসন, হাইড্রোকটিসন, বিটামিথাসন ও প্রেডনিসলনযুক্ত গরুই কোরবানি দিতে হচ্ছে ধর্মপ্রাণ মুসলামনদের। স্বাস্থ্য ঝুঁকির প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা এখন কাগুজে বাঘ মাত্র। হাইকোর্টের নির্দেশনাও অকার্যকর প্রায়!
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮৫২ ঘণ্টা, অক্টোবর ০২, ২০১৪

পঞ্চগড়ে ভাষা সৈনিক সুলতান বইমেলা শুরু
চুয়াডাঙ্গায় গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
৬ বছর পর কোন্দলপূর্ণ শিবগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন
'লাইটিং দ্য ফায়ার অব ফ্রিডম' দেখলেন প্রধানমন্ত্রী-রেহানা
ইতালিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যু


ফেনী ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আলোকচিত্র প্রদর্শনী
মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে প্রবেশকালে আটক ৪ 
জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোলরক্ষক সোহান দুর্ঘটনায় নিহত
গ্রন্থমেলায় মুহাম্মদ আসাদুজ্জামানের ‘ভালোবাসার গল্প’
কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসে অন্যরকম একুশ