শরীর ছাড়াই বেড়ানো!

10436 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton
ক্যাম্প ফায়ারের ‘এসট্রাল প্রজেকশন’ নয়। সত্যিই যদি শরীর ছাড়াই ঘুরে বেড়ানো যায়, কেমন হবে? প্রশ্ন আসতে পারে এটা কি সম্ভব? তবে, বল‍া যেতে পারে ‘সম্ভব’। সম্প্রতি গবেষকরা বিষয়টি সম্ভব বলেই মনে করছেন।


ঢাকা: ক্যাম্প ফায়ারের ‘এসট্রাল প্রজেকশন’ নয়। সত্যিই যদি শরীর ছাড়াই ঘুরে বেড়ানো যায়, কেমন হবে? প্রশ্ন আসতে পারে এটা কি সম্ভব?
তবে, বল‍া যেতে পারে ‘সম্ভব’। সম্প্রতি গবেষকরা বিষয়টি সম্ভব বলেই মনে করছেন। একটি জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে মনোবিজ্ঞানীরা একটি কেস স্টাডির উদাহারণ দিয়ে বলেন, ইউনিভার্সিটি অব ওটটাওয়ার মনোবিজ্ঞান বিষয়েরই এক ২৪ বছর বয়সী ছাত্রী ছোট বেলা থেকেই শরীরের বাইরে যাওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে।

আসুন শোনা যাক এমন একটি গল্প।
গবেষকদের ওই শিক্ষার্থী জানান, ‘আমি নড়চড়া করি, আরো পরিষ্কার করে বলতে গেলে আমার মনে হয় আমি নড়াচড়া করি। যদিও জানি আমি নড়ছি না। আমি খুবই মনোযোগী থাকি নড়াচড়ার বিষয়ে, কিন্তু আমি অনুভব করি হেঁটে চলে যাচ্ছি। এটা শুরু হয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পড়ার আগে থেকে। তবে ঘুমিয়ে গেলে এই অনুভূতি হারিয়ে যেত।

গবেষক দল ফাংশনাল ম্যাগনেটিক রেসোনেন্স ইমাজিং (এফএমআরআই) পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন। আশা করা যাচ্ছে মস্তিষ্কের এই পরীক্ষার মধ্য দিয়েই তার এই ‍অস্বাভাবিক ক্ষমতা সম্পর্কে জানা যাবে।

এর আগে তার ওপর চারটি ভিন্ন পরীক্ষা চালানো হয় এবং তার কল্পনায় আসা সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয়।

সমস্ত পরীক্ষা শেষে দেখা যায়, মস্তিষ্কের যে অংশ আমাদের দৃষ্টি নিয়ন্ত্রণ করে (ভিজুয়াল কোরটেক্স) তার অক্ষমতা থেকেই এ অনুভূতির উৎপত্তি। একই সঙ্গে মস্তিষ্কের বাম পাশে যে অংশ আমাদের কল্পনা ক্ষমতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট তাও জড়িত শরীরের বাইরে যাওয়ার অনুভূতিতে। শিশুকালে দীর্ঘ সময় পরে ঘুম আসাটাও এর কারণ হতে পারে।

এই সমস্যার মধ্য দিয়েই একটি প্রশ্ন উঠে এসেছে, এটা সাধারণী বিষয় কি না বা চর্চা মাধ্যমে এই ক্ষমতা জন্মাতে পারে কি না?  কেননা জরিপে দেখা গেছে, ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন অধিবাসীর মধ্যে শতকরা ১০ ভাগ মানুষের একই অভিজ্ঞতা রয়েছে।

তাদের মতে, হতে পারে মানুষের সচেতনতাই তাদের শরীর থেকে আলাদা হওয়া এবং বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ানোর ক্ষমতা যোগায়। তবে নতুন একটি সিদ্ধান্তের চূড়ান্ত অবস্থা পাওয়া গেছে মানুষের সচেতনতা অনুভূতিকে শরীর থেকে আলাদা করতে সক্ষম। যা ‘হ্যালুসিনেশন’ হিসেবেও আখ্যায়িত করা যেতে পারে।

প্রিয় পাঠক, ‘মনোকথা’ আপনাদের পাতা। মনোরোগ নিয়ে যে কোনো মতামত ও আপনার সমস্যার কথা জানাতে পারেন আমাদের। আমরা পর্যায়ক্রমে অভিজ্ঞ মনোরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে আপনাদের প্রশ্নের জবাব জানিয়ে দেবো। আপনি চাইলে গোপন রাখা হবে আপনার নাম-পরিচয় এমনি কি ঠিকানাও।

সমস্যার কথা জানানোর সঙ্গে সমস্যার বিস্তারিত বিবরণ, আপনার নাম, বয়স, কোথায় থাকেন, পারিবারিক কাঠামো এবং এজন্য কোনো চিকিৎসা নিচ্ছেন কি না এ বিষয়ে বিস্তারিত আমাদের জানান। শুধুমাত্র সেক্ষেত্রেই সমস্যা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা জানানো সম্ভব হবে।
 
এছাড়া মানসিক সমস্যা সংক্রান্ত বা এ বিষয়ে বিশেষ যে কোনো লেখা যে কেউ পাঠিয়ে দিতে পারেন আমাদের। 



বাংলাদেশ সময়: ১৬২৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৪

সারাদেশে একুশের প্রথম প্রহরে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা
গর্বের সঙ্গে বাংলার ব্যবহার চায় ভারতের নদীয়ার প্রতিনিধিদল
ভেঙে পড়লো রাসিক মেয়র লিটনের সংবর্ধনা মঞ্চ
রামুতে বর্ণমালা হাতে হাজারো শিক্ষার্থীর কন্ঠে একুশের গান
ভাষাশহীদদের প্রতি বিরোধী দলীয়নেতা রওশনের শ্রদ্ধা


মাতৃভাষার জন্য ভালোবাসা
একুশে ফেব্রুয়ারি: বাঙালির আত্মপরিচয়ের দিন
বাংলায় দেওয়া রায়ে বঙ্গবন্ধুর সেই ভাষণ
প্রথম প্রহরেই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জনস্রোত
একুশের প্রথম প্রহরে উপচেপড়া ভিড় শহীদ মিনারে