ঢাকা, বুধবার, ১৩ মাঘ ১৪২৭, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ফুটবল

বিশ্বকাপ বাছাই: বাংলাদেশের হোম ভেন্যু হতে চায় ওমান, বাফুফের না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২১
বিশ্বকাপ বাছাই: বাংলাদেশের হোম ভেন্যু হতে চায় ওমান, বাফুফের না ফাইল ছবি

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে এখনও তিনটি ম্যাচ বাকি আছে বাংলাদেশের। তিনটিই হোম ম্যাচ।

আর এই ম্যাচগুলো নিজেদের মাটিতে আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছিল ওমান ফুটবল ফেডারেশন। কিন্তু প্রস্তাবটি নাকচ করে দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারশন (বাফুফে)।

সামনে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের তিনটি ম্যাচে আফগানিস্তান, ওমান ও ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। সবগুলোই হোম ম্যাচ। অর্থাৎ বাংলাদেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচগুলো। আর ম্যাচগুলোর ভেন্যু হিসেবে সিলেট স্টেডিয়ামের কথা জানানো হয়েছে বাফুফের তরফে।

গত নভেম্বরে এএফসির কম্পিটিশন কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ডের বাকি ম্যাচগুলো ১৫ জুনের মধ্যেই শেষ করতে হবে। নতুন সূচি অনুযায়ী আগামী ২৫ মার্চ আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। ৭ জুন জেমি ডের শিষ্যদের প্রতিপক্ষ ভারত। এরপর ১৫ জুন বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ওমান।

কিন্তু ওমান চায় ম্যাচগুলো তাদের মাটিতে আয়োজন করতে। তাদের প্রস্তাব অনুযায়ী আগামী ২৪, ২৭ ও ৩০ মার্চ ম্যাচগুলো তাদের মাটিতে খেলুক বাংলাদেশ। ওমানের এমন প্রস্তাবের পেছনে অবশ্য কারণও আছে। করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন দেশে গিয়ে খেলার চেয়ে যেকোনো একটি দেশে খেলাটাই খেলোয়াড়দের জন্য ভালো হবে।

শুধু ওমান নয়, আরও কয়েকটি দেশও একই প্রস্তাব তুলেছে। তারা চায়, করোনায় খেলোয়াড়দের বিভিন্ন দেশে ভ্রমণের কারণে কোয়ারেন্টিন, স্বাস্থ্য ঝুঁকি কিংবা অনুশীলনের সময় নিয়ে যে ঝামেলা তৈরি হবে তা একই ভেন্যুতে আয়োজন করলে কমে যাবে। মূলত এসব বিবেচনায় বাফুফের কাছে ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছিল ওমান।

ওমানের পাশাপাশি কাতারও বাফুফের কাছে একই রকম প্রস্তাব পাঠিয়েছে। কিন্তু এই প্রস্তাবে না করে দিয়েছে বাফুফে। কারণ ঘরের মাঠের সুবধা হাতছাড়া করতে চায় না বাংলাদেশ।

জাতীয় দল কমিটির সভা শেষে বাফুফের সহসভাপতি ও দল ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ এ ব্যাপারে বলেন, 'বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আমাদের যে তিনটি ম্যাচ বাকি আছে, সেগুলো ওমানে গিয়ে খেলার প্রস্তাব এসেছে। কাতারও একই প্রস্তাব দিয়েছে। কিন্তু আমরা ম্যাচগুলো ফিফার সূচি অনযায়ী দেশেই খেলতে আগ্রহী। '

তবে কাজী নাবিল এটাও মনে করিয়ে দিয়েছেন, যদি ফিফা কিংবা এএফসি চায় সেক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত বদলানোর সম্ভাবনা আছে। কিন্তু আপাতত ঘরের মাঠের সুবিধা কাজে লাগানোর দিকেই মনোযোগ বাফুফের।

গত ডিসেম্বরে পরের বিশ্বকাপের আয়োজক কাতারের মাটিতে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের বিপক্ষে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচটিতে ৫-০ গোলে হেরে যান জামাল ভূঁইয়ারা। ম্যাচ শেষে নিজ দেশ ইংল্যান্ডে ফিরেছিলেন জাতীয় দলের কোচ জেমি ডে। আগামী বৃহস্পতিবার তিনি ঢাকায় ফিরবেন বলে জানিয়েছেন কাজী নাবিল। ঢাকায় পৌঁছে নিয়ম অনুযায়ী কোচকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এরপর থেকে শিষ্যদের নিয়ে কাজ শুরু করবেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৫ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২১
এমএইচএম/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa