ঢাকা, বুধবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

ফুটবল

আর্জেন্টিনার এমন জয় দরকার ছিল: মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০২০
আর্জেন্টিনার এমন জয় দরকার ছিল: মেসি

লাতিন আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে দারুণ এক জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। আর পেরুভিয়ানদের মাঠ লিমায় দলের এমন জয়ের পর প্রশংসা করে লিওনেল মেসি জানিয়েছেন, প্যারাগুয়ের বিপক্ষে হতাশজনক পারফরম্যান্সের পর এই জয় দলকে আরও শক্তিশালী করবে।

মঙ্গলবারের এ ম্যাচে ২-০ গোলে জয় পায় লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। যেখানে প্রথমার্ধে নিকোলাস গনসালেস ও লাওতারো মার্তিনেসের গোলে নিশ্চিত হয় আলবিসেলেস্তাদের জয়। এরফলে বাছাইপর্বে ৪ ম্যাচের তিনটিতেই জিতে নিল দুইবারের বিশ্বকাপজয়ীরা।

এদিকে এ ম্যাচের পর আর্জেন্টিনা টানা ১১ ম্যাচে অপরাজিত রইল। যেখানে দলটি তাদের শেষ তিন অ্যাওয়ে কোয়ালিফায়ারে জয় পেয়েছে। ২০০০ সালের পর এমন অর্জন তারা আর কখনো দেখেনি।

এর আগে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে নিজেদের শেষ ম্যাচে বাজেভাবে ড্র করেছিল আর্জেন্টিনা। তবে পেরুর বিপক্ষে এমন পারফরম্যান্সে খুশি তিনি।

আর্জেন্টিনার অফিসিয়াল টুইটারে মেসি বলেন, ‘এমন জয়ে খুশি, আমাদের এটি দরকার ছিল। এদিন শুরু থেকেই আমরা দারুণ খেলেছি। গোল এসেছে এবং আমরা অনেক সুযোগ তৈরি করেছি। ’

তিনি আরও বলেন, ‘অন্যদিন থেকে এদিনের দ্বিতীয়ার্ধও ভালো ছিল এবং আমি মনেকরি আমরা এভাবেই এগিয়ে যাব। ধীরে ধীরে আমরা গ্রুপ হিসেবে শক্তিশালী হচ্ছি। ’

পেরুর বিপক্ষে এ ম্যাচের মধ্যদিয়ে আর্জেন্টিনার জার্সিতে নিজের ১৪২তম ম্যাচ খেলেছেন মেসি। তিনি এখন দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলারদের মধ্যে ব্রাজিল গ্রেট কাফুর সঙ্গে যৌথভাবে পঞ্চম সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলা খেলোয়াড়।

রেকর্ড ষষ্ঠবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী আর্জেন্টিনার হয়ে এই ধারা বজায় রাখতে চান। যেখানে ২০০৪ সালের পর প্রথমবার তিনি পেরুর মাঠে জয় দেখেছেন।

‘আমি যখনই এখানে আসি নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি এবং এই জার্সির হয়ে লড়ে যাওয়ার জন্য নিজেকে উপযুক্ত মনেকরি। এই দলের হয়ে খেলে যাওয়াটাকে আমি ভালোবাসি। ’-যোগ করেন মেসি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০২০
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa