ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২ সফর ১৪৪২

ফুটবল

মেসির বিশ্বাস ২০২১ সালেই শিরোপা খরা কাটবে আর্জেন্টিনার

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
মেসির বিশ্বাস ২০২১ সালেই শিরোপা খরা কাটবে আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি/ছবি: সংগৃহীত

সময়ের সেরা ফুটবলার হওয়া সত্ত্বেও জাতীয় দলের হয়ে কোনো শিরোপা জিততে পারেননি লিওনেল মেসি। তার আগে আরও অনেক বড় তারকা অর্জনের খাতা শূন্য রেখেই বিদায় নিয়েছেন।

সবমিলিয়ে আর্জেন্টিনাও ২৭ বছর ধরে শিরোপা খরায় ভুগছে। কিন্তু বার্সা ফরোয়ার্ডের বিশ্বাস, ২০২১ সালেই শিরোপা খরা ঘুচবে আলবিসেলেস্তেদের।

ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে বড় তারকা বলা হয় মেসিকে। ১০টি লা লিগা ও ৪টি চ্যাম্পিয়নস লিগসহ অসংখ্য শিরোপা আছে তার ঝুলিতে। কিন্তু ছয়বারের ব্যালন ডি’অরজয়ী এই ফুটবল জাদুকর দেশের জার্সি গায়ে সিনিয়র পর্যায়ে কোনো শিরোপা জিততে পারেননি।

আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে মেসির সবচেয়ে বড় সাফল্য এখন পর্যন্ত অলিম্পিকের স্বর্ণপদক এবং অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপের শিরোপা। এগুলোর কোনোটাই অবশ্য সিনিয়র পর্যায়ের শিরোপা নয়, যা তার নামের সঙ্গে একেবারেই মানানসই না। অথচ ২০১৪ থেকে ২০১৬ এই তিন বছরে টানা তিনবার ফাইনাল থেকে খালি হাতে ফিরতে হয়েছে তাকে।

জাতীয় দলের হয়ে সবচেয়ে বড় শিরোপা অর্থাৎ বিশ্বকাপ জেতার খুব কাছে একবারই যেতে পেরেছিলেন মেসি। কিন্তু ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে অতিরিক্ত সময়ের গোলে হার মানে তার দল। সেবার আসরের সেরা খেলোয়াড় হয়েও শিরোপা স্পর্শ করা হয়নি তার।

এরপর কোপা আমেরিকায় দুবার ফাইনালে চিলির কাছে টাইব্রেকারে হারতে হয়েছে। দ্বিতীয়বারের ধাক্কা সামলাতে না পেরে এমনকি জাতীয় দলকে বিদায়ও বলে দিয়েছিলেন তিনি। পরে ফিরেছেন ঠিকই, কিন্তু ২০১৮ বিশ্বকাপ ও এরপরের কোপা দুটোতেই তার দল ধরাশায়ী হয়ে ফিরেছে।

জাতীয় দলের হয়ে ১৩৮ ম্যাচ খেলেও শিরোপাশূন্য থাকা মেসির সামনে আরও একবার সুযোগ আসছে খরা ঘোচানোর। করোনা মহামারির কারণে ১২ মাস পিছিয়ে যাওয়া কোপার পরের আসর যৌথভাবে আয়োজন করবে আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া। ২০২১ সালের ১১ জুন থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত চলবে টুর্নামেন্ট।

ঘরের মাটিতে অনুষ্ঠেয় কোপার আগামী আসরকে পাখির চোখ করছেন মেসি। মূলত হেড কোচ লিওনেল স্কালোনির অধীনে আর্জেন্টিনার বর্তমান দলটি যেভাবে গুছিয়ে উঠছে, সেটাই আশা দেখাচ্ছে তাকে। ক্রীড়াভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘গোল ডট কম’ এমনটাই জানিয়েছে।

২০১৮ বিশ্বকাপ থেকে হতাশাজনক বিদায় শেষে দায়িত্ব নেওয়া স্কালোনি আর্জেন্টিনা দলে বেশকিছু পরিবর্তন এনেছেন। সাবেক কোচ হোর্হে সাম্পাওলির প্রিয়পাত্র গঞ্জালো হিগুয়েন ও এভার বেনেগার মতো ‘বুড়ো’দের বাদ দিয়ে জিওভানি লো সেলসো, লেয়ান্দ্রো পারেদেস, লওতারো মার্তিনেস এবং রদ্রিগো দে পলের মতো তরুণদের সুযোগ করে দিয়েছেন তিনি।

মেসির বিশ্বাস, আর্জেন্টিনার বর্তমান দলটি বড় কিছু অর্জনে সক্ষম হবে। এর আগের কোপায় তৃতীয় স্থান দখল করা দলটিকে নিয়ে তার আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি নেই। সামনেই ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচগুলো মাঠে গড়াবে। এরপর আসছে কোপা আমেরিকা। আর্জেন্টাইন অধিনায়কের বিশ্বাস, বর্তমান দলটিকে নিয়েই সাফল্য পাবেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
এমএইচএম/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa