‘অপরাজেয়’ ব্রাজিল-বেলজিয়ামের কোয়ার্টারে এগিয়ে কে?

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ব্রাজিল বনাম বেলজিয়াম। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: রাশিয়া বিশ্বকাপ আসরের কোয়ার্টার ফাইনালে আগামী শুক্রবার (৬ জুলাই) দিনগত রাত ১২টায় মাঠে নামবে ফেভারিট ব্রাজিল ও বেলজিয়াম। এ ম্যাচ জিততে পারলেই বিশ্বকাপ শিরোপা ছুঁয়ে দেখার জন্য জয় দরকার হবে আর মাত্র দু’টি ম্যাচে। 

তাই এতো কাছে এসে যেন ফিরে যেতে না হয়, তার ছক কষছে লাতিন আমেরিকার পরাশক্তি আর ইউরোপের গতির ফুটবলের প্রতিনিধিরা। পরিসংখ্যান কী বলছে? সে হিসাবের খাতা খুললে মুখে হাসি ফুটবে ব্রাজিল সমর্থকদেরেই। 

এ পর্যন্ত বিশ্বকাপে চারবার ব্রাজিলের মুখোমুখি হয়েছে বেলজিয়াম। এর মধ্যে তিনবারই সেলেকাওদের সঙ্গে হেরেছে রেড ডেভিলসরা। সর্বশেষ ২০০২ সালে দক্ষিণ কোরিয়া-জাপান বিশ্বকাপে ‘সুপার সিক্সটিন’ পর্বে ব্রাজিলের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল বেলজিয়াম। এতে রিভালদো এবং রোনালদোর গোলে জয় পেয়েছিল সাম্বার দেশ। পরে সেই আসরের শিরোপাও ব্রাজিল ঘরে তুলে অলিভার কানের জার্মানিকে হারিয়ে।

এই আসরে শক্তি আর ফলাফল বিচার করলেও দারুণ আশাবাদী করবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। গ্রু পর্বের তিন ম্যাচ আর নকআউটে মেক্সিকোর সঙ্গে মিলিয়ে তাদের জালে বল ঢুকতে পেরেছে মাত্র একবার। তাও আবার সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে যে ম্যাচ ড্র হয়েছিল, সে খেলায়। অর্থাৎ ওই ড্র ম্যাচ বাদে বাকি কোনো ম্যাচেই ব্রাজিলের রক্ষণ-দেয়াল ভাঙার সামর্থ্য দেখাতে পারেনি কোনো দল।

কেবল বিশ্বকাপেই নয়, সাম্প্রতিক প্রীতি ম্যাচগুলোর দিকে তাকালেও দেখা যায়, তিতের দলের রক্ষণ কেবলই হতাশায় পুড়িয়েছে প্রতিপক্ষের আক্রমণভাগকে।

আর ব্রাজিলের নিজেদের আক্রমণ? অর্থমূল্য ধরলে দুনিয়ার সবচেয়ে দামি ফুটবলার নেইমারই তো তিতের দলে খেলছেন, আর ধার বিবেচনায় যেমন নাম আসে ফিলিপে কুতিনহোর মতো এসময়ের সেরা প্লেমেকারের নাম, তেমনি আসে গাব্রিয়েল জেসুস, ফিরমিনো, উইলিয়ানের মতো প্রতিপক্ষের রক্ষণ তছনছ করে দেওয়ার মতো সামর্থ্যবান অনেক তারকার নাম।

ব্রাজিলের এই শক্তি তাদের ম্যাচে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী করলেও একেবারে পিছিয়ে নেই বেলজিয়ামও। ফিফার র‌্যাংকিংয়ের তিন নম্বর দলটি এ আসরে ব্রাজিলের মতোই ‘অপরাজেয়’ থেকে কোয়ার্টারে এসেছে। ব্রাজিল তো তবু একটি ম্যাচ ড্র করেছে, বেলজিয়াম শতভাগ জয় পেয়েছে টুর্নামেন্টে। বিশেষ করে নকআউটে জাপানের সঙ্গে ২-০ গোলে পিছিয়ে থেকেও দ্বিতীয়ার্ধের শেষভাগে যেভাবে বেলজিয়াম স্কোরলাইনকে ২-৩ এ পরিণত করেছে, সেটা যে কোনো দলের জন্যই ভয় জাগানিয়া। 

এ দলের আক্রমণভাগে আছেন রোমেলু লুকাকু, যিনি রাশিয়া বিশ্বকাপে ৪ গোল করে শীর্ষ গোলদাতার তালিকায় আছেন। আছেন চেলসির নাম্বার ১০ ইডেন হ্যাজার্ড, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মারুয়ানে ফেলাইনি আর ম্যানচেস্টার সিটির মাঝমাঠের ভরসা কেভিন ডি ব্রুইনার মতো তারকাও।

খেলা যে জমবে তা বোঝাই যাচ্ছে, এখন শেষ হাসিটা কে হাসে, তার জন্যই অপেক্ষা ফুটবলভক্তদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ০৪, ২০১৮
টিএ/এইচএ/

পদ্মাসেতুর রোডওয়েতে স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরু
জুলহাজ-তনয় হত্যা মামলার প্রতিবেদন ফের পেছালো
তিন দিনব্যাপী বেসিস সফটএক্সপো শুরু
ঢাকা ট্রাভেল মার্টে বিমানের আকর্ষণীয় ছাড়
মাথাপিছু আয় বেড়ে ১৯০৯ ডলার, প্রবৃদ্ধি ৮.১৩ শতাংশ 
সিঙ্গাপুরে রুবেলের সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন
হালদা ভ্যালীর ‘ফার্স্ট ফ্লাশ-টি ও হোয়াইট-টি’
আন্দোলন করেই দাবি আদায় করতে হবে: গয়েশ্বর
আইভীর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি
চলে গেলেন অভিনেতা রমেন রায় চৌধুরী