ফেভারিটের তকমা নিয়েই নামছে ব্রাজিল

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton

২০১৪ সালে নিজ দেশে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে যে দুঃস্বপ্ন গ্রাস করেছিলো ব্রাজিল দলকে, তা ক্রমেই কাটিয়ে ফেলেছে তারা। মূলত নতুন কোচ তিতের অধীনে এক ভিন্ন ও বিধ্বংসী দলে পরিণত হয়েছেন নেইমাররা।

রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রথম কোয়ালিফাই করা দল ব্রাজিল। এই অসাধারণ সময়ে অনেক স্মরণীয় জয় অর্জন করেছে দলটি। 

ক্রমেই বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় দাবিদারেও পরিণত হয়েছে সেলেকাওরা। হয়ে উঠেছে সাম্প্রতিক স্মরণকালের সেরা ব্রাজিল দলে। ২০১৬ সাল থেকে বর্তমান কোচ তিতের অধীনে পরিসংখ্যান বলে দেয় দলটির ফর্ম কতোটা দুর্দান্ত।

যদিও দলের প্রাণভোমরা নেইমার ইনজুরি থেকে পুরো সেরে উঠেননি। কিন্তু প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের শেষার্ধে নেমে ১ গোল করে নিজের ফিটনেস আর ফর্মের অবস্থা জানান দিয়েছেন তিনি।

ব্রাজিল দলের ‘তুরুপের তাস’ নেইমার এখনও শতভাগ ফিট হয়ে উঠতে পারেননি বলে জানিয়েছেন তার কোচ তিতে। তবে তিনি শিগগির ফিট হয়ে যাবেন বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

রোববার (১৭ জুন) দিনগত রাত ১২টায় গ্রুপ ‘ই’ থেকে রোস্তভ অন দন স্টেডিয়ামে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম বিশ্বকাপ ম্যাচে খেলতে নামবে ব্রাজিল। তার আগে তিতের এমন তথ্য প্রথম ম্যাচে নেইমারের না খেলার সম্ভাবনাকেই স্পষ্ট করছে।

গত ফেব্রুয়ারিতে নিজের ক্লাব পিএসজির হয়ে খেলার সময় চোটাক্রান্ত হন নেইমার। তারপর তাকে চিকিৎসা ও পুনর্বাসনে রাখে ব্রাজিলের ফুটবল ফেডারেশন। ২৬ বছর বয়সী এই ফুটবলারের অস্ত্রোপচারের পর মে’র মাঝামাঝিতে তিনি পূর্ণ প্রশিক্ষণে ফিরে আসেন।

ব্রাজিল

গোলরক্ষক: আলিসন, এদারসন, কাসিও।
রক্ষণভাগ: মার্সেলো, দানিলো, ফিলিপে লুইস, ফাগনার, মার্কিনহোস, থিয়াগো সিলভা, মিরান্দা, পেদ্রো গেরোমেল।
মধ্যমভাগ: উইলিয়ান, ফার্নান্দিনহো, পাওলিনহো, কাসেমিরো, ফিলিপে কুতিনহো, রেনাতো আগুস্তো, ফ্রেড।
আক্রমণভাগ: নেইমার, গাব্রিয়েল জেসুস, রবার্তো ফিরমিনো, দগলাস কস্তা, টাইসন।

এদিকে প্রতিপক্ষ সুইজারল্যান্ডও ব্রাজিলকে ছেড়ে কথা বলবে না। কেননা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে পর্তুগালকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুরুর পর সেই পর্তুগিজদের বিপক্ষে আবার শেষ ম্যাচে হেরে যায় ২-০ গোলে। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোলের ব্যবধানে সরাসরি বিশ্বকাপে পৌঁছে যান রোনালদোরা আর উত্তর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে পেনাল্টি থেকে গোল পেয়ে প্লে অফ থেকে বিশ্বকাপ নিশ্চিত হয় সুইসদের।

বর্তমান সুইস দলটিকে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার মতো যোগ্য বলে মনে করা হচ্ছে। ২০০৯ সালের অনূর্ধ্ব- ১৭ বিশ্বকাপজয়ী দলের মূল খেলোয়াড়দের নিয়েই দল গঠন করা হয়েছে। ১৯৫৪ সালের বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠার স্মৃতি নিশ্চয় আবারও ফিরিয়ে আনতে চাইবে দলটি। যদিও বাছাইপর্বে দুর্বল গ্রুপ থেকে ৯ ম্যাচ জিতে বিশ্বকাপে পা রেখেছে বলে সমালোচকরা নানান কটু কথা বলে এই দল নিয়ে। তথাপি এই দলটি বেশ গোছানো।

সুইজারল্যান্ড

গোলরক্ষক: রোমান বুরকি, ইভন মাভোগো, ইয়ান সোম্মার।
রক্ষণভাগ: মানুয়েল আকানজি, ইয়োহান জোরোরু, নিকো এলভেদি, মিশেল লাং, স্তেফান লিখস্টাইনার, জ্যাক ফ্রাসোঁয়া মুবান্দজে, রিকার্দো রদ্রিগেস, ফাবিয়ান শায়ের।
মধ্যমভাগ: ভালোন বেহরামি, ব্লেরিম জেমাইলি, গেলসন ফার্নান্দেস, রেমো ফ্রুলার, হেরদান শাকিরি, গ্রানিত শাহাকা, স্তেভেন জুবার, দেনিস জাকারিয়া।
আক্রমণভাগ: ইয়োসিফ দ্রেমিচ, ব্রিল এমবোলো, মারিও গাভরানোভিচ, হারিস সেফেরোভিচ।

বাংলাদেশ সময়: ১০২২ ঘণ্টা, ১৭ জুন, ২০১৮
এমএমএস

‘সংগ্রামের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে’
রায়েরবাজার সৌধে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা
মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী সৌধে জনতার ঢল
হানাদারদের রুখতে বোমা ফেলা হয় হার্ডিঞ্জ ব্রিজে
চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনকে হারানোর এক বছর
বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
খুলনায় পাটকল শ্রমিকদের অনশন স্থগিত
১৪ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জ মুক্ত দিবস
সাভারে বিদেশি পিস্তলসহ ইউপি সদস্য আটক
রামুতে প্রজন্ম’৯৫ বৃত্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ