জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে মোবাইল ফোনে ভর্তি কার্যক্রম

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

দেশের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে সব বিভাগে সেমিস্টার পদ্ধতি নিয়ে শুরু হয় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম। শিক্ষাসংক্রান্ত কাজে ধাপে ধাপে চলছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ব্যবহার।

দেশের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে সব বিভাগে সেমিস্টার পদ্ধতি নিয়ে শুরু হয় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম। শিক্ষাসংক্রান্ত কাজে ধাপে ধাপে চলছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ব্যবহার। এরই অংশ হিসেবে ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষ থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে এবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। ফলে ঘরে বসেই ভর্তি ফরম তোলা ও জমা দেওয়া যাবে। এছাড়া একজন শিক্ষার্থী পরীক্ষার পর ফলাফল জানা ও কোনও বিষয়ে ভর্তি হতে ইচ্ছুক এসব কাজ মোবাইল ফোনের মাধ্যমেই সম্পন্ন করতে পারবে। ১৮ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সকল সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ক্রমবর্ধমান উচ্চশিক্ষার চাহিদা বিবেচনায় এবার ৪৫টি আসন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ২৮টি বিভাগে বর্ধিত আসনসহ মোট ২ হাজার ৬৩৫টি আসনের জন্য শিক্ষার্থীরা ভর্তিযুদ্ধে অবতীর্ণ হবেন।

মোবাইলে ফরম উঠানো ও জমাদান

প্রতি বছর ভর্তি পরীক্ষার ফরম উঠানো ও জমা দেওয়া নিয়ে সময় ও অর্থ ব্যয় করে দেশের নানা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিসংক্রান্ত কাজে শিক্ষার্থীদের নানা ভোগান্তির শিকার হতে হয়। আবার ফরম নিয়ে কালোবাজারি চক্র ব্যবসার সুযোগ নেয়। এসব  বিবেচনায় এবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মোবাইল ফোনে ভর্তি কার্যক্রমের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটকের সাথে চুক্তি সম্পন্ন করেছে।

শিক্ষার্থীর করণীয়

মোবাইল ফোনে পরীক্ষার্থীকে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের জন্য একটি টেলিটক প্রিপ্রেইড মোবাইল ফোন থেকে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করতে হবে। পদ্ধতিটি হলো : প্রথমে টেলিটক প্রিপ্রেইড মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মেসেজ অপশনে যান। লিখুন JNU, স্পেস দিয়ে এইচএসসি শিক্ষা বোর্ডের নামের প্রথম তিনটি অর লিখুন, এভাবে প্রতিটির শেষে স্পেস দিয়ে পর্যায়ক্রমে এইচএসসি পরীক্ষার রোল নম্বর, এইচএসসি পাসের সাল, এসএসসি শিক্ষা বোর্ডের নামের প্রথম তিনটি অর, এসএসসি পরীক্ষার রোল, এসএসসি পাশের সাল, কাক্সিক্ষত ইউনিট এর কি-ওয়ার্ডটি (Key Word) লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করুন।

কী-ওয়ার্ডগুলো হচ্ছে : বিজ্ঞান অনুষদ-A, কলা অনুষদ-B, বিজনেস স্টাডিজ-C, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ-D। মোবাইলে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনপত্র পূরণের উদাহরণ হচ্ছে : JNU DHA 123456 2010 DHA 123456 2008 A। উদাহরণটি ঢাকা বোর্ড থেকে পাসকৃত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর জন্য প্রযোজ্য। অন্যান্য বোর্ড থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা একই পদ্ধতিতে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সংশোধন করে আবেদনপত্র পূরণ করবেন। এখানে ১২৩৪৫৬-এর জায়গায় আবেদনকারীর নিজের এইচএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষার রোল নম্বর দিতে হবে। কেউ ২০০৯ সালে এইচএসসি পাস করে থাকলে ২০১০-এর জায়গায় ২০০৯ লিখতে হবে।

শিক্ষার্থীর পাঠানো এসএমএস যাচাইবাছাই করে শিক্ষা বোর্ড থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে  সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী পরীক্ষা দেওয়ার যোগ্য বিবেচিত হলে তার মোবাইল ফোন থেকে নির্ধারিত ফি কেটে নিয়ে ফিরতি এসএমএসের মাধ্যমে তাকে ভর্তি পরীক্ষার রোল নম্বর জানিয়ে দেওয়া হবে। ভর্তি পরীক্ষার দিন আবেদনকারীকে দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যয়িত ছবি ও ছবির পিছনে ভর্তি পরীক্ষার রোল নম্বর লিখে আনতে হবে, যা তার প্রবেশপত্র হিসেবে বিবেচিত হবে।  

যেসব বিভাগে ভর্তি হওয়া যাবে

কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে ১৪টি বিষয় রয়েছে। এগুলো হলো বাংলা, ইংরেজি, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, ইসলামিক স্টাডিজ, দর্শন, আইন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, সমাজবিজ্ঞান, অর্থনীতি,সমাজকর্ম, নৃ-বিজ্ঞান, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ।

বিজ্ঞান অনুষদে আছে ১০টি বিষয়। এগুলো হলো পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, প্রাণিবিদ্যা, পরিসংখ্যান, উদ্ভিদবিদ্যা, গণিত, ভূগোল ও পরিবেশ, মনোবিজ্ঞান, ফার্মেসি, মাইক্রোবায়োলজি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং।
ব্যবসায় অনুষদে রয়েছে ৪টি বিভাগ : হিসাববিজ্ঞান, ব্যবস্থাপনা, ফিন্যান্স, মার্কেটিং।

ভর্তি পরীক্ষা অংশ নেওয়ার যোগ্যতা

চলতি শিক্ষাবর্ষে ‘বিজ্ঞান’ শাখায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় মোট প্রাপ্ত জিপিএ ৭.০। এইচএসসি পরীক্ষায় অন্যান্য শাখায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমান উভয় পরীক্ষায় মোট প্রাপ্ত জিপিএ ৬.৫, তবে কোনও পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ ৩-এর নিচে নয়। জিসিই ‘ও’ লেভেল পরীক্ষায় কমপক্ষে ৩টি বিষয়ে ‘সি’ গ্রেডসহ ন্যূনতম পাঁচটি বিষয়ে উত্তীর্ণ এবং ২০০৮ বা ২০০৯ সালের ‘এ’ লেভেল পরীক্ষায় কমপক্ষে দুটি বিষয়ে ‘সি’ গ্রেডসহ উত্তীর্ণ হতে হবে।

পরীক্ষায় অংশগ্রহণের প্রস্তুতি

বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ক ইউনিটে বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের পদার্থ, রসায়ন, জীববিজ্ঞান ও গণিত বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে। তবে এ ইউনিটে মানবিক ও ব্যবসা শিক্ষার শিক্ষার্থীদের বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে।
কলা অনুষদভুক্ত খ ইউনিট এবং সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ঘ ইউনিটের পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য সব বিভাগের শিক্ষার্থীদের  বাংলা/এডভান্স ইংলিশ (শুধু জিসিইদের জন্য), ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে।
ব্যবসায় অনুষদভুক্ত গ ইউনিটের পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ব্যবসায় শিক্ষা শাখার শিক্ষার্থীদের ইংরেজি, গাণিতিক বুদ্ধিমত্তা, হিসাববিজ্ঞান, ব্যবসায় নীতি বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে। তবে এই ইউনিটে মানবিক ও বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের  ইংরেজি গাণিতিক বুদ্ধিমত্তা ও সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে। পরীক্ষা হবে এমসিকিউ পদ্ধতিতে।
 
ভর্তি ফরম বিতরণ ও পরীক্ষার সময়সূচি

চলতি মাসের ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর ২০১০ পর্যন্ত মোবাইলে এসএমএস করে ভর্তির আবেদন করা যাবে। এবার আবেদন করার জন্য শিক্ষার্থীদের ৩৩০ টাকা খরচ হবে। বিশ্ববিদ্যালয় কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. শওকত জাহাঙ্গীর বলেন, গতবারের চেয়ে ৩০ টাকা বাড়ানো হয়নি বরং ভর্তি কার্যক্রমে মোবাইল অপারেটর কোম্পানির সার্ভিস চার্জ বাবদ শিক্ষার্থীর মোবাইল ব্যালান্স থেকে ৩০ টাকা বেশি খরচ হবে।

২৯ অক্টোবর কলা অনুষদভুক্ত খ ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। ৫ নভেম্বর বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ক ইউনিট, ২৬ নভেম্বর ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত গ ইউনিট এবং ৩ ডিসেম্বর সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সব পরীক্ষা বিকেল ৩টা থেকে ৫টায় অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী ওহিদুজ্জামান বলেন, পরীক্ষার হলে শিক্ষার্থীদের নাম, রোল নম্বর, সাক্ষর প্রভৃতি কাজের জন্য অগ্রিম  এক ঘণ্টা, আর উত্তর করার জন্য এক ঘণ্টা সময় বরাদ্দ থাকবে।

যোগাযোগ

ভর্তির অন্যান্য যোগ্যতা, বিশেষ যোগ্যতা, কোটায় ভর্তি, ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত ও অন্যান্য যাবতীয় তথ্যাদি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.jnu.ac.bd-এ পাওয়া যাবে। অথবা ০১৫৫৫-৫৫৫-০১৩ বা ০১৫৫৫-৫৫৫-০১৪ হটলাইনে ফোন করে জানা যাবে।

এবারে মোবাইল ফোনে ভর্তি কার্যক্রম সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মেসবাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ভর্তি কার্যক্রম পরিচালিত হলে শিক্ষার্থীদের শারীরিক, মানসিক ও অর্থনৈতিক ভোগান্তির অনেকটা লাঘব হবে বলেই আমরা এ উদ্যোগ নিয়েছি।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৫৫০, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১০

দেশবাসীকে ঈদ-উল-ফিতরের শুভেচ্ছা সাজেদা চৌধুরীর
‘চির উন্নত শির...’
আজ ১২১তম নজরুলজয়ন্তী

‘চির উন্নত শির...’

সাবেক এমপি মকবুলের মৃত্যুতে তাপসের শোক
হাসপাতাল কর্মচারীদের জন্য আতিকের ঈদ উপহার
সিলেট আওয়ামী পরিবারে করোনার হানা


হাজি মকবুলের মৃত্যুতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রীর শোক
কল্যাণপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত
সিলেটে নতুন ১৮সহ ২৮ জনের করোনা পজিটিভ
সাবেক এমপি হাজি মকবুল-এর মৃত্যুতে স্পিকারের শোক
চট্টগ্রামে আরও ৬৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত