ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

ফিচার

ইতিহাসের এই দিনে

বিজ্ঞানী আইনস্টাইনের প্রয়াণ

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২০
বিজ্ঞানী আইনস্টাইনের প্রয়াণ

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানব সভ্যতার আশির্বাদ-অভিশাপ।

ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এ গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এইদিন’।

১৮ এপ্রিল ২০২০, শনিবার। ০৫ বৈশাখ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
১৯৪৬- আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালত নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরে উদ্বোধনী বৈঠকে বসেন।
১৯৪৬- লিগ অব নেশন্সের (সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ) কার্যক্রম শুরু।
১৯৫৪- মিশরের ক্ষমতা দখল করেন জামাল আব্দেল নাসের।

জন্ম
১৮০৯- ইউরেশীয় কবি, যুক্তিবাদী চিন্তাবিদ ও শিক্ষক হেনরি লুই ভিভিয়ান ডিরোজিও।
১৮৪৭- জার্মান ভাষাবিজ্ঞানী হের্মান অস্ট্‌হফ।
১৯৫৮- বার্বাডোসে জন্মগ্রহণকারী ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার ম্যালকম মার্শাল।

মৃত্যু
১৯৫৫- নোবেলজয়ী মার্কিন পদার্থবিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইন।

তার জন্মস্থান জার্মানি। সেখানকার একটি ছোট শহর উলমে এক ইহুদি পরিবারে আইনস্টাইনের জন্ম। তার বাবা পেশায় ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার। তাই মাঝে মাঝেই ছেলেকে নানা ধরনের খেলনা এনে দিতে পারতেন। শিশু আইনস্টাইনের বিচিত্র চরিত্রকে সেইদিন উপলব্ধি করা সম্ভব হয়নি তার অভিভাবক, তার শিক্ষকদের। স্কুলের শিক্ষকদের কাছ থেকে মাঝে মাঝেই অভিযোগ আসতো, পড়াশোনায় পিছিয়ে পড়া ছেলে, অমনোযোগী, আনমনা ইত্যাদি। এতে করে বেশ বিরক্ত হতেন বাবা-মা। এছাড়া ক্লাসের কেউ তার সঙ্গী ছিল না। সবার শেষে পেছনের সিটে গিয়ে বসতেন এবং কিছু না কিছু ভাবতে থাকতেন। তার একমাত্র সঙ্গী ছিল মা। তিনি ভালো বেহালা বাজাতে পারতেন। আইনস্টাইন তার কাছে দুনিয়ার শ্রেষ্ঠ শিল্পীদের নানা সুর শুনতেন। এই বেহালা ছিল আইনস্টাইনের আজীবন কালের সঙ্গী। বাবাকে খুব বেশি একটা কাছে পেতেন না আইনস্টাইন; বাবা কারখানা নিয়েই ব্যস্ত থাকতেন। এমনই এক পরিবেশে তার বড় হয়ে ওঠা। কে জানতো; এই ছেলেটি ইতিহাস হয়ে রইবে!

বিখ্যাত আপেক্ষিক তত্ত্ব এবং বিশেষত ভর-শক্তি সমতুল্যতার সূত্র আবিষ্কারের জন্য তিনি বিখ্যাত। তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানে বিশেষ অবদান এবং বিশেষত আলোক-তড়িৎ ক্রিয়া সম্পর্কিত গবেষণার জন্য ১৯২১ সালে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হন আইনস্টাইন।

২০০৩- ইংরেজ কম্পিউটার বিজ্ঞানী এডগার কড।
২০১২- বাংলাদেশের প্রখ্যাত গীতিকার, সুরকার ও শিল্পী এমএন আখতার।

বাংলাদেশ সময়: ০০০৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২০
টিএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa