আজ বিশ্বখ্যাত সুর সাধক ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর প্রয়ান দিবস

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

আজ ৬ সেপ্টেম্বর। শাস্ত্রীয় সংগীতের বিখ্যাত মাইহার ঘরানার রুপকার সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর প্রয়ান দিবস। ১৯৭২ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ভারতের মধ্যপ্রদেশের ম্ইাহারে ১ শ ১০ বছর বয়সে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

ব্রাহ্মনবাড়িয়া প্রতিনিধি: আজ ৬ সেপ্টেম্বর। শাস্ত্রীয় সংগীতের বিখ্যাত মাইহার ঘরানার রুপকার সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর প্রয়ান দিবস। ১৯৭২ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ভারতের মধ্যপ্রদেশের ম্ইাহারে ১ শ ১০ বছর বয়সে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেল রোডে অবস্থিত দি আলাউদ্দিন সংগীতাঙ্গনে এ উপলে মিলাদ মাহফিল,আলোচনা সভা ও ইফতারের আয়োজন করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম শিবপুরে জন্মগ্রহনকারী সুরের এ সম্রাটের নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি আন্তর্জাতিক মানের সাস্কৃতিক কেন্দ্র প্রতিষ্টার দাবীটিই এবারের প্রয়ান দিবসের প্রধান দাবী স্থানীয় সংস্কৃতি কর্মীদের।

বহু সুরযন্ত্রে পারদর্শী সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খা সাহেব সরোদেই সুর সাধনা করতেন বেশী।ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের মাইহার ঘরানার রুপকার উস্তাদ আলাউদ্দিন খা ১৮৬২ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের শিবপুর গ্রামে সবদর হোসেন খার ঘরে জন্ম গ্রহন করেন। শিশুকালেই বড় ভাই ফকির আফতাব উদ্দিন খাঁর কাছে সংগীতে হাতে খড়ি হয়।হঠাৎ করে ১০ বছর বয়সে সংগীতের টানে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান ওস্তাদ আলাউদ্দিন খা।শুরু হয় তার সংগীত সাধনা।বিখ্যাত সংগীত সাধক নুনো গোপাল ও ওস্তাদ ওয়াজির খা সহ বিখ্যাত সংগীত সাধকদের কাছে তিনি সংগীতের দীা নেন।ভারত বর্ষে পরিচিত হন বাবা আলাউদ্দিন নামে।পরে মাইহারের মহারাজার আমন্ত্রনে মাইহারে স্থায়ী ভাবে বসবাস শুরু করেন।কিন্তু জন্মভুমির টানে একপর্যায়ে   ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে এসে স্থায়ী ভাবে বসবাস শুরু করেন ।এই বাড়িটিতে এখন শাস্ত্রীয় সংগীতের শিা দেয়া হয়।

দি আলাউদ্দিন সংগীতাঙ্গনের সম্পাদক কবি আবদুল মান্নান সরকার জানান বিশ্ব বিখ্যাত সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খা বাংলাদেশে খুবই অবহেলীত।নব্বই দশকের আগে বাংলাদেশের রেডিও টিভিতে তার মৃত্যূ বার্ষিকী পালিত হতো না।আমাদের প্রচেষ্টায় এখন তা হচ্ছে।

জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আমানুল হক সেন্টু জানান ওস্তাদ আলাউদ্দিন খার স্মৃতিকে অ¤ান করে রাখতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইতোমধ্যে একটি সড়ক ও একটি মিলনায়তনের নামকরন করা হয়েছে।এখন একটি আন্তর্জাতিক মানের সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপনের কার্যক্রম চলছে।মহামান্য রাষ্ট্রপতি জিলুর রহমান সম্প্রতি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এসে এ ব্যাপারে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহনের জন্যে এলজিইডি মন্ত্রীকে নির্দেশও দিয়েছেন।


ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও জেলার বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব জিয়াউল হক মৃধাও সুরের সম্রাটের নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আর্ন্তর্জাতিক স্ংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপননের দাবী জানিয়েছেন।


ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক আবদুল মান্নান সরকার জানিয়েছেন ওস্তাদ আলাউদ্দিন খার নামে একটি আন্তর্জাতিক কেন্দ্র স্থাপনের জন্যে সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

সংস্কৃতির রাজধানী হিসেবে পরিচিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুরাতন জেলখানার সাড়ে ৮ একর জমির উপর সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খার নামে একটি আন্তর্জাতিক মানের সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গড়ে উঠবে এমনটাই আশা করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

Nagad
নুরে আলম সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবি
বিনামূল্যে ইন্টারনেট পাওয়া শিক্ষার্থীদের অধিকার
করোনা আক্রান্তের ঝুঁকির মধ্যেই স্বাভাবিক হচ্ছে নগরজীবন!
ভিয়েতনামে আটকে পড়া ২৭ বাংলাদেশি নিয়ে মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা
ক্ষেতলালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু


এবার ফ্লোরিডায় মানুষের মগজখেকো অ্যামিবার হানা! 
পিরোজপুরে মতানৈক্যের কারণে উন্নয়নে বরাদ্দকৃত টাকা ফেরত   
হাতিয়ায় ৩ হাজার মানুষ পানিবন্দি
সারা দেশে একটি ‘সাইবার পুলিশ স্টেশন’ করবে সিআইডি
স্ত্রীসহ ক্রেস্ট সিকিউরিটির চেয়ারম্যান আটক