php glass

লিডারস্ ফর নেশন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

পাঁচ বন্ধু মিলে শুরু করে দিলাম, ‘লিডারস্ ফর নেশন’। অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। মূল কাজ হচ্ছে, মানুষের কাজে সহযোগিতা করা, সেই সাথে সামাজিক কাজে নিজেদের সম্পৃক্ত করা। পাশাপাশি আত্মিক উন্নয়নের জন্য সভা, সম্মেলন, ও বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করা। 

পাঁচ বন্ধু মিলে শুরু করে দিলাম, ‘লিডারস্ ফর নেশন’। অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। মূল কাজ হচ্ছে, মানুষের কাজে সহযোগিতা করা, সেই সাথে সামাজিক কাজে নিজেদের সম্পৃক্ত করা। পাশাপাশি আত্মিক উন্নয়নের জন্য সভা, সম্মেলন, ও বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করা।

এভাবেই নিজেদের কথা বলা শুরু করলো তানভীর আদনান অভি।

লিডারস্ ফর নেশনের যাত্রা শুরু হয় ২০১০ সালের শেষের দিকে একটি কনফারেন্স আয়োজনের মধ্যে দিয়ে। আন্তর্জাতিক কনফারেন্স করেই বুকে সাহস এলো। এরপর তারা এ বছরের শুরুতে তেঁতুলিয়া থানার পঞ্চগড়ে শীতবস্ত্র বিরতণ করে। ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় ৩০০০ শীতের কাপড় সংগ্রহ করে বাসে চেপে তারা চলে যায় পঞ্চগড়।   সেখানে দুস্থ মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করে এই পাঁচ বন্ধু।

সম্প্রতি তারা উদ্যোগ নেয় দুস্থ শিশুদের সাথে কিছু সময় কাটানোর। স্থান ঠিক হয় কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার মোল্লাকন্দি গ্রাম।

১৭ জুন মোল্লাকান্দি গ্রামের এতিমখানায় পৌছে বিনোদনমূলক কার্যক্রম চালায় লিডারস্ ফর নেশনের সদস্যরা।

লিডারস্ ফর নেশনের প্রেসিডেন্ট তানভির রহমান বলেন, ‘আমরা ৩০ জন শিশুদের নিয়ে ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করি। খেলার পর তাদের ভালো মানের খাবার পরিবেশন করি। এছাড়া  মৌসুমী ফল, চকলেট তো ছিলই।’  

তাঁরা এই কর্মসূচিটির নাম দেয় ‘প্রজেক্ট হ্যাপি ডে’।

কেন এ ধরনের আয়োজন? এই প্রশ্নের উত্তরে তানভীর বলেন, `এই এতিম শিশুদের তো এ ধরনের বিনোদনের সুযোগ হয় না। তাদের সাথে থেকে কিছুক্ষণ আনন্দ দেওয়াই মূল লক্ষ।`

কথা বলে জানা যায়, এ সংগঠনটি দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দিয়ে পরিচালিত হয়। তবে এখনও আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ ও মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সির শিক্ষার্থীরাই বেশী। তবে ভবিষ্যতে তারা সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সদস্য নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ ঘন্টা, জুন ২১, ২০১১

জাতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক ইব্রাহিম সাবের আর নেই
অজিরা ৭০ ভাগ খেললে আমাদের খেলতে হবে ১০০ ভাগ: মাশরাফি
এমপিওভুক্তিতে রাজনৈতিক নেতাদের সম্পৃক্ত করার দাবি
আবার ‘জাদু’ দেখানোর সুযোগ টাইগারদের সামনে
মাকে হত্যার পর মেয়েকে ধর্ষণ: বখাটে সাগরের স্বীকারোক্তি


বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য ইউরেনিয়াম কেনার প্রস্তাব অনুমোদন
খুলনায় অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার
‘পরিবহন সেবার জন্য, মানুষকে জিম্মি করার জন্য নয়’
আদিতমারীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু
সিএনজিচালক হাসমত হত্যায় ৮ ছিনতাইকারীর ৬০ বছর কারাদণ্ড