সত্যিকার টম অ্যান্ড জেরি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

টম ও জেরির ঠোকাঠুকি, অভিমান, খুনসুঁটি সবশেষে সমঝোতা দুনিয়াজুড়ে সুবিদিত। শিশু-কিশোর এমনকি বড়দেরও নির্মল আনন্দের উৎস এই ‘টম অ্যান্ড জেরি’ কার্টুন সিনেমার চরিত্র দুটো। আর হ্যাঁ, বিশ্বাস করুন আর না-ই করুন, কল্পজগত ছাড়িয়ে এবার বাস্তব জীবনে দুজনকে মুখোমুখি দেখা গেছে।

php glass

টম ও জেরির ঠোকাঠুকি, অভিমান, খুনসুঁটি সবশেষে সমঝোতা দুনিয়াজুড়ে সুবিদিত। শিশু-কিশোর এমনকি বড়দেরও নির্মল আনন্দের উৎস এই ‘টম অ্যান্ড জেরি’ কার্টুন সিনেমার চরিত্র দুটো। আর হ্যাঁ, বিশ্বাস করুন আর না-ই করুন, কল্পজগত ছাড়িয়ে এবার বাস্তব জীবনে দুজনকে মুখোমুখি দেখা গেছে।

বিড়াল (টম) ও ইঁদুর (জেরি) একে অপরকে ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রতিযোগিতায় অন্তত কয়েক মুহূর্তের জন্য নেমেছিল বাস্তব জীবনে। শৌখিন আলোকচিত্রী বিল ম্যাকিনটশের নিজের চোখকেও যেন বিশ্বাস হচ্ছিল না।

৮১ বছর বয়সী বিল বলছেন, ‘ইঁদুরটি একবার গাছ বেয়ে ওপরে উঠছে তো, আরেকবার নিচে নামছে। আর বিড়ালটি তার থাবা দিয়ে ওটাকে ধরছে, ছাড়ছে। একসময় ইঁদুরটি হাঁপিয়ে গেলে বিশ্রাম নেয়।’

স্কটল্যান্ডের অ্যাবারডিন শহরে বিলের পাশ্ববর্তী অঞ্চলে ছবিটি ধারণ করা। ১৪ বছর বয়স থেকে বিল ছবি তোলাকে শখ হিসেবে নিয়েছেন। তার ক্যামেরায় মূলত পাখির ছবি ধারণ করা হয়। প্রথমে ভেবেছিলেন, বিড়ালের সামনেও বুঝি একটি পাখি রয়েছে। আরও কাছাকাছি গিয়ে তো চোখ ছানাবড়া। এতো সত্যিকার টম ও জেরি।

তিনি বলেন, ‘আমি তাদের খেলারত অবস্থায় রেখে এসেছি। জানি না, বিড়ালটি ইঁদুরকে মেরে খেয়ে ফেললো কি না।’ তবে বিলের আশা, ইঁদুরটা মরেনি।

ডেইল মেইল অবলম্বনে

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০১১

মানুষের মৃত্যুর প্রহর গুনেন তারা
অসহ্য গরমের পর স্বস্তির বৃষ্টি চট্টগ্রামে
পাইকারিতে আড়াই টাকার লেবু খুচরা পর্যায়ে ১০ টাকা
মার্কেটে মার্কেটে পুলিশের সেবা বুথ
ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে লক্ষ্য সুনির্দিষ্ট: পলক


২৫০ রোগীর বিপরীতে ১ জন চিকিৎসক
বগুড়া-৬ উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন না খালেদা জিয়া
খিলগাঁয়ে কাভার্ড ভ্যানচাপায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু
ট্রেনের টিকিটের জন্য রাত জাগছেন তারা
ক্রেতা টানতে বুলি, ফুটপাতে জমেছে বিকিকিনি