ঢাকা, শনিবার, ৩ মাঘ ১৪২৭, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বিনোদন

দাওয়াত না পেয়েও বন্ধু মনির খানের অনুষ্ঠানে হাজির রবি চৌধুরী

নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২০
দাওয়াত না পেয়েও বন্ধু মনির খানের অনুষ্ঠানে হাজির রবি চৌধুরী দাওয়াত না পেয়েও বন্ধু মনির খানের অনুষ্ঠানে হাজির বিস্ময়ে অভিভূত করলেন রবি চৌধুরী

২৫ নভেম্বর ১৯৯৫ সালে প্রকাশ পেয়েছিল মনির খানের সংগীত ক্যারিয়ারের প্রথম অ্যালবাম ‘তোমার কোনো দোষ নেই’। সেই পঁচিশ বছর আগের কথা।

এই অ্যালবামটির মাধ্যমে সংগীতশিল্পী হিসেবে দেশব্যাপী পরিচিতি পান বাংলা বিরহ খানের সম্রাট’খ্যাত মনির খান। আলোচিত হন ‘অঞ্জনা’ নামে গানের এক নায়িকা চরিত্রকে কণ্ঠে ধারণ করে।

মনির খানের আলোচিত সেই ‘তোমার কোনো দোষ নেই’ অ্যালবামটি ২৫ বছর পূর্ণ করলো। হ্যাঁ, ২৫ নভেম্বর ২০২০- এ গায়ক সেটি স্মরণ করিয়ে দিলেন ভক্ত-অনুরাগীদের। আর এই সময়টাকে স্মরণ করার জন্য রাজধানীর কঁচিকাঁচারমেলা প্রাঙ্গণে বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) মনির খানের অনুরাগীরা আয়োজন করেছিলেন ২৫ বছর পূর্তি উৎসব।  

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি করা হয়েছিল মনির খানের সংগীতপিতা মিল্টন খন্দকারকে। অতিথি করা হয়েছিল মিলন ভট্টচার্য ও মনির খানের প্রথম অ্যালবাম ‘তোমার কোনো দোষ নেই’র সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা সকলকে।

মজার বিষয় হলো, বিশেষ এই আয়োজনে মনির খান দাওয়াত দেননি তার গায়কবন্ধু রবি চৌধুরীকে। অথচ, দাওয়াত না পেয়েও বন্ধুর অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে মনির খানকে চমকে দেন রবি চৌধুরী, যেটি ২৫ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানকে আরও বেশি মহিমান্বিত করেছে। অবশ্য, বন্ধুকে দাওয়াত না দেওয়ার কারণও ব্যাখ্যা করেছেন মনির খান।

আসি সেই কথায়...। মনির খানের এই অনুষ্ঠান ছিল মূলত কৃতজ্ঞতা স্বীকারের। ২৫ বছর আগে মনির খান কীভাবে শিল্পী হয়ে ওঠার চেষ্টা করেছিলেন। কত ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে শিল্পী হয়েছিলেন, সেসব তুলে ধরেছেন। অকপটে বলে গেছেন খেয়ে না খেয়ে একজন মনির খানের শিল্পী হয়ে ওঠার গল্প।

মনির খান বলেন, ‘অহংকারবোধ আমার পছন্দ নয়। আমি সেইদিনের কথা ভুলে যাইনি। গ্রাম থেকে টাকা নিয়ে এসেছিলাম গানের ক্যাসেট করবো বলে। মিল্টন খন্দকার ভাই সেই টাকা ফেরত দিয়ে আসতে বলেছিলেন। আমি ফেরত দিয়ে এসেছিলাম। একজন মিল্টন খন্দকার আমার জীবনে যে কি, তা বলে বোঝাতে পারবো না। তখন একটা মেসে থাকতাম, হেঁটে হেঁটে মিল্টন ভাইয়ের কলাবাগানের বাসায় যেতাম। সেসব দিন আমি ভুলিনি। ’

‘অঞ্জনা’ গানের গায়ক আরও বলেন, ‘এই অনুষ্ঠানে আমি তেমন কোনো অতিথিকে ডাকিনি। কারণ আজকের অনুষ্ঠান আমার সাধারণ ভক্তদের নিয়ে। যারা একজন সংগীতশিল্পী হয়ে উঠতে চায়, মঞ্চে ‍উঠতে চায়- আজ তাদের ডেকেছি। তারা মঞ্চে ওঠে গাইবে। আজ কোনো পেশাদার শিল্পী গাইবে না। কারণ একজন নতুন শিল্পীর বেদনা আমি বুঝি। আমার বন্ধু মানুষ রবি চৌধুরী এই অনুষ্ঠানের ঘটনা জানতে পেরে আমাকে ফোন দিয়েছিল। বলল, বন্ধু তুমি আমাকে দাওয়াত করলে না। আমি বললাম, এটা তো সাধারণের অনুষ্ঠান। শিল্পীদের কাউকেই বলিনি। ’

সেই অনুষ্ঠানে তখনও মনির খানের বক্তব্য চলমান। সেই সময়ই বিস্ময়কর ঘটনাটি ঘটে অনুষ্ঠালস্থলে। হ্যাঁ, রবি চৌধুরী অনুষ্ঠানে। মনির খান বিস্ময়ে অভিভূত। প্রিয় বন্ধুকে দাওয়াত দেয়নি তাতে কি, বন্ধুর জীবনের এমন একটি উদযাপনের দিনে না এসে কি থাকা যায়! আবেগমিশ্রিত আবেশে আলিঙ্গন করলেন তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২০
ওএফবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa