কান্ট্রি মিউজিকের কিংবদন্তি কেনি রজার্সের প্রয়াণ

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কেনি রজার্স

walton

না ফেরার দেশে চলে গেলেন কান্ট্রি মিউজিকের কিংবদন্তি সংগীততারকা কেনি রজার্স। নিজ বাড়িতে স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে এই সংগীতশিল্পীর। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। কেনির মৃত্যুর বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেছে তার পরিবার। পরিবারের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, মার্কিন সংগীতে কেনির অবদান অবিশ্বাস্য।

কেনি রজার্স ছিলেন একাধারে সংগীতশিল্পী, গীতিকবি, অভিনয়শিল্পী, রেকর্ডের প্রযোজক ও উদ্যোক্তা। জীবদ্দশায় তিনি পাঁচবার বিয়ে করেছেন। তিনি পাঁচ সন্তানের জনক।

১৯৩৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে জন্মগ্রহণ করেন কেনি রজার্স। শৈশব থেকেই গানের সঙ্গে তাঁর সখ্যতা। শুরুটা করেছিলেন ব্যান্ড দিয়ে। তবে আকাশকুসুম জনপ্রিয়তা লাভ করেন নিজের একক ক্যারিয়ারের গান দিয়ে। লিওনেল রিচির লেখা ‘লেডি’ গেয়ে দারুণ জনপ্রিয়তা পান কেনি। তরুণ বয়সে কেনি রজার্সের সেই অসাধারণ ভরাট গলার ‘লেডি’ গানটি এখনো মুগ্ধতায় ভাসায় সংগীতপ্রেমিদের। 

কেনি রজার্স ‘ইউএসএ টুডে’ ও ‘পিপল’ ম্যাগাজিনের জরিপে সর্বকালের সেরা জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী হিসেবে বিবেচিত হয়েছেন৷ তার দুটো অ্যালবাম ‘দ্য গ্যাম্বলার’ আর ‘কেনি’ ঠাঁই করে নিয়েছে কান্ট্রি মিউজিকের সর্বকালের সেরা ২০০ অ্যালবামের তালিকায়। 

ব্যক্তিগতভাবে কেনির সবচেয়ে পছন্দের গান ছিল ‘দ্য গ্যাম্বলার’ অ্যালবামের টাইটেল গানটি৷ তার ‘গ্যাম্বলার’ গানটি এতটাই জনপ্রিয়তা পায় যে, পরবর্তী সময়ে টেলিভিশনের জন্য একটি সিনেমাও নির্মিত হয় ‘কেনি রজার্স অ্যাজ দ্য গ্যাম্বলার’ নামে। এতে অভিনয়ও করেন তিনবার গ্র্যামিজয়ী এই সংগীততারকা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৮ ঘণ্টা, মার্চ ২১, ২০২০
ওএফবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সংগীত
স্বাস্থ্যকর্মী-সাংবাদিকদের পিপিই দিবে ‘স্নোটেক্স’
আজমিরীগঞ্জে ৭ খুনের পর ফের সংঘর্ষ
ফেনী শহর জীবাণুমুক্ত করতে মাঠে ফায়ার ব্রিগেড
খাদ্য সহায়তা নিয়ে মধ্যরাতে দরিদ্রদের দরজায় কড়া নাড়ছেন এসপি
বরিশালের বিভিন্ন উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ


ফেনীতে নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে থাকবে জেলা প্রশাসন
সরকারি কর্মচারীদের দায়িত্ব পালনে মানবিক হওয়ার আহ্বান
ফতুল্লার গার্মেন্টসে শ্রমিক অসন্তোষ
ফেনীতে সেনাবাহিনীর পদক্ষেপে ইতিবাচক সাড়া
রংপুরে করোনা সন্দেহে আইসোলেশনে একই পরিবারের পাঁচ সদস্য