নিয়ম মেনে ব্যবহার করতে হবে মাকসুদের গান ‘মেলায় যাই রে’

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মাকসুদ

walton

বাঙালির প্রাণের উৎসব- পহেলা বৈশাখ তথা বাংলা নববর্ষ। আর এ উৎসবের অন্যতম সেরা অনুষঙ্গ মাকসুদুল হক’র গান ‘মেলায় যাই রে’। দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে বাঙালি হৃদয়কে আনন্দে-সানন্দে মাতোয়ারা করে আসছে বৈশাখী মেলা নিয়ে তৈরি বিশেষ এ গান। 

তবে গানটি যথাযথভাবে ব্যবহারে অনিয়ম, অস্বচ্ছতা ও অনৈতিকতা অবলম্বন করায় দেরিতে হলেও আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ  করেছেন গানটির শিল্পী, ব্যান্ডতারকা-সংগীত গবেষক মাকসুদ।

মাকসুদআর এ বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেছেন নিজের ফেসবুক পেজের পোস্টের মাধ্যমে। সেখানে তিনি জানান, ‘মেলায় যাইরে’ গানটির আইনানুগ কপিরাইটের সম্পূর্ণ অধিকারী আমি মাকসুদুল হক। বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই কথাটা আরও স্পষ্ট ভাষায় জানানো যাচ্ছে যে, ‘পহেলা বৈশাখ’ উদযাপনকালে কেউ যদি উক্ত গান কোথাও ব্যবহার করতে চান বা গানের অংশবিশেষ ব্যবহার করতে চান বা গানটির পুনর্নির্মাণ করতে চান অথবা গানটির দৃশ্য রূপায়ণ করতে চান কোনো প্রচারমাধ্যমে- সেক্ষেত্রে আমার সঙ্গে সরাসরি সংযোগের জন্য অনুরোধ করা গেল। এই গানের কপিরাইট আমি মাকসুদুল হক ছাড়া আর কারও অধিকারে নেই। এই তথ্যটা সবাইকে জানানো হলো।

গানটি পুনর্নির্মাণের ক্ষেত্রে কী ধরনের শর্ত রয়েছে- এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এ বিষয়টি এখন আমার আইনজীবির সঙ্গে আলাপ করে বিস্তারিত জেনে নিতে হবে। এ কারণেই আইনী ব্যবস্থা নেওয়া। তাই এ বিষয়ে জানতে চাইলে, যে কাউকেই আমার আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করছি।

১৯৯০ সালে ফিডব্যাক ব্যান্ডের ‘মেলা’ অ্যালবামের গান ‘মেলায় যাই রে’। পূর্বের ফিডব্যাক আর বর্তমান ঢাকা ব্যান্ডের তারকা মাকসুদের কথা, সুর ও কণ্ঠে এখন পর্যন্ত পহেলা বৈশাখের সর্বোচ্চ জনপ্রিয় গান এটি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৩ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০২০
ওএফবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সংগীত
ছিন্নমূল মানুষকে একবেলা খাবার দেবে ডিএমপি
টিভিতে ‘আমার ঘরে আমার ক্লাস’ ক্লাশ শুরু সকাল ৯টায়
ভূতুড়ে নগরী ঢাকা
সংকট মোকাবিলায় জনগণ জাতীয় ঐক্য স্থাপন করেছে: জেএসডি
নারায়ণগঞ্জে পর্যাপ্ত পিপিই মজুদ আছে: ডিসি


বগুড়ায় দিনমজুরদের খাদ্যসামগ্রী দিলেন আ’লীগ নেতা রনি
বগুড়ায় হোম কোয়ারেন্টিনে ৭৫২, ছাড়পত্র পেয়েছে ১৬১ জন
করোনা ইউনিটে নেয়ার পরেই রোগীর মৃত্যু
করোনা: একদিনের বেতন দান করল আইইউবিএটি
স্বাস্থ্যকর্মী-সাংবাদিকদের পিপিই দিবে ‘স্নোটেক্স’