php glass

বন্ধুকে স্বামী হিসেবে পাওয়াটা আশীর্বাদ: সাবিলা নূর

মো. জহিরুল ইসলাম মোহসান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সানিলা নূর ও নেহাল সুনন্দ তাহের

walton

চলতি বছরের শুরুতে হঠাৎ করে ছোট পর্দার অভিনেত্রী সাবিলা নূরের বিয়ের গুঞ্জন ছড়িয়েছিল। কিন্তু তখন বিয়ের খবরটি উড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনি। তবে এবার বছরের শেষ দিকে এসে বিয়ের পিঁড়িতে বসার বিষয়টি নিজেই নিশ্চিত করেছেন আলোচিত এ তারকা।

প্রেমিক নেহাল সুনন্দ তাহেরের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন সাবিলা। তার হবু বর পেশায় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এসএ টিভির ব্রডকাস্ট প্রকৌশলী। ২৫ অক্টোবর রাজধানীর একটি পার্টি সেন্টারে জাঁকালো আয়োজনে হতে যাচ্ছে তাদের বিয়ে।

নেহাল ও বিয়ের নানাদিক নিয়ে বাংলানিউজের সঙ্গে আলাপ করেছেন সাবিলা নূর-

বাংলানিউজ: বিয়ের প্রস্তুতি কেমন চলছে?
সাবিলা নূর:
২৪ অক্টোবর আমাদের হলুদ, ২৫ অক্টোবর বিয়ের অনুষ্ঠান ও ২৭ অক্টোবর বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকার আলাদা তিনটি স্থানে অনুষ্ঠানের ভেনু আগে থেকেই নির্ধারণ করা হয়েছে। ডেকোরেশন, ফটোগ্রাফারসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক বিষয়গুলোও ঠিক করে ফেলেছি। এখন বিয়ের নিমন্ত্রণপত্র দেওয়া ও টুকটাক ছোটছোট বিষয়গুলো গোছাচ্ছি। বলা যায় খুব ব্যস্ত সময় যাচ্ছে।  

বাংলানিউজ: নেহালের সঙ্গে আপনার পরিচয় কীভাবে?
সাবিলা নূর:
ও আসলে আমার বন্ধু অভিনেতা তৌসিফ মাহবুবের বন্ধু। সেখান থেকে আমাদের দু’জনের পরিচয়, বন্ধুত্ব ও প্রেম। এখন সেটা বিয়েতে গড়াচ্ছে।

সানিলা নূর ও নেহাল সুনন্দ তাহের

বাংলানিউজ: আপনাদের প্রেমের সম্পর্ক কত দিনের?
সাবিলা নূর:
নেহাল আর আমার তিন বছরের বন্ধুত্ব। কিন্তু যদি প্রেমের সম্পর্কের কথা বলেন, সেটা এক বছরের। আমাদের মধ্যে বোঝাপড়ার বিষয়টা অনেক ভালো। কারণ ও আগে থেকেই আমার বন্ধু। আসলে আমি মনে করি বন্ধুকে স্বামী হিসেবে পাওয়াটা আমার জন্য আশীর্বাদ। এজন্য নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে করছি। আমাদের মধ্যে কোনো দূরত্ব নেই। তাছাড়া একে অপরের সব বিষয় ভালোভাবে বোঝা যায় ও যেকোনো বিষয় নির্দ্বিধায় শেয়ারও করা যায়।

বাংলানিউজ: নেহাল সম্পর্কে বলুন।
সাবিলা নূর: 
ওর গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর। বাংলাদেশ বেতারের সাবেক উপ-মহাপরিচালক মরহুম আবু তাহেরে একমাত্র ছেলে সে। আমার হবু শাশুড়ি মাইলস্টোন স্কুল অ্যান্ড কলেজের কো-অর্ডিনেটরের দায়িত্বে আছেন। ওরা এক ভাই ও এক বোন।

বাংলানিউজ: ব্যক্তি হিসেবে কেমন সে?
সাবিলা নূর:
 ঠাণ্ডা প্রকৃতির মানুষ নেহাল। সবার সঙ্গে খুব ভালোভাবে মিশতে পারে। খুব বন্ধুবৎসল এবং ভালো একজন মানুষ।

বাংলানিউজ: বিয়ের কেনাকাটা করেছেন কোথা থেকে?
সাবিলা নূর:
সব মেয়েই চায় তাকে বধূ বেশে সবচেয়ে সুন্দর দেখাক, আমিও চাই। তাই বিয়ের কেনাকাটা নিজেই করছি। ঢাকা ও কলকাতা দুই জায়গা থেকেই কেনাকাটা করা হয়েছে। তাছাড়া অনুষ্ঠানে মেকআপ কোথা থেকে করাবো, তাও ঠিক করে রেখেছি।

বাংলানিউজ: বছর শুরুতে আপনার বিয়ের গুঞ্জন ছড়িয়েছিল। কিন্তু তখন আপনি এ খবরে বেশ বিব্রত ছিলেন...
সাবিলা নূর:
তিন মাস আগে আমাদের পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হয়েছে। কিন্তু সে খবরটা ছড়িয়েছিল ছয় মাস আগে। যখন আমার বিয়ের কোনো কিছুই চূড়ান্ত ছিল না। আর এখন তো সবাই সব জানছেন।

সাবিলা নূর

বাংলানিউজ: মধুচন্দ্রিমার পরিকল্পনা কী?
সাবিলা নূর:
এখনো আসলে এটা পুরোপুরি ঠিক করিনি। তবে গ্রিস অথবা মরিশাসে আমাদের যাওয়ার ইচ্ছে আছে। বাকিটা দেখা যাক।

বাংলানিউজ: অনেক অভিনেত্রীকে দেখা যায় বিয়ের পর ডুব দিতে, আপনার পরিকল্পনা কী?
সাবিলা নূর:
এখন আপাতত বিয়ের প্রস্তুতিতে সময় যাচ্ছে। নভেম্বর থেকেই আবার কাজ শুরু করবো। আসলে সংসার, কাজ ও পড়াশোনা সবই করতে হবে। তাছাড়া আমি সেভাবে লাগাতার কাজও কখনো করি না। ভালো স্ক্রিপ্ট ও পছন্দের নির্মাতাদের কাজ নিয়মিতই করবো। আশা করছি সংসার, কাজ ও পড়াশোনা একসঙ্গে চালিয়ে যেতে পারবো।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৯
জেআইএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: নাটক
মূল্যের কারসাজির সঙ্গে জড়িত হোতাদের গ্রেফতারের দাবি
নিরাপত্তার কারণে ইডেনে প্যারাট্রুপারদের শো বাতিল
সাভারে একাধিক মামলার আসামি গ্রেফতার
নতুন পেঁয়াজ বাজারে, তবু দাম বাড়াতে ব্যস্ত ব্যবসায়ীরা
ইডিইউতে আগামীর ইঞ্জিনিয়ারদের মেধার লড়াই


কাজিপুরে মদপানে ২ যুবকের মৃত্যু
সাতক্ষীরা সীমান্তে সাড়ে ৪০০ ভরি স্বর্ণ জব্দ
কলা বিক্রেতা লিয়াকত পেলেন ভ্যান
জাতিসংঘে পাটসহ প্রাকৃতিক তন্তু নিয়ে রেজ্যুলেশন গৃহীত
বিমানবন্দরে দেড় কোটি টাকার সিগারেট জব্দ