php glass

ফাঁসির শুটিংয়ে লোক ডেকে নিজের হাত-পা বাঁধান সালমান শাহ

মো. জহিরুল ইসলাম, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

‘সত্যের মৃত্যু নেই’র পোস্টার ও ছটকু আহমেদের সঙ্গে সালমান শাহ

walton

‘ফাঁসির মঞ্চে সালমান শাহ ওঠার পর তার মাথায় আমি কালো কাপড় পরিয়ে দেই। কিন্তু সালমান তখন শট দিতে রাজি হয় না। আমাকে ডেকে বলে, আমার হাত-পা বেঁধে দিন; না হলে তো শটটা পারফেক্ট হবে না। আমি তখন বললাম, হাত-পা বেঁধে গলায় দড়ি লাগালে যেকোনো দুর্ঘটনা হতে পারে। তার চেয়ে ভালো হয় তুমি হাত পেছনে রাখো-সেটা ক্যামেরায় দেখা যাবে না। কিন্তু সে কিছুতেই রাজি হলো না, নিজেই মানুষ ডেকে হাত-পা বাঁধিয়ে শট দিলো।’

ক্ষণজন্মা চিত্রনায়ক সালমান শাহর ‘সত্যের মৃত্যু নেই’ সিনেমার ফাঁসির মঞ্চের শুটিংয়ের সময়কার একটি ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কথাগুলো বললেন পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার ছটকু আহমেদ। 

তিনি বলেন, ‘সালমান শাহ অসম্ভব রকমের শক্তিশালী একজন অভিনেতা ছিল। নিজের প্রতিটি চরিত্র সে শতভাগ পারফেক্ট করে করার চেষ্টা করত। ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালে একেবারে চরিত্রে ঢুকে যেত। এমন অভিনেতা খুব কম আসে।’

ছটকু আহমেদের লেখা ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ ছিল সালমান-শাবনুর জুটির প্রথম সিনেমা। তার পরিচালনায় ‘বুকের ভেতর আগুন’ সিনেমাতেও সালমান অভিনয় করেছিলেন। তবে সিনেমাটির ৩০ শতাংশ শুটিং বাকি থাকতেই পৃথিবী থেকে বিদায় নেন এই মেধাবী অভিনেতা।

‘সেদিন আমি টিভির সামনে বসে ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচ দেখছিলাম। আমার এক প্রযোজক বন্ধু কল দিয়ে সালমানের চলে যাওয়ার খবর দেয়। আমি প্রথমে বিশ্বাস করতে পারিনি। কারণ সালমানের মৃত্যুর খবর শোনার জন্য আমি একেবারে প্রস্তুত ছিলাম না। এমন গুণী একজন অভিনেতা এতো দ্রুত চলে যাবে? সেটা কোনোভাবেই মানতে পারছিলাম না। ‘বুকের ভেতর আগুন’ সিনেমার শুটিং বাকি ছিল। সিনেমাটির প্রযোজক ছিল আমার স্ত্রী মাসরুরাহ আহমেদ এপি। পরে ফেরদৌসকে দিয়ে সিনেমাটি শেষ করি’, যোগ করেন ছটকু আহমেদ।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর সালমান শাহ মৃত্যুবরণ করেন। ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৬ সাল, মাত্র তিন বছরে তিনি অভিনয় করেছেন ২৭টি সিনেমায়। প্রায় বেশিরভাগ সিনেমাই ব্যবসায়ীক সাফল্য পায়। ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ সিনেমার মাধ্যমে ঢালিউডে পা রেখেছিলেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৯
জেআইএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সিনেমা
ksrm
ডিজিটাল সেবা চালু করছে কোটস
দীপন হত্যা: অভিযোগ গঠন শুনানি ফের পেছালো
বিকাশের সহায়তায় বগুড়ার ৪ স্কুলে বই পড়া কর্মসূচি চালু 
বন্দরকেন্দ্রিক যানজট, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ বন্ধ
রোহিঙ্গাদের ফেরাতে নিউজিল্যান্ডকে সহযোগিতার আহ্বান 


১৫ লাখ টাকার নকল তার জব্দ, ৪ জনের কারাদণ্ড
বিমানে যাত্রীদের আস্থা ফেরাতে সততার সঙ্গে কাজের নির্দেশ
সিনিয়র সচিব পাওয়াটা ইসির বড় অর্জন: সিইসি
গৌরনদীতে বিদেশি মদসহ আটক ২
৩০ বছরের শিকলবন্দি জীবন থেকে মুক্তি পেলেন রতন