সেপ্টেম্বরে ‘অপারেশন জ্যাকপট’র মহরত

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গিয়াস উদ্দিন সেলিম

মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক ঘটনাকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে মহান মুক্তিযুদ্ধের নৌকমান্ডোদের অভিযান ‘অপারেশন জ্যাকপট’ নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ।

ঐতিহাসিক ঘটনার এই সিনেমাটি পরিচালনা করবেন ‘স্বপ্নজাল’খ্যাত নির্মাতা গিয়াস উদ্দিন সেলিম। এরই মধ্যে সিনেমাটি নির্মাণের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে।

আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ‘অপারেশন জ্যাকপট’র মহরত।

রোববার (৫ আগস্ট) নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ‘অপারেশন জ্যাকপট’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠানের প্রস্তুতিমূলক সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবদুস সামাদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রশাসন) মো. জাফর আলম ও সিনেমাটির পরিচালক গিয়াসউদ্দিন সেলিম।

‘অপারেশন জ্যাকপট’ অভিযানের উদ্দেশ্য ছিল দেশের সমুদ্র ও নদীবন্দরগুলো অকার্যকর করে দেওয়া। যাতে করে পশ্চিম পাকিস্তানীরা সমুদ্র ও নৌপথ ব্যবহার করে বাংলাদেশে (তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান) সহজে আক্রমণ করতে না পারে।

মুক্তিযুদ্ধে নৌকমান্ডোরা স্বাধীন বাংলা বেতারে প্রচারিত গানের সংকেত পেয়ে ১৯৭১ সালের ১৪ আগস্ট দিবাগত রাতে একই সঙ্গে চট্টগ্রাম-মোংলা সমুদ্র বন্দর এবং নারায়ণগঞ্জ-চাঁদপুর নদী বন্দরে আক্রমণ করেন। এ অভিযানের ফলে পশ্চিম পাকিস্তানীরা হতভম্ব হয়ে পড়ে। মুক্তিযুদ্ধের গতি বৃদ্ধি পায়।

‘অপারেশন জ্যাকপট’ সিনেমাটিতে কে কে অভিনয় করবেন তা এখনও জানা যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪০ ঘণ্টা, আগস্ট ০৫, ২০১৮
জেআইএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ঢালিউড
আ’লীগের মনোনয়নপত্র জমা দিলেন অপু বিশ্বাস
হলি আর্টিজান মামলার আসামি রিপন ৫দিনের রিমান্ডে 
সংস্কৃতি, সমাজকল্যাণ ও টেলিযোগাযোগে নতুন সচিব
হবিগঞ্জে জিকে গউছসহ বিএনপির ৪৮ নেতাকর্মীর জামিন
‘আতাউস সামাদ ছিলেন ভিন্ন উচ্চতার মানুষ’
দ্বি-পক্ষীয় সম্পর্ক শক্তিশালী করতে প্রস্তুত সিঙ্গাপুর 
নীলফামারীতে শতবর্ষী গাছ রক্ষার দাবি
কসবা সীমান্তে আসা রোহিঙ্গাদের নিয়ে এখনও জটিলতা কাটেনি
পুরো সিস্টেমকে অটোমেশনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে
ধোনি-গিলক্রিস্টে অনুপ্রাণিত উইকেটরক্ষক সোহান