ঢাকাসহ সারাবিশ্ব কাঁপাবে সুইসাইড স্কোয়াডের সুপারভিলেনরা!

জনি হক, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সুপারহিরোদের সঙ্গে লড়াইয়ে সুপারভিলেনরা শেষে পরাস্ত হন সত্যি, কিন্তু সব ছবিজুড়েই থাকে সুপারভিলেনদের দৌরাত্ম্য। তাই বলা যায় ভালোর চেয়ে শক্তিশালী মন্দ! অ্যান্টিহিরোরাও হিরোদের চেয়ে জনপ্রিয়। 

সুপারহিরোদের সঙ্গে লড়াইয়ে সুপারভিলেনরা শেষে পরাস্ত হন সত্যি, কিন্তু সব ছবিজুড়েই থাকে সুপারভিলেনদের দৌরাত্ম্য। তাই বলা যায় ভালোর চেয়ে শক্তিশালী মন্দ! অ্যান্টিহিরোরাও হিরোদের চেয়ে জনপ্রিয়। খারাপ লোকগুলোরই ভক্ত বরং বেশি! এখানেই হিরোর সঙ্গে অ্যান্টিহিরোর টক্কর। মার্ভেল সুপারহিরোদের আঁতুড়ঘর ডিসি কমিকসের সুপারভিলেনরা এবার জোট বেঁধেছে। 

কমিকসের সব সুপারহিরোরা বিভিন্ন ছবিতে একত্র হয়ে বড় পর্দায় এসেছে। এবার ভয়ঙ্কর সব ভিলেন একসঙ্গে আসছে। তবে ধ্বংস বা শত্রুতা নয়, বরং পৃথিবীকে বাঁচানোই তাদের লক্ষ্য। সুপারভিলেনদের দল বলে এর নাম আত্মঘাতী স্কোয়াড! অর্থাৎ ‘সুইসাইড স্কোয়াড’। 

ডেভিড আইয়ার পরিচালিত ‘সুইসাইড স্কোয়াড’ হলো ডিসি কমিকসের অ্যান্টিহিরো দলকে নিয়ে নির্মিত আমেরিকান সুপারহিরো ছবি। ২০০৯ সালে এটি নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়। দুই বছর আগে দায়িত্ব পান ডেভিড। গত বছরের এপ্রিলে ছবিটির চিত্রায়ন শুরু হয়। জন ওস্ট্র্যান্ডারের লেখা ‘সুইসাইড স্কোয়াড’ অবলম্বনে লেখা হয়েছে এর চিত্রনাট্য। 

সুইসাইড স্কোয়াড হচ্ছে কারাবন্দি কিছু দুর্ধর্ষ অপরাধীকে মুক্তির লোভ দেখিয়ে গঠন করা একটি দল, যার পরিচালনায় রয়েছে অজ্ঞাত এক সরকারি সংস্থার পরিচালক আমান্ডা ওয়ালার। পৃথিবীকে অজানা এক শক্তিশালী হুমকি থেকে সুরক্ষা করতে সরকারের গুপ্ত সংস্থার প্রধান আমান্ডা ওয়ালার কারারুদ্ধ সুপারভিলেনদেরকে গোপন সামরিক অপারেশন চালানোর দায়িত্ব দেন। বিনিময়ে তাদেরকে ক্ষমা করে দেওয়া হবে। 

ছবিটিতে জোকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন জারেড লেটো। ক্রিস্টোফার নোলানের ‘ব্যাটম্যান’ ট্রিলজির শেষ ছবিতে জোকার হিসেবে প্রয়াত হিথ লেজারের আবেশ থেকে বেরিয়ে আসা সত্যিই মুশকিল। তাকে ছাড়া যেন জোকার ভাবাই যায় না! সুপারহিরো ব্যাটম্যানের চেয়েও যে সুপারভিলেন এতো বিখ্যাত হতে পারে, ভাবা যায়নি আগে। লোকটা ক্রুর, বুদ্ধিমান, শয়তান এবং একই সঙ্গে ‘আনপ্রেডিক্টেবল’! হাবভাব, উল্কি, গাড়ি আর অদ্ভুত জামাকাপড় পরা জোকার এখানেও মনে করে সে-ই পৃথিবীর সর্বময় কর্তা! 

কোনো সুপার পাওয়ার না থাকলেও সুইসাইড স্কোয়াডের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হার্লি কুইন। হ্যান্ড টু হ্যান্ড কমব্যাটে তার দক্ষতা অসাধারণ। এ ছাড়া অনেকদিন পয়জন আইভির সঙ্গে কাজ করায় অনেক মারাত্মক বীষ তার কোনো শারীরিক ক্ষতি করতে পারে না। হার্লে কুইন চরিত্রে রয়েছেন অস্ট্রেলীয় অভিনেত্রী মার্গট রোবি। লাল-সাদা পোশাক, সাদা ধবধবে মুখ থেকে শুরু করে হাবভাব- তার সবকিছু নিয়ে মাতোয়ারা কমিকস-ভক্তরা। কারও পরোয়া করে না মেয়েটি। কখনও সে মজার, কখনও ভয়ঙ্কর। সব মিলিয়ে হার্লে কুইন মোটামুটি ফাটিয়ে দিচ্ছে! চরিত্রটি প্রথম দেখা গেছে নব্বই দশকে ডিসি কমিকসের ক্ল্যাসিক কার্টুন ‘ব্যাটম্যান: দ্য অ্যানিমেটেড সিরিজ’-এ। 

ডিসি কমিকসের ভিলেন দুনিয়ায় যথেষ্ট নামকরা ডেডশট চরিত্রে অভিনয় করেছেন উইল স্মিথ। সে-ই স্কোয়াড লিডার। বন্দুকের গুলি অনেকদূর থেকে লক্ষ্যভেদ করার দারুণ ক্ষমতা তার। ‘দ্য ম্যান হু রিপ্লেসড ব্যাটম্যান’ কমিকে প্রথম ফ্লয়েড লটন ওরফে ডেডশটকে পাওয়া যায়। নিজের ভাইকে খুন করার পর সে ভেবেছিলো জীবনটাই বৃথা। বেশ কয়েকবার গুলি খেয়ে প্রায় মরে যেতে বসে ডেডশট। কিন্তু টাস্কফোর্স এক্স-এর আমান্ডা ওয়ালার বাঁচিয়ে দেয় তাকে। ডেডশট লক্ষ্যে স্থির। সে ভীষণভাবে মানুষ। মানে কোনও দৈবশক্তি তার নেই। রিস্ট-মাউন্টেড মেশিন গান এবং অত্যাধুনিক গ্যাজেট তাকে অন্যদের চেয়ে আলাদা করে। একমাত্র সুইসাইড স্কোয়াডেই কাজ করে না সে। অন্য দলেও তার নাম আছে। 

ডিগার হার্কনেস ওরফে ক্যাপ্টেন বুমেরাংকে দু’চোখে দেখতে পারে না ডেডশট। নির্মাতারা বুমেরাংকে বেছেছেন রহস্যময়তার জন্য। ‘টার্মিনেটর জেনিসিস’ তারকা জে কোর্টনি অভিনয় করছেন এই চরিত্রে। বুমেরাং জেলখাটা আসামি। আবার রকস্টারের মতো হাবভাব। 

গায়িকা কারা ডেলেভিন আছেন প্রায় ছয় হাজার বছর বয়সী ডাইনি এনচ্যানট্রেস চরিত্রে। সে জাদু জানে। কুম্ভীর-মানব বা করাল কুম্ভীর কিলার ক্রক লড়াই করে ব্যাটম্যানের সঙ্গে। পেরে ওঠে না যদিও। মল্লযোদ্ধা ক্রক গথাম সিটির সবচেয়ে ভয়ঙ্কর আন্ডারগ্রাউন্ড ‘অ্যাগিলেটর রেসলার’। দুরন্ত গতিসম্পন্ন, দারুণ সাঁতারু তার ভূমিকায় নির্মাতারা নিয়েছেন অ্যাডেওয়েল অ্যাকিনুওয়ি-অ্যাগবাগেকে। 

সুইসাইড স্কোয়াডে সবাইকে নিযুক্ত করা আমান্ডা ওয়ালার কেমন? তিনিই সুপারভিলেনদেরকে লোভ দেখান মুক্তির। তার চিরশত্রু ব্যাটম্যান। ডাকনাম দ্য ওয়াল। সারাদুনিয়া ওয়ালের হাতের মুঠোয়। সবাই ওয়ালের ভয়ে কম্পমান। গথাম সিটির মধ্যে গুপ্তচরবৃত্তি হোক কিংবা রাজনীতির কলকাঠি নাড়া- সবই করে থাকে ওয়াল। ভিলেন-কুলে রীতিমতো বস সে। মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেত্রী ভায়োলা ডেভিস আছেন এই চরিত্রে। 

অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন জোয়েল কিনাম্যান, জে হার্নান্দেজ, স্কট ইস্টউড-সহ অনেকে। ২ ঘণ্টা ৩ মিনিট ব্যাপ্তির ‘সুইসাইড স্কোয়াড’ আগামী ৫ আগস্ট মুক্তি দেবে ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স। একই দিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশেও মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য এটি নিয়ে এসেছে স্টার সিনেপ্লেক্স।

হলিউডে এ বছরের সবচেয়ে আলোচিত ছবির মধ্যে ‘সুইসাইড স্কোয়াড’ অন্যতম। আশা করা হচ্ছে, ব্যবসার দিক দিয়ে সারাবিশ্ব কাঁপিয়ে দেবে সুপারভিলেনরা! মার্কিন তারকা উইল স্মিথ তো বলেই রেখেছেন, ‘মন্দ হওয়া যে মাঝে মধ্যে মন্দ নয়, সুপারভিলেনরাই দর্শকদের সেই স্বাদ দেবে!’ 

* ‘সুইসাইড স্কোয়াড’ ছবির ট্রেলার :

বাংলাদেশ সময়: ২০১৯ ঘণ্টা, আগস্ট ০৩, ২০১৬
জেএইচ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় দিবস সোমবার
সিলেটে ২ ট্রাকের সংঘর্ষে প্রাণ গেলো অটোরিকশা চালকের
লেবার পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সোমবার
ডিমলার ৩ ইউপিতে চেয়ারম্যান হলেন মইনুল-রবিউল-সামসুল
ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে কুড়িগ্রামেও মামলা
এবার খাশোগির পরিবারের প্রতি সৌদি কিংয়ের সমবেদনা
২৯ ব্যাংকের ঋণের সুদ ১০ শতাংশের বেশি
ক্যাচ মিসেই জিম্বাবুয়ের হার
আক্ষেপ করে মাহাথির বললেন, পদত্যাগ করে ফেলতে পারি
চালকের ভুলে পাম্পে আগুন!