ঢাকা, শনিবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫ রজব ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

পরশুরাম পৌরনির্বাচন

খালি মাঠে সাজেলের গোল!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০২১
খালি মাঠে সাজেলের গোল!

ফেনী: ফেনীর পরশুরাম পৌরনির্বাচনে বিএনপিসহ অন্য কোনো দলের কোনো প্রার্থী অংশ না নেওয়ায় আওয়ামীলীগ সমর্থিত পৌরমেয়র নিজাম উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী সাজেলসহ ৯টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।  

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন রোববার (১৭ জানুয়ারি) পরশুরাম উপজেলা বিএনপি ফেনীতে সাংবাদিক সম্মেলন করে পৌরনির্বাচন অংশ না নিয়ে এ নির্বাচনকে বয়কটের ঘোষণা দিয়েছেন।

 

দলের পরশুরাম উপজেলা আহ্বায়ক আবদুল হালিম মানিক ও সদস্য সচিব ইব্রাহীম খলিল মনি স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে তারা জানান, বর্তমানে পরশুরাম উপজেলা একটি সন্ত্রাসী উপজেলা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলরদের বাড়িতে ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলাসহ বার বার হুমকি দিয়ে আসছে। এমন পরিস্থিতিতে নির্বাচনের কোনো পরিবেশ না থাকায় দলীয় ঊর্ধ্বতন নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ ক্রমে আমরা এ পৌরসভা নির্বাচন বয়কটের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।  

বিএনপির বয়কটের ঘোষণায় খালি মাঠেই গোল দিতে যাচ্ছেন নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সাজেল। পর পর তিন বার নির্বাচিত হয়ে মেয়র পদে হ্যাটট্রিকও করতে যাচ্ছেন তিনি।

পরশুরাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ও ফেনী জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন পাটোয়ারী কাছ থেকে জানা গেছে মেয়রসহ সবকটি ওয়ার্ডে একক প্রার্থী মনোয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।  

অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় মেয়র পদে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র নিজাম উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী সাজেল পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। সাজেল চৌধুরী এর আগেও দুইবার মেয়র নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও ৯টি ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে একক প্রার্থী হওয়ায় সব ওয়ার্ডেই বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।  

এছাড়াও এক নম্বর ওয়ার্ডে আবদুল মান্নান লিটন, ২ নম্বর ওয়ার্ডে খুরশিদ আলম, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আবু তাহের (বাঘা মেম্বার) ৪ নম্বর ওয়ার্ডে আবদুল মান্নান , ৫ নম্বর ওয়ার্ডে এনামুল হক এনাম, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে কামাল উদ্দিন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুমন, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে রাসুল আহাম্মেদ মজুমদার স্বপন, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে আবু শাহাদাত চৌধুরী লিটন, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ১,২,৩ নম্বর ওয়ার্ডে আফরোজা আক্তার ৪,৫,৬, নম্বর ওয়ার্ডে রাহেলা আক্তার ৭,৮, ৯ ওয়ার্ডে হালিমা আক্তার একক প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। মেয়র ও কাউন্সিলর পদে অন্যকোনো প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দেননি।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১৭ জানুয়ারি, বাচাই ১৯ জানুয়ারি, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৬ জানুয়ারি নির্ধারিত আছে।    

পরশুরাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটানিং অফিসার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, সবকটি পদেই একক প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে নির্বাচন কার্যালয়সহ নির্বাচনী এলাকায় আইন-শৃংখলা শান্তিপূর্ণ ছিল। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি এবং কি কোথাও কোনো ধরনের অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০২১
এসএইচডি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa