পাবনার ৭ উপজেলায় চেয়ারম্যান হলেন যারা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

walton

পাবনা: পাবনার সাতটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে চারটিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও তিনটিতে বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

php glass

এর আগে দুই উপজেলায় নৌকার প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন। 

ঈশ্বরদী উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুরুজ্জামান বিশ্বাস (নৌকা) প্রতীকে ৪১ হাজার ৮০৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মকলেছুর রহমান মিন্টু স্বতন্ত্র (আনারস) প্রতীকে পেয়েছেন ১৮ হাজার ৮৬৬ ভোট।

আটঘরিয়া চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক উপ-সম্পাদক তানভীর ইসলাম (মোটরসাইকেল) প্রতীকে ২৭ হাজার ১০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইশারত আলী স্বতন্ত্র (আনারস) প্রতীকে পেয়েছেন ১৬ হাজার ৭৬৮ ভোট। 

চাটমোহর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হামিদ মাস্টার ৪২ হাজার ৮০৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন সাখো পেয়েছেন ৩৮ হাজার ১১০ ভোট।
 
ভাঙ্গুড়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. বাকি বিল্লাহ ৩৫ হাজার ৩৪৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাপা (এ) প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মন্টু (লাঙ্গল) প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৩৫০ ভোট।

ফরিদপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য গোলাম হোসেন গোলাপ (আনারস) প্রতীকে ২৫ হাজার ৭৮০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খলিলুর রহমান (নৌকা) পেয়েছেন ১৪ হাজার ৫৯ ভোট।

সাঁথিয়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী সাঁথিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ার ৪৭ হাজার ৮২৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু তালেব প্রামাণিক স্বতন্ত্র (ঘোড়া) প্রতীকে পেয়েছেন ১০ হাজার ৫৭৩ ভোট। 

বেড়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের (নৌকা) প্রতীকে ৩৪ হাজার ৬২৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন (আনারস) প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ২৪০ ভোট।

অপরদিকে, পাবনা সদর উপজেলায় সবগুলো পদে একজন করে প্রার্থী থাকায় তারা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তারা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন, বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান শাওয়াল বিশ্বাস ও বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামসুন্নাহার রেখা।

সুজানগর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীনুজ্জামান শাহীন (নৌকা)। ভোট হয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান পদে। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে জিয়াউর রহমান কল্লোল (মাইক) ১৯ হাজার ২১২ ভোট বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জালাল উদ্দিন (চশমা) পেয়েছেন ১১ হাজার ৩৪৫ ভোট। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মর্জিনা খাতুন (কলস) ২২ হাজার ৭৫৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রাবেয়া বেগম (ফুটবল) পেয়েছেন ৫ হাজার ৮৫১ ভোট।

বাংলাদেশ সময়: ০৩২০ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০১৯
আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: পাবনা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন
বাগেরহাটবাসীকে শিক্ষিত, মার্জিত, মেধাবী ও দক্ষ হতে হবে
তাপদাহে ওষ্ঠাগত রাজশাহীর জনজীবন
চবির সাবেক শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী ১৮ নভেম্বর
শাহবাগে চাকরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে সমাবেশ, আটক ৭
আদিতমারীতে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার 


টাঙ্গাইলে ভুয়া চিকিৎসকের কারাদণ্ড
অনশনরত রোহিঙ্গাদের নির্যাতন করছে সৌদি আরব!
উন্নয়‌নের অগ্রযাত্রা ধরে রাখ‌তে শেখ হা‌সিনার বিকল্প নেই
গাজীপুরে অটো‌রিকশা-কভার্ডভ্যানের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫
বিদেশে নেওয়ার আশ্বাসে ৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেন তারা