ঝালকাঠির ২টি আসনে জাপার একক প্রার্থী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাতীয় পার্টির এম এ কুদ্দুস খান

walton

ঝালকাঠি: ঝালকাঠি জেলার ২টি আসনেই জাতীয় পার্টির এম এ কুদ্দুস খান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। দু'টি আসনেই চূড়ান্তভাবে তার মনোনয়ন বৈধ হওয়ার পাশাপাশি দল থেকেও তাকে দেয়া হয়েছে গ্রিনসিগন্যাল।

ফলে মহাজোটের হয়ে ঝালকাঠি-১ আসনে আওয়ামী লীগের সাংসদ ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এবং ঝালকাঠি-১ আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য বজলুর হক হারুনের সঙ্গে মাঠে আছেন প্রধান শরিক জাতীয় পার্টির এম এ কুদ্দুস খান।

ঝালকাঠি-২ (সদর) আসনের গাভার রমজানকাঠী এলাকার বাসিন্দা এম এ কুদ্দুস খান এসএসসি পাস।

হলফনামা অনুযায়ী, তার বিরুদ্ধে আগে ও বর্তমানে কোনো মামলা নেই। পেশায় একজন ব্যবসায়ী হিসেবে বছরে তার আয় ১২ লাখ ৭৪ হাজার ৯০৯ টাকা। অস্থাবরে তার রয়েছে ৯১ লাখ ৮৭ হাজার টাকার সম্পদ।

এদিকে রোববার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে ঝালকাঠি জেলার ২টি সংসদীয় আসনে ১৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ৪ জন তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন।
 
এদের মধ্যে বিএনপি ঝালকাঠি-১ আসনে মুহাম্মদ শাহজাহান ওমর ও ঝালকাঠি-২ আসনে জেবা আমিনা খানকে একক প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেয়ায় দলের অপর ২ প্রার্থী রফিকুল ইসলাম জামাল ও ইসরাত সুলতান ইলেন মনোনয়ন সংয়ক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যায়।

এছাড়া ঝালকাঠি-১ আসনে ওয়াকার্স পার্টির আবুল হোসাইন ও জাতীয় পার্টি- (জেপি) রুবেল হাওলাদার রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর লিখিত আবেদনের মাধ্যমে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেয়।

রোববার সন্ধ্যায় জেলা রিটানিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক হামিদুল হক প্রত্যাহার করা প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৬৪২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৮
এমএস/এসএইচ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
আনোয়ারা রাব্বীর মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক
পালানোর চেষ্টা করোনা রোগীর, ধরে হাসপাতালে পাঠালো পুলিশ
মঠবাড়িয়ায় তরুণীকে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় যুবক গ্রেফতার
ঈদের দিনেও বিষোদগারের রাজনীতি থেকে বের হয়নি বিএনপি
ঈদেও থেমে নেই সিএমপির সদস্যরা


প্রকৌশলী দেলোয়ারের হত্যাকারীদের বিচার চায় টিআইবি
ভোলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৩
বরগুনায় প্রকাশ্যে পিটিয়ে কিশোর হত্যা
'শহরতলী চুপ' ও 'মেঘ বালিকা' নিয়ে ঈদে সমরজিৎ
বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুর মৃত্যু