সোহেল রানাসহ প্রার্থিতা ফিরে পেলেন ২১ জন, বাদ ১৯

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নির্বাচন কমিশনের এজলাশ কক্ষ

walton

ঢাকা: জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চিত্রনায়ক মাসুদ পারভেজ (সোহেল রানা) আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। গত ২ ডিসেম্বর বরিশাল-২ আসনে তার মনোনয়নপত্র বিল খেলাপের কারণ দেখিয়ে বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

প্রার্থিতা পেতে আপিল আবেদন করলে শুক্রবার তার আবেদন মঞ্জুর করে নির্বাচন কমিশন। দ্বিতীয় দিনের শুনানিতে এ পর্যন্ত অন্তত ২১ জনের আপিল আবেদন মঞ্জুর করেছে ইসি। আর নামঞ্জুর করেছে অন্তত ১৯ প্রার্থির আবেদন।

আপিল আবেদন নামঞ্জুর হওয়া প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছে- কুমিল্লা-১ আসনের মো. আলতাফ হোসাইন, চট্টগ্রাম-৬ আসনের সামির কাদের চৌধুরী, ফেনী-৩ আসনের মো. আবদুল লতিফজান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের মো. শাহজাহান, কুমিল্লা-২ আসনের মো. আব্দুল মজিদ, বরিশাল-৬ আসনের ওসমান হোসেইন, পিরোজপুর-৩ আসনের ডা. সুধীর রঞ্জন বিশ্বাস, ঝালকাঠি-১ আসনের মো. মনিরুজ্জামান, পটুয়াখালী-১ আসনের এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার ও পটুয়াখালী-২ আসনের মোহাম্মদ মিজানুর রহমান খান।      

আর আবেদন মঞ্জুর হওয়ায় প্রার্থিতা ফিরে পাওয়াদের মধ্যে রয়েছে-ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ আসনের মোহাম্মদ জিয়া উদ্দিন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ আসনের মো. মুসলিম উদ্দিন, চট্টগ্রাম-৮ আসনের হাসান মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৭ আসনের মো. আবু আহমেদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের মো. গিয়াস উদ্দিন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ আসনের আবদুল খালেক, কুমিল্লা-১০ আসনের মো. শাহজাহান মজুমদার, চাঁদপুর-৫ আসনের খোরশেদ আলম খুশু, বরিশাল-২ আসনের একে ফাইয়াজুল হক, পটুয়াখালী-১ আসনের মো. আবদুর রশিদ, বরিশাল-১ আসনের মো. বাদশা মিয়া, বরগুনা-১ আসনের মো. মতিয়ার রহমান তালুকদার, ভোলা-১ আসনের গোলাম নবী আলমগীর, বরিশাল-২ আসনের মাসুদ পারভেজ ও ঝালকাঠি-১ আসনের বজলুল হক হারুণ (তার মনোনয়ন বাতিল করতে আপিল করা হয়। শুনানিতে সেই আপিল খারিজ হয়ে যায়)।
 
স্থগিত আপিল আবেদনের মধ্যে রয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ এর মো. মেহেদী হাসান ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের মো. ছাইফুল্লাহ (হুমায়ুন মিয়া)।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা, কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম শুনানি করছেন।

শুনানির দ্বিতীয় দিনে ১৫০ জনের শুনানি হচ্ছে। প্রথম দিন বুধবার ১৬০ জনের শুনানিতে ৮০ জন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। ৭৬ জনের আবেদন নামঞ্জুর হয়েছে। ৪ জনের আবেদন স্থগিত রয়েছে।

২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে ২ হাজার ২৭৯টি মনোনয়নপত্র বৈধ ও ৭৮৬টি অবৈধ বলে ঘোষণা করেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এগুলোর মধ্যে বিএনপির ১৪১টি, আ’লীগের ৩টি এবং জাতীয় পার্টির ৩৮টি মনোনয়নপত্রও বাতিল হয়। স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে ৩৮৪টি।

৩৯টি দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলে এবার  ৩০৬৫টি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিল। এর মধ্যে দলীয় মনোনয়নপত্র জমা পড়ে মোট ২ হাজার ৫৬৭টি ও স্বতন্ত্র ৪৯৮টি।

শুনানি শেষ হবে ৮ ডিসেম্বর। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ। আর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৩০ ডিসেম্বর।

বাংলাদেশ সময়: ১২২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৮
ইইউডি/এমজেএফ

সিটি ব্যাংক প্রোডাক্ট আর সার্ভিসে আনছে প্রযুক্তির ছোঁয়া
প্রধানমন্ত্রীর অনুদান পেলো ৩৯৭টি মসজিদ
সিআরপিকে ১০ কোটি টাকা অনুদান দিলেন প্রধানমন্ত্রী
তামাদির বিষয়ে সুস্পষ্ট নির্দেশনা চেয়ে নোটিশ
বিএনপি নেতার মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক


আইপিএল আয়োজন করতে চায় আরব আমিরাত
চার কার্যদিবস পর সূচক বাড়লো পুঁজিবাজারে
পেশা পরিচালনা করতে পারবেন গাইবান্ধার সেই ১৭ আইনজীবী
করোনায় মারা গেলেন সাংবাদিক মোনায়েম খান
পঞ্চগড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু