ফলাফল যাই হোক না কেন, মেনে নেব: লিটন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন আ'লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। ছবি: বাংলানিউজ

walton

রাজশাহী: রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, আমি অতীতেও বলেছি, এখনো বলছি, নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক না কেন, মেনে নেবো। প্রতিপক্ষ প্রার্থীরও জনগণের রায় মেনে নেওয়ার মানসিকতা থাকতে হবে।

শনিবার (২৮ জুলাই) দুপুরে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিটন বলেন, নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণার প্রথমদিন থেকেই বিএনপি বলে আসছে, নিবার্চন স্বচ্ছ হবে না, সুষ্ঠু নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের স্বদিচ্ছা নেই। এটি বিএনপি বাংলাদেশের সবখানেই বলে, যেকোনো নির্বাচন এলেই তারা এসব বলে। গত ১০ বছর ধরে শুনতে শুনতে কান ঝালাপালা হয়ে গেছে। তাদের এসব কথায় রাজশাহীর মানুষও বিরক্ত হয়ে গেছে। খেলতে নেমেই তারা বলছে, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নাই। এটি বলা তাদের মুদ্রাদোষে পরিণত হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা দুলু রাজশাহীতে আসার খবরের পরই আমরা আশঙ্কা করছিলাম। তারপর ককটেল হামলার ঘটনা ঘটলো বিএনপির গণসংযোগে। ঘটনাটি নিজেরাই ঘটালো।

বিএনপির মিথ্যাচারের ব্যাপারে লিটন বলেন, আমি মেয়র নির্বাচিত হলে নাকি নদীর ধার ও রেললাইনের বস্তি উচ্ছেদ করবো-এমন মিথ্যাচার করছে বিএনপির প্রার্থী ও সমর্থকরা। যেখানে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা ছিন্নমূল-ভূমিহীন মানুষের জন্য বাড়ি নির্মাণ করে দিচ্ছেন, সেখানে আমরা কেন বস্তিবাসীদের উচ্ছেদ করবো? অতীতেও এমন কিছু করিনি, আগামীতেও করবো না। বরং মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করবো। জনগণের কল্যাণে কাজ করবো। আগামীতে রাজশাহীর আয়তন বাড়ানো হবে। বর্ধিত অংশে যে গ্রামগুলো থাকবে, সেখানকার মানুষও নগর জীবনের সুযোগ-সুবিধা পাবে।

তিনি বলেন, রাজশাহীতে শিল্পায়নের মাধ্যমে এক লাখ ছেলে-মেয়ের চাকরি ব্যবস্থা করতে চাই। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করবো। বাড়ি বাড়ি গ্যাস সংযোগ পৌঁছে যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান হেনার ছেলে লিটন বলেন, আনুষ্ঠানিক প্রচারণার শুরু দিন থেকেই অপপ্রচার ও মিথ্যাচার করে আসছে বিএনপি। যেকোনো নির্বাচনে বিজয়ী হলেই তাদের কাছে নির্বাচন সুষ্ঠু মনে হয়। আর হারলে নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি বলে দাবি করে। এটা বলা তাদের অভ্যাস।

বুলবুলের অপর এক অভিযোগের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তার জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচনে পুলিশকে ব্যবহারের আমাদের প্রয়োজন নেই। কারণ ইতোমধ্যে নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আশা করছি ৩০ জুলাইয়ের নির্বাচনে নৌকারই বিজয় হবে।

লিটন বলেন, বিগত সময়ে গাজীপুর ও খুলনা নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্ট সংকট ছিল। রাজশাহীতে এজেন্ট সংকট আছে। তাদের এজেন্ট সংকটের ফলে তারা বিভিন্নভাবে আমাদের ওপর দোষ চাপাচ্ছে। তবে যতই চেষ্টা করা হোক নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করছি। যত অপপ্রচারই হোক আর যতই অপচেষ্টা চলুক, রাজশাহীর শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট হবে না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঈনুদ্দিন মণ্ডল, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক মীর ইশতিয়াক আহমেদ লিমন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৫ ঘণ্টা, জুলাই ২৮, ২০১৮
এসএস/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: রাজশাহী সিটি করপোরেশন
নারায়ণগঞ্জে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ১৩
থামছে না চাল চুরি, রংপুরে ৯০ বস্তা চালসহ আটক ৩ 
১৪ দিন শেষ হলেও হোম কোয়ারেন্টিনে থাকবেন খালেদা জিয়া
করোনা: ইডিইউর শিক্ষার্থীদের সাড়ে ৩ লাখ টাকা সংগ্রহ
সাভারে এলাকা 'লকডাউন' করলেন চেয়ারম্যান


কমলনগরে রতন চেয়ারম্যানের বিনামূল্যের দোকান!
নুসরাত হত্যাকাণ্ড, এঁকে দিয়েছে প্রতিবাদের ভিন্ন চিত্র
২৯ বছরের ধারাভাষ্য ক্যারিয়ারের ইতি টানতে চলেছেন হোল্ডিং 
বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে ২০০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার
সিরাজগঞ্জে নতুন ৪১ জন কোয়ারেন্টিনে