জীবন গেলেও রাজপথ ছাড়বো না

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন আরিফুল হক চৌধুরী। ছবি: বাংলানিউজ

walton

সিলেট: সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, পূণ্যভূমি সিলেটে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হলে রাজপথ ছাড়বো না। প্রয়োজনে শাহাদাৎ বরণ করবো।   

নির্বাচন যতোই ঘনিয়ে আসছে, ততোই  ‘সাজানো‘ মামলা দিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার বেড়েই চলছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কিছু কর্মকর্তার অতিউৎসাহী কর্মকাণ্ড নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

শুক্রবার (২৭ জুলাই) রাত ১০টায় নগরীর শাহী ঈদগাহস্থ নিজের প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন আরিফ।

আরিফ বলেন, আমি খবর পেয়েছি, নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বেশ কয়েকজন দায়িত্বশীল সিলেটে অবস্থান করছেন। নির্বাচনের আগে তাদের এ ধরনের অবস্থান করা সন্দেহজনক।

নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র দখলের শঙ্কাও প্রকাশ করে আরিফ বলেন, নির্বাচনের দায়িত্ব পালনের জন্য তালিকা করা প্রিজাইডিং অফিসারদের নাম বিশেষ বাহিনী দিয়ে পরিবর্তন করা কিসের আলামত? 

নির্বাচনে পুলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে যেতে দেওয়া নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় তিনি বলেন, ইকান সিলেট। ঢাকা তাকি (থেকে) আইয়া (এসে) ইঞ্জিনিয়ারিং করে লাভ অইতো নায় (হবে না)। ইতা (এসব) সিলটর মানুষ ভালা ফায় না (ভালোবাসে না।  

আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদর উদ্দিন কামরান নিজেদের কর্মী দিয়ে নিজের নির্বাচনী কার্যালয় পুড়িয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন আরিফ।

তিনি বলেন, নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বে থাকা আমার কর্মীদের পরিকল্পিতভাবে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। উদ্বেগের বিষয় হলো, বৃদ্ধ অসুস্থ বিএনপি নেতা এমএ হককেও মামলায় আসামি করা হয়েছে। উনি কি হামলা করতে গিয়েছিলেন? কারাগারে থাকা ছাত্রদল নেতা কাজী মেরাজকেও মামলায় আসামি করা হয়েছে।

প্রশাসনের এসব ‘এক পেশে আচরণ’ বন্ধের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, জনগণ যাকে ভালো মনে করবেন, তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে বদর উদ্দিন কামরানের উদ্দেশে আরিফ বলেন, আপনি যদি সিলেটের প্রতিনিধিত্ব করতে চান, তাহলে এগুলো করে লাভ হবে না। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন হলে জনগণ যদি আপনাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করেন, তাহলে আমরাও আপনাকে সাধুবাদ জানাবো। জনতার রায়কে স্যালুট জানাবো।

আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। নির্বাচনের ফলাফল না আসা পর্যন্ত মাঠ থেকে ফিরে যাবো না। প্রয়োজনে রাজপথে বসে থাকবো। জীবন দেবো। তবুও অন্যায় হতে দেবো না। অন্যায়ের কাছে মাথানত করবো না, যোগ করেন আরিফ।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যতো চেষ্টাই করেন না কেন, আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবো না। সিলেটের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে মাঠে থাকবো।

সংবাদ সম্মেলনে আরিফুল হকের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ, জেলা ও মহানগর বিএনপি এবং এর বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৩৫৯ ঘণ্টা, জুলাই ২৮, ২০১৮
এনইউ/এসআই

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বিএনপি সিলেট সিলেট সিটি নির্বাচন
করোনা সন্দেহে মাদারীপুরে কলেজছাত্র আইসলেশনে
২০ হাজার পরিবারকে চাল-ডাল দেবেন মেয়র লিটন
করোনা আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার চিঠি
প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১০ কোটি টাকা দিচ্ছে বসুন্ধরা গ্রুপ
উল্লাপাড়ায় ৩০ গণপরিবহনকে জরিমানা


গরীব-অসহায়দের বাড়িতে খাদ্য পৌঁছে দিলেন মন্ত্রী শ ম রেজাউল
ডিএনসিসির পরিচ্ছন্নতা-মশক নিধনকর্মীদের গ্লাভস-জুতা বিতরণ
সিলেটে রাস্তার পাশে পড়ে থাকা বিদেশি নাগরিক আইসোলেশনে
বশেফমুবিপ্রবিতে প্রস্তুত হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ 
নওগাঁয় মেয়েকে হত্যার অভিযোগে মা আটক