শেষ সময়ে লিটন-বুলবুলের মুখে প্রতিশ্রুতির ফুলঝুরি

শরীফ সুমন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গণসংযোগ করছেন মেয়র প্রার্থী লিটন ও বুলবুল। ছবি: বাংলানিউজ

walton

রাজশাহী: রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) নির্বাচনের আর তিনদিন বাকি। প্রতীক নিয়ে ১৮ দিনের প্রচারণার ইতি টানতে হবে শনিবার (২৮ জুলাই) মধ্যরাতে। তাই শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় পাঁচ মেয়র প্রার্থী সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ভোটারদের মধ্যে উন্নয়ন-প্রতিশ্রুতির ফুলঝুরি ছড়াচ্ছেন বেশি।

রাসিক নির্বাচনের দিন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অঙ্গীকারও জোরালো হচ্ছে। ভোটারদের হাতে হাতে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে প্রতিশ্রুতিতে ভরা লিফলেট।

শুক্রবার (২৭ জুলাই) এ দুই প্রার্থীকে গণসংযোগের সময় ভোটারদের সঙ্গে দিনব্যাপী কুশল বিনিময়ের মাধ্যমে নিজেদের প্রতি আকৃষ্ট করার চেষ্টা করতে দেখা গেছে।

দুপুরে মহানগরের জাহাজঘাট জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন। নামাজ শেষে জাহাজঘাট, ধরমপুর, খোজাপুর ও তালাইমারী মোড়ে গণসংযোগ করেন। এ সময় তার সঙ্গে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

গণসংযোগকালে খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মেয়র নির্বাচিত হলে তিনি এক লাখ বেকারের কর্মসংস্থান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবেশ ও যোগাযোগসহ রাজশাহীকে বসবাসযোগ্য আধুনিক নগর হিসেবে গড়বেন। নাগরিক সেবা নিশ্চিত করে স্বাস্থ্যসম্মত তিলোত্তমা নগর গড়ার মহাপরিকল্পনা রয়েছে। আগামীতে পাঁচ তারকা হোটেল, ক্রিকেট ভেন্যু, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, হার্ট ফাউন্ডেশনও গড়ে তোলা হবে।  

এছাড়াও বন্ধ থাকা গ্যাস সংযোগ চালু করাসহ ১০০০ শয্যা বিশিষ্ট রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল নির্মাণ, প্রক্রিয়াধীন থাকা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদকে পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় করা, ‘আইটি ভিলেজ’ স্থাপনের পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়ন করা, নতুন করে দু’টি বিশেষ অর্থনৈতিক জোন স্থাপন করা, জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেনেজ প্রকল্প তৃতীয় পর্যায়ের কাজের দ্রুত বাস্তবায়ন করা, নগরে আরও দু’টি আবাসিক এলাকা তৈরি করা, মহানগরের লক্ষ্মীপুর, তালাইমারী, কোর্ট বাজার ও শিরোইলে আধুনিক বাজার নির্মাণ করা, পদ্মা খনন করে নাব্যতা ফিরিয়ে আনার কথাও বলেন লিটন।

গণসংযোগকালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নৌকার মেয়র প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আমরা আশা করছি, জনগণ বিপুলভাবে নৌকার পক্ষে রায় দেবে, রাজশাহীতে ইতিহাস সৃষ্টি হবে। এছাড়া আমি আগেও বলেছি, এখনো বলছি, রাজশাহীতে সেনা মোতায়নের মতো কোনো পরিবেশ হয়নি। তাই সেনা মোতায়নের প্রয়োজন নেই। তারপরও যদি নির্বাচন কমিশন মনে করে, মোতায়ন করতে পারে, সেটি তাদের ব্যাপার।

এদিকে, শুক্রবার সকাল থেকে বিকেলে পর্যন্ত বিএনপির ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল নগরের ছয় ও আট নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষ্মীপুর এলাকার কাঁচাবাজার ঝাউতলা, লক্ষ্মীপুর মোড় ও কাজিহাটাসহ বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টি উপেক্ষা করে প্রচারণা চালান এবং ধানের শীষের ভোট চান।

গণসংযোগকালে বুলবুল বলেন, তিনি নির্বাচিত হলে নগরবাসীর করের বোঝা লাঘব ও সরলীকরণ করা হবে। রাজশাহীকে আধুনিক নগর গড়তে যা করার দরকার তাই করা হবে। নগরের উপযোগী রাস্তাঘাট তৈরি, ড্রেনেজ-ব্যবস্থা, পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা, সুপেয় পানির ব্যবস্থা করার কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। শহরের যানজট নিরসনকল্পে ট্রাফিক ব্যবস্থার উন্নয়নে সিটি করপোরেশনের নিজস্ব ট্রাফিককর্মী বাহিনী গড়ে তোলা হবে। যত্রতত্র গাড়ি পার্কিংয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং বিভিন্ন মার্কেট এলাকায় বহুতল গাড়ি পার্কিং তৈরি করা হবে। রাজশাহীতে আন্তর্জাতিক ফুটবল, ক্রিকেট, হকিসহ অন্যান্য টুর্নামেন্টের ভেন্যু স্থাপনের লক্ষ্যে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ ও একটি ইনডোর স্টেডিয়াম স্থাপন করা হবে।
 
এছাড়াও সিটি করপোরেশনের আওতাধীন সব মসজিদ, মাদ্রাসা, ঈদগাহ, গোরস্থান, মন্দির, মঠ, শ্মশান, গীর্জাসহ অন্যান্য উপাসনালয়ের সংস্কার ও সৌন্দর্যবর্ধন করা হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৫ ঘণ্টা, জুলাই ২৭, ২০১৮
এসএস/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: রাজশাহী সিটি করপোরেশন
মোরা ত্রাণ চাই না, বেড়ি চাই
রবীন্দ্র সরোবর যেন সবুজের গালিচা
ফলন ভালো হলেও বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় পাহাড়ের কৃষক
করোনায় মারা গেলেন প্রথম কোনো ফুটবলার
শ্বাসকষ্ট নিয়ে চবি শিক্ষকের মৃত্যু


প্রথম ইউরোপীয় দেশ হিসেবে ‘করোনামুক্ত’ মন্টেনিগ্রো
উল্লাপাড়ায় ঘুড়ি কেনাবেচা নিয়ে সংঘর্ষে নিহত এক
ইডিইউতে হারমনি অব আর্টস আজ ও কাল
বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস রোববার
খুলনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা রোগীর মৃত্যু