এই মুহূর্তে সরে যাওয়ার সুযোগ নেই: তাপস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লাঙল প্রতীকের মেয়র প্রার্থী ইকবাল হোসেন

walton

বরিশাল: বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙল প্রতীকের মেয়র প্রার্থী ইকবাল হোসেন (তাপস) বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এরইমধ্যে ১২৩টি কেন্দ্রে পোলিং এজেন্ট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এ মুহূর্তে মাঠ থেকে সরে যাওয়ার কোনো অবস্থা বা সুযোগ নেই। জনগণ ও জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীরা আমার সঙ্গে রয়েছেন।

শুক্রবার (২৭ জুলাই) বিকেলে নগরের অক্সফোর্ড মিশন রোডে জাতীয় পার্টির প্রার্থীর নির্বাচনী প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তাপস বলেন, পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আমাকে যা বলেছেন আমি তাই করছি। তিনি আমাকে দলীয় মনোনয়নপত্রে স্বাক্ষর দিয়ে বরিশালে পাঠিয়েছেন এবং বলেছেন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করো, আমি তাই করছি। 

আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, এ ধরনের কোন নির্দেশনা আমি পাই নি। কিংবা প্রত্যাহারের কোন চিঠিও আমি পাইনি। আর আমি যতটুকু জানি মহাজোটে আমরা নেই।

নির্বাচনে কালো টাকার বিষয়ে তিনি বলেন, শুধু নির্বাচন নয়, সব জায়গায় কালো টাকার প্রভাব রয়েছে। এটা আমি একা দূর করতে পারবো না। এটা সরকার ও সাধারণ মানুষের সচেতনতার বিষয়। 

নির্বাচনের পরিবেশের বিষয়ে তিনি বলেন, বরিশালে নির্বাচনের পরিবেশ খারাপ না, এখানে কোন সহিংসতা ঘটেনি। সব প্রার্থী সহ অবস্থানে রয়েছি এবং ভালো অবস্থানেই আছি। কিন্তু একটি সংশয়, বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) রাতে মোটরসাইকেলের একটি মহড়া হয়েছে। প্রশাসনিক কিছু মানুষ আছেন যারা ভীতি ছড়াচ্ছেন। তাই প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ, কারো সহিংসতারোধ ও কারো পক্ষপাতিত্ব না করার জন্য। 

নির্বাচন কমিশনের প্রতি আমরা পুরোপুরি আস্থা এখনো রাখতে পারছি না মন্তব্য করে লাঙল প্রতীকের এ প্রার্থী বলেন, কারণ তারা ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ঘটনায় দৃশ্যমান পদক্ষেপ নিয়ে একটি শক্তিশালী অবস্থান আমাদের সামনে উপস্থাপন করতে পারেনি। তবে এখনো আমরা পর্যবেক্ষণ করছি এবং জনগণকেও আহ্বান জানাবো জনসম্পৃক্ততার মধ্য দিয়ে যাতে তাদের ভোটাধিকার রক্ষা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা জাপার সভাপতি অধ্যাপক মহসিন উল ইসলাম হাবুলসহ দলী নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে শুক্রবার (২৭ জুলাই) দুপুরে বরিশাল নগরের কাশিপুরে আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সভাকক্ষে সিটি করপোরশেন নির্বাচনের মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সঙ্গে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের মতবিনিময় সভা শেষে ইকবাল হোসেন তাপস বলেন, নির্বাচন কমিশনার আমাদের কাছে সহযোগিতা চেয়েছেন। তিনি আমাদের (মেয়র প্রার্থীদের) প্রতি আবেদন করেছেন নির্বাচনের পরিবেশ যেনো সুষ্ঠু রাখি। 

তাপস বলেন, নির্বাচন কমিশনার আমাদের অভিযোগের কথা শুনেছেন। তিনি বললেন অভিযোগ দিতে। এর মানে হলো আমি খুন হয়ে গেছি তারপর অভিযোগ করলে লাভ কি?

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩২ ঘণ্টা, জুলাই ২৭, ২০১৮
এমএস/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বরিশাল সিটি নির্বাচন
হাসপাতালে রোগীর খাবার পৌঁছাতে এগিয়ে এলো পুলিশ
গোডাউন থেকে ২১ বস্তা সরকারি চাল উদ্ধার
৪০০ পরিবহন শ্রমিককে খাবার দিলেন ফারাজ করিম
সার্কভুক্ত দেশের বাণিজ্য ক্ষতি পোষাতে ৫ সুপারিশ
ইসরায়েলে করোনা আক্রান্ত বেড়ে প্রায় ১০ হাজার, মৃত্যু ৭১


করোনা প্রতিরোধে দোষারোপ নয়, একযোগে কাজ করতে জাসদের আহ্বান
বিশ্বকাপ ফাইনালের ম্যাচসেরা অনুপ্রেরণা হিসেবে দেখছেন আকবর
গৃহহীনদের অস্থায়ী আবাসনের দাবি গণসংহতি আন্দোলনের
করোনায় আক্রান্ত মার্কিন রণতরী থিওডোর রুজভেল্টের ২৮৬ নাবিক
নেতাকর্মীদের মুক্তি দিতে সরকারকে ফখরুলের চিঠি