বরিশালে সুষ্ঠু পরিবেশ বিরাজ করছে: সাদিক আবদুল্লাহ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বাঁয়ে গণসংযোগে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, ডানে মজিবর রহমান সরওয়ার। ছবি: বাংলানিউজ

walton

বরিশাল: আগামী ৩০ জুলাই বরিশাল সিটি করপোরেশনে (বিসিসি) অনুষ্ঠেয় নির্বাচন ঘিরে জনগণের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে জানিয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বলেছেন, নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে জনগণের মাঝে ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে।  সুষ্ঠু নির্বাচনে নৌকার বিজয় হবে ইনশাল্লাহ। এখন পর্যন্ত প্রচার-প্রচারণার মাঠে সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশ বিরাজ করছে। 

বুধবার (১৮ জুলাই) বেলা সোয়া ১২টার দিকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারীদের সঙ্গে গণসংযোগকালে তিনি এ কথা বলেন। এসময় তার সঙ্গে মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. সাইদুর রহমান রিন্টু ও সাধারণ সম্পাদক এ কে এম জাহাঙ্গীরসহ নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে নগরের চকবাজার এলাকায় নৌকা প্রতীকের পক্ষে গণসংযোগ করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

সাদিক আবদুল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হওয়ায় বিরোধী প্রার্থীদের আঙ্গুলটা আমার ওপরে আসে। এজন্য আমার নিজের ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্রসহ আশপাশের বেশ কয়েকটি ভোটকেন্দ্রে ইভিএমের জন্য আবেদন করেছি। 

‘বিরোধীদের অভিযোগ তো অনেক আছে। কিন্তু তারা লিখিত অভিযোগ দেয় না। একদিন আগের একটি সভায় পুলিশ কমিশনার মাত্র দু’টি অভিযোগ পাওয়ার কথা বলেছেন। যারা অভিযোগ দিচ্ছেন তারা মুখে বলছেন, লিখিত দিলে বিষয়টি কী তা নির্বাচন কমিশনসহ প্রশাসন তদন্ত করে দেখতে পারে।’

এদিকে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরের সদর রোড ও পরে চাঁদমারী এলাকায় গণসংযোগ করেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ার। এসময় তার সঙ্গে কেন্দ্রীয় বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস আক্তার জাহান শিরিন, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানসহ নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মজিবর রহমান সরওয়ার বলেন, ইভিএমের বিষয়টা এখনো জনগণ জানে না। কাজেই ইভিএম করলেই যে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে সেটা ঠিক নয়, বরং সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য গাজীপুর-খুলনার যে ত্রুটি-বিচ্যুতি আছে সেগুলো দূর করতে হবে।

তিনি বলেন, দখল, ভোট  জালিয়াতিসহ বিভিন্ন অনিয়ম বন্ধ করতে হবে। পাশাপাশি নির্বাচনের দিন গোটা করপোরেশন এলাকাকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দিতে হবে, যেন বাইরের কেউ না আসতে পারে। নির্বাচন কমিশন যে সুষ্ঠু নির্বাচনের কথা বলছে, তার জন্য প্রশাসনিক কঠিন একটা অবস্থা এখানে গুরুত্বপূর্ণ। লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডটাও গুরুত্বপূর্ণ। ভোটের সময় প্রশাসন যেন নিরপেক্ষ থাকে, সবাইকে সমান অধিকার দিলেই এখানে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি হবে।

এদিকে বিএনপির মেয়র প্রার্থীর পক্ষে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মতবিনিময় করেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মির্জা আব্বাস ও নজরুল ইসলাম খান। 

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪২ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০১৮
এমএস/এইচএ/

মাগুরায় যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
কক্সবাজার সৈকতের বালিয়াড়ি তৈরিতে হচ্ছে সাগরলতা বনায়ন 
ঠাকুরগাঁওয়ে করোনা সন্দেহে ১৪ জনের নমুনা সংগ্রহ 
নদী তীরের মাটি কাটায় সোয়া লাখ টাকা জরিমানা
ব্যক্তি উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ করলো ‘সহযোগী’


উপোস থাকবে না রাস্তার কুকুরগুলোও
দেশের ৯ জেলায় ছড়িয়েছে করোনা সংক্রমণ 
না’গঞ্জের পুরাতন পালপাড়ায় অঘোষিত লকডাউন 
র‌্যাব সদস্য করোনা আক্রান্ত, টেকনাফে ১৫ বাড়ি-দোকান লকডাউন
তালিকা টাঙিয়ে হঠাৎ ১৮৯ পোশাক শ্রমিককে অব্যাহতি