ঢাকা, সোমবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

শিক্ষা

খুবি শিক্ষার্থীদের মারধরের প্রতিবাদে মানববন্ধন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
খুবি শিক্ষার্থীদের মারধরের প্রতিবাদে মানববন্ধন

খুলনা: খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) শিক্ষার্থীদের মারধরের প্রতিবাদে মানববন্ধন করা হয়েছে।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন করেন।

এর আগে খুলনা মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সদস্য আল আমিন মৃধা ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে খুবি শিক্ষার্থীদের মারধরের অভিযোগ উঠে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, খুবি শিক্ষার্থী ওয়ালী, অনির্বাণ, সদানন্দ, আশিক ও মামুন প্রমুখ।  

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, একজন মুমূর্ষু রোগীকে রক্ত দেওয়ার উদ্দেশে দুইজন ডোনারসহ ছয়জন শিক্ষার্থী শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ৩টার দিকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে যান। রক্তের ব্যাগ কেনার জন্য হাসপাতালের বিপরীতে ফার্মেসিতে দাঁড়িয়ে ছিলেন তারা। এ সময় একটি প্রাইভেটকার দ্রুত ও বেপরোয়াভাবে শিক্ষার্থীদের পা ঘেঁষে চলে যায়। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়ে চালককে প্রতিবাদ জানাতে গেলে গাড়ির ভেতর থেকে দু’জন বেরিয়ে এসে শিক্ষার্থীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালজ করে এবং জামার কলার টেনে ধরে। শিক্ষার্থীদের পরিচয় জানতে পেরে আরও চড়াও হয়ে তারা পাশের গলিতে নিয়ে তাদের শারীরিক নির্যাতন করে ও প্রাণনাশের হুমকি দেন। একপর্যায়ে শিক্ষার্থীরা খুমেকের ইন্টার্ন হোস্টেলের ভেতরে আত্মগোপন করেন। এরপর নিরাপদে ক্যাম্পাসে ফেরার জন্য তারা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। বাংলা ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক আবুল ফজল অ্যাম্বুলেন্স পাঠালে শিক্ষার্থীরা ভোর ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরে আসেন। শিক্ষার্থীদের পক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে অবিলম্বে দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।  

অভিযোগের বিষয়ে খুলনা মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সদস্য আল আমিন মৃধার সঙ্গে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নম্বরে (০১৭৮৬২১৯৬৯৬) একাধিক বার যোগাযোগ করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
এমআরএম/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa