ঢাকা, রবিবার, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ সফর ১৪৪২

শিক্ষা

ঢাবি সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের ওপর হামলায় বিচার দাবি

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৪ ঘণ্টা, আগস্ট ২, ২০২০
ঢাবি সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের ওপর হামলায় বিচার দাবি ইমরান হোসেন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (ডুজা) সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেনের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িত স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ অপরাধীদের বিচার দাবি করেছে ডুজা।  

রোববার (২ আগস্ট) সমিতির সভাপতি রায়হানুল ইসলাম আবির স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ দাবি জানানো হয়।

 

শনিবার (১ আগস্ট) ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানার অন্তর্গত বাঁশবাড়ি ইউনিয়নের গাড়াপোতা গ্রামে কোরবানির মাংসের মিসকিনদের অংশ ইউপি সদস্য আজিজ রেখে দিলে তার প্রতিবাদ করায় মারধরের শিকার হন ঢাবি সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন।

ডুজার বিবৃতিতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এইচ এম ইমরান তার প্রতিবাদী ভূমিকার কারণে ঈদুল আজহার দিনে ঝিনাইদহে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির নৃশংস হামলার শিকার হয়েছেন। ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানার অন্তর্গত বাঁশবাড়ি ইউনিয়নের গাড়াপোতা গ্রামে কোরবানির মাংসের অংশ সমাজের অসহায়-দুস্থদের মধ্যে বন্টনের সময় অনিয়মের আশ্রয় নেন বন্টনকার্যে দায়িত্বরত ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য (মেম্বার) আজিজুর রহমান। শনিবার সন্ধ্যায় কোরবানির মাংস বন্টন শেষে অসহায়-দুস্থদের প্রাপ্য অংশ থেকে প্রায় ২০ কেজি মাংস হামলাকারী আজিজুর একজন স্বচ্ছল-সাবলম্বী জনপ্রতিনিধি হওয়া সত্ত্বেও রেখে দেন নিজের পারিশ্রমিক হিসেবে। আধা কেজি করে আরও বিতরণ করলেও প্রায় চল্লিশটি পরিবার যেখানে ঈদের দিন অন্তত পুষ্টিকর প্রাণিজ আমিষ গ্রহণের তৃপ্তি পেত যা কেনার সামর্থ্য তাদের নেই, মেম্বার তা নিজে আত্মসাৎ করেছেন। সাধারণ অসহায় জনগণের অধিকার আদায়ে ইমরান প্রতিবাদ করলে, আজিজুর (মেম্বার) তার দলবল নিয়ে দেশি অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে ইমরানসহ তার ছোট ভাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আকরাম হোসাইন ও তার বাবা আহত হয়েছেন। ইমরান মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হন এবং গুরুতর আহত অবস্থায় মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলা হয়, হামলায় জড়িত ইউপি মেম্বার আজিজুর ও তার সহযোগীদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করার। অন্যথায় দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় ও উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কর্মরত সাংবাদিকদের কেন্দ্রীয় সংগঠন ‘বাংলাদেশ ক্যাম্পাস জার্নালিস্টস ফেডারেশন’ এর সদস্য সংগঠনগুলোকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি দেশব্যাপী কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আমরা বিশ্বাস করি স্থানীয় ও দেশের কেন্দ্রীয় প্রশাসন বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখবেন এবং দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করবেন। যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনা কেউ ঘটাতে না পারে।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৩ ঘণ্টা, আগস্ট ০২, ২০২০
এসকেবি/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa