ঢাকা, শনিবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ সফর ১৪৪২

শিক্ষা

জাবির সিনেটে বিতর্কিত শৃঙ্খলা বিধির সমালোচনা

জাবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৬ ঘণ্টা, জুন ২৯, ২০১৯
জাবির সিনেটে বিতর্কিত শৃঙ্খলা বিধির সমালোচনা অধিবেশনে বক্তব্য রাখছেন উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। ছবি: বাংলানিউজ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ছাত্র শৃঙ্খলা অধ্যাদেশে যুক্ত হওয়া নতুন দু’টি বিতর্কিত ধারা বাতিল করার দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটররা।

শুক্রবার (২৮ জুন) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৮তম সিনেট অধিবেশনে তারা এ দাবি জানান।

সিনেট সদস্য অধ্যাপক মোহাম্মদ কামরুল আহসান তার বক্তব্যে বলেন, ‘এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকরা বিভিন্ন অসঙ্গতি গণমাধ্যমে তুলে ধরে বিশ্ববিদ্যালয়কে সহায়তা করে।

তাদের ওপর কোনো বিধি আরোপ করে তাদের লেখালেখির পথকে রুদ্ধ করবেন না। ’

অপর সিনেটর ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান বলেন, ‘সাংবাদিকদের প্রতি হুমকি স্বরুপ একটি ধারা অধ্যাদেশে যুক্ত করা হয়েছে। সাংবাদিকরা যেনো সাংবাদিকতা করার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের আতঙ্ক বোধ না করে। আমি ব্যক্তিগতভাবে ধারাটি বাতিল করে সাংবাদিকদের শঙ্কার জায়গা দূর করার দাবি জানাচ্ছি। ’

এ বিতর্কিত ধারা দুটি ছাত্র শৃঙ্খলা বিধিতে যুক্ত করায় ক্ষোভ প্রকাশ করে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন সিনেটর অধ্যাপক শামসুল আলম সেলিম, মেহেদি জামিল, আশীষ কুমার মজুমদার প্রমুখ।

এ সময় সিনেটরদের বক্তব্যের জবাবে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেন, ‘আমরা যে আইন তৈরি করেছি সেটি এখনো পাস হয়নি। সাংবাদিকরা সত্য খবর প্রকাশ করলে তাদের ভয়ের কোনো কারণ নেই। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ক্ষুন্ন হয় এমন কোনো সংবাদ প্রকাশ করলে তাদেরও জবাবদিহিতার আওতায় আনার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। ’

উল্লেখ্য, গত ৫ এপ্রিলের সিন্ডিকেট সভায় বাংলাদেশের সংবিধানের ৫৭ ধারার আদলে শৃঙ্খলা বিধিতে দু’টি ধারা যুক্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিধিতে ধারা দু’টি যুক্ত হওয়ার পর থেকে তা বাতিলের দাবি জানিয়ে আসছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিক ও বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন।

প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৮তম অধিবেশনে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ২৫৯ কোটি ৯৭ লাখ টাকার বাজেট পেশ করা হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৫ জুন ২৯, ২০১৯
আরআইএস/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa