রাজশাহী বোর্ডে শীর্ষে জয়পুরহাট, খারাপ ফলাফল নাটোরে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাজশাহী বোর্ডের প্রধান ফটক

walton

রাজশাহী: রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীন অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে শীর্ষে অবস্থান করছে জয়পুরহাট জেলা। জেলায় এবার পাসের হার ৯৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ। এছাড়া পাসের হারের দিক থেকে সবচেয়ে নিচে অবস্থান করছে নাটোর জেলা। সেখানে পাসের হার ৮৯ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

php glass

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের প্রকাশিত ফলাফলের পরিসংখ্যানে দেখা যায়, পাসের হারে এবার এগিয়ে আছে জয়পুরহাট। সেখানে ৪ হাজার ৭০৬ জন পরীক্ষার্থী এবার পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে সব বিষয়ে পাস করেছে ৪ হাজার ৪৩০ জন পরীক্ষার্থী। প্রাপ্ত ফলাফলে এই জেলায় গড় পাসের হার ৯৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ। 

আর এসএসসিতে পাসের হারে সবচেয়ে নিচে অবস্থান করছে নাটোর জেলা। সেখান থেকে ১০ হাজার ২৭৮ জন শিক্ষার্থী এবার পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে ৯ হাজার ৪৪ জন। গড় পাসের হার ৮৯ দশমিক ৯৬ শতাংশ।  

এছাড়া বোর্ডের দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাজশাহী জেলা। এই জেলা থেকে চলতি বছর ১৭ হাজার ৩৭০ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে ১৫ হাজার ৯৭৪ জন শিক্ষার্থী। গড় পাসের হার ৯২ দশমিক ৮৪ শতাংশ।

এছাড়া পাসের হারে বোর্ডে তৃতীয় হয়েছে নওগাঁ জেলা। এই জেলা থেকে ১৩ হাজার ৬১০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে পাস করেছে ১২ হাজার ২৪০ জন শিক্ষার্থী। সেখানে গড় পাসের হার ৯১ দশমিক ৫০ শতাংশ। 

রাজশাহী বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর ড. মো. আনারুল হক জানান, বোর্ডের অধীনে এবার বিভাগের আট জেলা থেকে পরীক্ষায় অংশ নেয় ২ লাখ ৪ হাজার ৮৩৫ জন শিক্ষার্থী। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১ লাখ ৭ হাজার ২৬৩ জন ছাত্র ও ৯৬ হাজার ৬১৮ জন ছাত্রী রয়েছে। এবার নিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিলো ১ লাখ ৭৯ হাজার ৯০৯ জন। বিভাগের আট জেলায় মোট ২৫৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৮ ঘণ্টা, মে ০৬, ২০১৯
এসএস/জেডএস

আগের ১৫ সদস্যের ওপরই ভরসা রাখলেন নির্বাচকরা
ধানক্ষেতে আগুনের ঘটনা তদন্তের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
ছোট পর্দায় ‘অভাগিনী মা’ চম্পা
কমলাপুরে সিএনএসের সার্ভাররুমে দুদকের হানা
লাইফবয় ওয়ার্ল্ডকাপ থিম সং ‘খেলবে টাইগার, জিতবে টাইগার’


দুপুর হতেই কাউন্টার ফাঁকা
আগুয়েরোকে নিয়ে আর্জেন্টিনার দল ঘোষণা, নেই ইকার্দি
ল্যাবএইড গ্রুপে নিয়োগ
পটুয়াখালীতে অনির্দিষ্টকালের বাস ধর্মঘট
বোমা মেশিনে নদীর পাড় খুঁড়ে বাঁধ নির্মাণ