সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের চ্যালেঞ্জ নেওয়ার আহ্বান

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পদ্মাসেতুর প্রধান সমন্বয়ক মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো. মাসুদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দিচ্ছেন বুয়েটের অধ্যাপক ড. শামসুল হক। ছবি: শাকিল/বাংলানিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি): সফল হতে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের চ্যালেঞ্জ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পদ্মাসেতুর প্রধান সমন্বয়ক মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো. মাসুদ।

php glass

শনিবার (৭ জুলাই) রাতে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ‘সিভিল টক ২০১৮’ এ পদ্মাসেতুর কার্যক্রম জানানোর সময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি এ আহ্বান জানান। 

মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো. মাসুদ বলেন, পদ্মাসেতু প্রকল্পটি একটি বিশাল চ্যালেঞ্জ ছিল আমাদের জন্য। এ ধরনের প্রকল্প সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য অনেক বড় সুযোগ। আর এই সুযোগকে কাজে লাগাতে হলে অবশ্যই চ্যালেঞ্জ নিতে হবে। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের গঠন, পরিবহন সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকতে হবে। পড়াশোনার পর প্র্যাকটিস করলে এটি সহজ হয়ে আসবে।

‘একজন ইঞ্জিনিয়ারকে সব সময় টিম লিডারের ভূমিকা রাখতে হবে। সমাজের সবাইকে নিয়ে কাজ করতে হবে। যারা উন্নয়ন কাজের বিরোধিতা করবে তাদের বুঝাতে হবে।’

অংশগ্রহণকারীদের হাতে সনদ ‍তুলে দেওয়া হচ্ছে। ছবি: শাকিল/বাংলানিউজ
এ সময় পদ্মাসেতুর রাস্তা করতে গিয়ে জনগণের বাঁধাকে কৌশলে মোকাবেলা করেন বলেও জানান তিনি। 

এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বুয়েটের সিভিলি ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. শামসুল হক, স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ইমেরিটাস অধ্যাপক ফিরোজ আহমেদ, বসুন্ধরা সিমেন্টের উপ-মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সরোজ কুমার বড়ুয়া প্রমুখ। 

অধ্যাপক ড. শামসুল হক বলেন, আমাদের দেশে অনেক বড় বড় মেগা প্রজেক্ট হাতে নেওয়া হয়। কিন্তু সঠিক পরিকল্পনার অভাবে সেটি টেকসই হয় না এবং সঠিক ব্যবহার হয় না। তাই মেগা প্রজেক্ট হাতে নেওয়ার আগে সঠিক পরিকল্পনা নিতে হবে। রাজনীতিবিদরা স্বপ্ন দেখাবে। সে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে প্রকৌশলীদের।

প্রকৌশলী সরোজ কুমার বড়ুয়া বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ সব সময় এ ধরনের কাজে সহযোগিতা করে আসছে। এই ফেস্টিভালের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মধ্যে উদ্ভাবনী চিন্তাধারা সৃষ্টি হবে, যা দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে। 

এ সময় সিমেন্ট নিয়ে বৈশ্বিক চিত্র তুলে ধরেন তিনি।

অনুষ্ঠানে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ব্লগের উদ্বোধন করেন বুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক আহসানুল কবির। ৩ দিনব্যাপী সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ফেস্টিভালে ‘এসসেনট্রিক’ এর দ্বিতীয়দিনে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা। 

ফেস্টিভালের টাইটেল স্পন্সর ‘বসুন্ধরা সিমেন্ট’। রোববার (০৮ জুলাই) শেষদিনে রয়েছে কালচারাল নাইট।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৪ ঘণ্টা, জুলাই ০৭, ২০১৮
এসকেবি/এমএ

বরিশাল নগরে যাত্রী ওঠা-নামার জন্য স্ট্যান্ড হবে 
জাতির বীরসন্তানদের রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
এক সন্তান প্রসবের ২৬ দিন পর ফের জমজ জন্মদান
কলকাতায় বাংলাদেশ উপ-দূতাবাসে গণহত্যা দিবস পালিত
জাতীয় গণহত্যা দিবস পালিত হলো পাকিস্তানে


‘পাকিস্তানিরা বাঙালিদের কুকুর-বিড়াল মনে করতো’
বিধি লঙ্ঘনে এমপি খোকাকে সোনারগাঁও ছাড়ার নির্দেশ ইসির
কালরাত্রি স্মরণে ‘ব্ল্যাক আউট’ সিলেটেও
গণহত্যা দিবসের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দাবিতে রাজশাহীতে
শহীদেরা অন্ধকারকে জয় করে আমাদের জীবনে আলো জ্বেলে গেছেন