ঢাবি-ঢামেক শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ আহত ১১

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিক্ষার্থীদের রড, লাঠি নিয়ে মহড়া

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ও ঢাকা মেডিকেল কলেজের (ঢামেক) শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় সাংবাদিকসহ উভয়পক্ষের ১১ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) দিনগত রাতে বকশীবাজার মোড়ে পেনাং রেস্টুরেন্টে ঘটনার সূত্রপাত হয়।

শিক্ষার্থীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলেও পরে ঢামেকের ফজলে রাব্বী হল শাখা ছাত্রলীগ ও ঢাবির সলিমুল্লাহ মুসলিম (এসএম) হল শাখা ছাত্রলীগ এ ঘটনায় জড়িয়ে পড়ে। এতে শহীদ ডা. ফজলে রাব্বী হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. আল আমিন, এসএম হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাফফার ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ওয়াহাব বিন রিয়াজ আহত হয়েছেন। বাকিদের নাম পাওয়া জানা যায়নি।

এছাড়া একটি বেসরকারি টেলিভিশন এর ক্যামেরাম্যান আব্দুল লতিফকে মারধর করে ঢাবি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। তার ক্যামেরা ছিনিয়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় এক পুলিশ সদস্যও আহত হন।

প্রথম দফায় রেস্টুরেন্টে মারামারির পর বকশীবাজার মোড়ে শিক্ষার্থীরা রড, লাঠি নিয়ে মহড়া দেন। সেখানে দুইপক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপ্যাল খান আবুল কালাম আজাদ বলেন, এ ঘটনার আমরা তীব্র নিন্দা জানাই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও বিষয়টি জানে। তারা এর নিন্দা জানিয়েছে। আমরা আশা করবো কর্তৃপক্ষ দ্রুত এর বিচার করবে।

পুলিশের লালবাগ জোনের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার কামাল হোসেন বলেন, পুলিশ সংঘর্ষ ঠেকাতে তৎপর ছিল। ঢাবির প্রক্টরের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৪২৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০১৮
এসকেবি/আরআর

জোট-শরিকদের ৬০-৬৫টি আসন দিচ্ছে আ’লীগ
নির্বাচন হলেও পহেলা জানুয়ারি বই পাবে শিক্ষার্থীরা
গ্রেফতার-মামলার সেই তালিকা সিইসিকেও দিলো বিএনপি
কাস্টমস্, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট-এ নিয়োগ
লক্ষ্মীপুরে শীতবস্ত্র বিক্রি শুরু
মেধাতালিকায় ২৩তম আসলামকে থামিয়ে দিতে চায় ‘দারিদ্র্য’
কোনো দল কিনলো না আশরাফুলকে
হাসপাতালে খালেদার চিকিৎসা নিয়ে রিটের আদেশ সোমবার
অর্থ মন্ত্রণালয়ে নিয়োগ
পবিত্র ওমরাহ্‌ পালনে গেছেন তামিম