ঢাকা, রবিবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ সফর ১৪৪২

শিক্ষা

লেদার টেকনোলজি কলেজের অধ্যক্ষ অবরুদ্ধ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১২

ঢাকা: রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকার লেদার টেকনোলজি কলেজের ৩০তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা তাদের ‍অ্ধ্যক্ষ প্রফেসর ড. ইদ্রিস আলীর কক্ষ অবরুদ্ধ করেছিল।

শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষের কক্ষের সামনে অবস্থ‍ান নেয়।

দুপুর ২টার দিকে দাবি দাওয়া পূরণের আশ্বাস পেয়ে শিক্ষার্থীরা তাদের অবস্থান থেকে সরে আসে।

কয়েকজন শিক্ষার্থী বলছিলেন, লেদার টেকনোলজি কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে হওয়ার পরেও এখন পর্যন্ত আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো সুযোগ সুবিধা পাচ্ছি না। কলেজ কর্তৃপক্ষ আগের মতোই কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। এটি আলাদা বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ার কথা।

তারা জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ক’ ইউনিটের মাধ্যমে আমরা ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে ভর্তি হয়েও আমরা কলেজের অধীনে পড়ালেখা করছি। আমরা দীর্ঘদিন ধরে আমাদের সমস্যার কথা বলেও কোনো সুরাহা না হওয়ায় অধ্যক্ষের রুমের সামনে অবস্থান নিতে বাধ্য হয়েছি।

ঢাকা লেদার টেকনোলজির ৩০তম ব্যাচের ছাত্রী জোবাইদা রওশন রোশা জানান, এখনও আমরা কোনো হল বরাদ্দ পাইনি, কমন রুম বরাদ্দ হয়নি, এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়নি। এমনকি আগের মতো কলেজের শিক্ষক দিয়ে পাঠদান করানো হচ্ছে।  

শিক্ষার্থীরা জানান, আইন অনুযায়ী গত বছর থেকে কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করার কথা।

এই প্রসঙ্গে অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী জানান, আইন অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় হলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক আমাদের এখন্ পর্যন্ত কোনো প্রজেক্ট ডিরেক্টর নিয়োগ দেননি। যার কারণে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো কার্যক্রম শুরু করতে পারছি না।

তবে আমরা ভিসির সঙ্গে আলোচনা করে এ সমস্যা সমাধান করার ব্যবস্থা নেব।

এ ঘটনায় যাতে কোনো অনাকাঙ্খিত ঘটনা না ঘটে এ জন্য হাজারীবাগ থানা পুলিশ লেদার টেকনোলজি কলেজের গেটে অবস্থান নিয়েছে।

এসআই মিজানুর রহমান জানান, কোনো অঘটন ঘটবে না। কিন্ত অধ্যক্ষ আমাদের কোনো অনুমতি না দেওয়ায় আমরা কলেজের ভেতরে অবস্থান করতে পারছি না।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১২
আইএম/সম্পাদনা: বেনু সূত্রধর, নিউজরুম এডিটর
নূরনবী সিদ্দিক সুইন, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa