ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

সচেতন হলেই নিরাপদ থাকা সম্ভব

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৩৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩১, ২০২০
সচেতন হলেই নিরাপদ থাকা সম্ভব জিপির বিজ্ঞাপন

ঢাকা: ভাবুন তো, ইন্টারনেট ছাড়া একটি দিন! আপনি নিশ্চয়ই এক ধরনের বিচ্ছিন্নতা অনুভব করবেন। প্রতিদিনের নানান প্রয়োজনে ইন্টারনেট এখন অন্যতম যোগাযোগ মাধ্যম হয়ে উঠেছে।

আর ইন্টারনেটের এই দুনিয়ায় সম্ভাবনা সবসময় সীমাহীন। কিন্তু এই সম্ভাবনা নির্ভর করে সঠিক ব্যবহারের ওপর।

প্রতিদিন আমরা অসংখ্যবার অনলাইনে শেয়ার করছি নিজেদের পছন্দ বা অপছন্দ। আবার বুঝে বা না বুঝে মতামত জানাচ্ছি লাইক, কমেন্টের মাধ্যমে। অনেক সময় আবার এই সবকিছুই করছি নিজেকে আড়াল করে। কিন্তু আমরা কি বোঝার চেষ্টা করি অনলাইনে ব্যবহার করা একটা ইমোজি কিংবা একটা কমেন্ট শুধুই কিছু শব্দ বা সাইন নয়। সবার সঙ্গে শেয়ার করা নিজের একান্ত ব্যক্তিগত তথ্য কখনো হয়ে উঠছে আমাদের জন্যই ক্ষতির কারণ। সত্য-মিথ্যা যাচাই না করে শেয়ার করা সামান্য একটা সংবাদ থেকে ঘটে যেতে পারে অনেক বড় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। তবে ইন্টারনেট ব্যবহারে একটু সতর্ক হলেই অনলাইন এক্সপেরিয়েন্স আরও নিরাপদ করে তোলা সম্ভব!

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রতিদিনই বাড়ছে আপনার বন্ধুর সংখ্যা। আপনার হয়ত ভালো লাগছে। তবে মুখোশের আড়ালে লুকিয়ে থাকা কাউকে বন্ধু বলে ভাবছেন না তো? এসব ফেক প্রোফাইল হতে পারে আপনার জন্য ক্ষতির কারণ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কাউকে বন্ধু হিসেবে অ্যাকসেপ্ট করার আগে তার প্রোফাইলের ছবি চেক করুন। দেখে নিন ইউজার নেম ও আইডি নেম একই কি না। তাছাড়া বেসিক ইনফো চেক করে নিতে পারেন অ্যাবাউট সেকশন থেকে।

জেনে-বুঝে হয়তো বন্ধু নির্বাচন করলেন, কিন্তু নিজের ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করছেন না তো? রিয়েল লাইফে যদি পার্সোনাল ইনফরমেশন সবার সঙ্গে শেয়ার না করেন, তাহলে অনলাইনে কেন? ইন্টারনেটের দুনিয়ায় নিরাপদ থাকতে শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার ও টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু রাখুন। এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ায় আপনার পোস্ট কারা দেখতে পারবে তা ঠিক করে দিতে পারেন।

অন্যের ছবি বা পোস্টে রিঅ্যাকশন জানানোর আগেও সতর্ক হতে হবে। ছোট একটি কথা কখনো অন্যের জন্য আঘাত হতে পারে। তবে এমন পরিস্থিতি এড়িয়ে চলতে অপরিচিত মেইল বা মেসেজ এড়িয়ে চলুন। অন্য কারো পোস্টে আপনাকে Tag করার অপশন বন্ধ করে রাখতে পারেন। আর সন্দেহজনক লিংকে ক্লিক করা থেকেও বিরত থাকতে হবে।

অনলাইনে প্রতিদিন আপনার সামনে আসা সব তথ্যই কি সঠিক? ইন্টারনেটে গুজব এড়িয়ে চলতে কোনো কিছু শেয়ার করার আগে চেক করুন সংবাদটি অন্য কোনো নির্ভরযোগ্য সাইটে প্রকাশিত হয়েছে কি না। তাছাড়া নিশ্চিত হতে হবে ওয়েব অ্যাড্রেস সম্পর্কেও।

ইন্টারনেট যেমন খুলে দিয়েছে সম্ভাবনার দুয়ার তেমনি এর সাথে তৈরি হয়েছে কিছু দায়িত্ব। তাই আমাদের সতর্ক হতে হবে। এই সম্ভাবনাকে ব্যবহার করতে হবে সঠিকভাবে। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় জানতে হবে, কোথায় আমাদের থামতে হবে!

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩১, ২০২০
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa