পেঁয়াজে নিম্নবিত্তের ভরসা টিসিবির ট্রাক সেলে 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

টিসিবির ট্রাক সেলের পেঁয়াজ নিতে নারী-পুরুষের ভিড়। ছবি: শাকিল/বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: রাজধানীর খুচরা বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৫০ টাকায়। নিম্ন ও মধ্যবিত্তের জন্য রীতিমতো নাভিশ্বাস ওঠার মতো অবস্থা। তাই তারা ছুটছেন ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) ট্রাক সেলের দিকে।

টিসিবি ট্রাকে করে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে খোলা বাজারে ৪৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করছে। প্রতিদিন একেকটি ট্রাক এক হাজার কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করে। 

কম দামে একজন ক্রেতার সর্বোচ্চ দুই কেজি নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। তাই পেঁয়াজ পেতে সকাল থেকেই এসব পয়েন্টে দীর্ঘ লাইন হয় ক্রেতাদের। 

রোববার (১৭ নভেম্বর) রাজধানীর সচিবালয়-প্রেসক্লাব সংলগ্ন রাস্তায় একবটি ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করা হয়। তবে যোগান অনুযায়ী ক্রেতার সংখ্যা ছিল কয়েকগুণ। 

দুপুর সাড়ে ১২টা দিকে আরও একটি ট্রাক সেখানে যোগ দেয়। শুরু হয় টিসিবির দুই ট্রাকে খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি। এর একটি ট্রাকে দেওয়া হয় নারীদের, অপরটিতে চলে পুরুষ ক্রেতাদের জন্য পেঁয়াজ বিক্রি। 

দুই ট্রাকে বিক্রি হলেও অসাধু কিছু ক্রেতা লাইনের সামনে গিয়ে পেঁয়াজ কিনতে চায় বলে অভিযোগ করেন অনেকেই। এ নিয়ে লাইনের পেছন থেকে চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করেন ক্রেতারা।

শুরু হয় ধাক্কা-ধাক্কি। একপর্যায়ে সেখানে কিছুটা হট্টগোল সৃষ্টি হয়। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তা ঠিক হয়ে যায়। এর মাঝেই চলে পেঁয়াজ বিক্রি। 

নয়ন বাছের একটি বেসরকারি ব্যাংকের কর্মচারী। প্রায় দুইঘণ্টা অপেক্ষা করে তিনি পেঁয়াজ পেয়েছেন। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, বাজারে ২৫০ থেকে ২৭০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। আমি এখানে দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে ৪৫ টাকা কেজিতে দুই কেজি পেঁয়াজ কিনেছি। এটাই আমার খুশি।

হামিদা বেগম নামে এক ক্রেতা বলেন, ঘণ্টা-দুয়েক লাইনে দাঁড়িয়ে পেঁয়াজ পেয়েছি। এই বাজারে এটা আমাদের জন্য অনেক। প্রথমে দু’টি লাইনে পেঁয়াজ দেওয়া হয়। নারী-পুরুষ ছিল। কিন্তু পরে একটি ট্রাকে শুধু নারীদের দেওয়া হয়। তখন আর ভেঅগান্তি হয়নি। 

তিনি বলেন, বাজারে গেলে প্রচুর পেঁয়াজ পাওয়া যায়। অথচ দাম আকাশ ছোঁয়া। বাজারে না থাকলে এভাবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে কিনতে কোনো অসুবিধা ছিলো না।

টিসিবির ট্রাক সেলের বিক্রেতা সাঈদ হোসেন পাপ্পু বাংলানিউজকে বলেন, সকাল থেকে আমরা ৪৫ টাকা কেজি দরে জনপ্রতি ২ কেজি করে পেঁয়াজ বিক্রি করেছি। মানুষের ভিড় বাড়ায় নারীরা ভোগান্তিতে পড়েন। তাই পরে তাদের জন্য আলাদাভাবে একটি ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি চলছে। 

এতে সবাই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পেঁয়াজ কিনতে পারবেন বলে জানান তিনি। 

যোগাযোগ করা হলে টিসিবির ডিলার রফিকুল ইসলাম জানান, বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়ায় অনেক আগে থেকেই সরকারিভাবে ট্রাক সেলে বিক্রি চলছে। সরকারি ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন পেঁয়াজ বিক্রি করছি। 

তিনি জানান, দৈনিক প্রতিটি ট্রাকে একহাজার কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করছি। বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আমাদের বিক্রি অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
ইএআর/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: খুচরা বাজার পাইকারি বাজার পেঁয়াজ
Nagad
ক্রিসমাস ট্রির নিচে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন এন্ড্রু কিশোর
শাহজাহান সিরাজের মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক
বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই: তপু বর্মন
পাহাড় কাটার দায়ে ৮ লাখ টাকা জরিমানা
৩ মাস ২০ দিন পর আবুধাবিতে বিমানের ফ্লাইট


৪ সপ্তাহের মজুরি পেলেন খুলনার ৮ পাটকলের শ্রমিক
সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের মধ্যে বিশুদ্ধ পানি বিতরণ
এই ঈদেও কোলাকুলি-হাত মেলানো বারণ
সিলেটে একসঙ্গে অক্সিজেন সাপোর্ট পাবেন ৫০০ রোগী
চাকরি স্থায়ীকরণসহ ৪ দফা দাবি সিএইচসিপিদের