ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো শুরু বৃহস্পতিবার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য রাখছেন অর্থসূচকের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কামরুন নাহার শরমিন। ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: পুঁজিবাজারের ব্র্যান্ডিং ও সচেতনতা বাড়ানোর উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) থেকে শুরু হচ্ছে তিন দিনব্যাপী ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো-২০১৯।

php glass

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাজধানীর পল্টন টাওয়ারে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে অর্থসূচক সম্পাদক জিয়াউর রহমান মেলার সার্বিক অবস্থা তুলে ধরেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অর্থসূচকের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কামরুন নাহার শরমিন।

 

জিয়াউর রহমান বলেন, ২০১৫ সাল থেকে অর্থসূচকের উদ্যোগে ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ৪, ৫ ও ৬ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার, শুক্রবার ও শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালা ভবনে অর্থসূচক ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো-২০১৯ অনুষ্ঠিত হবে

মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন।

তিনি বলেন, আমাদের অর্থনীতি আকার ও প্রবৃদ্ধি বিবেচনায় পুঁজিবাজার অনেক পিছিয়ে আছে। আমাদের জিডিপি ও পুঁজিবাজারের মূলধনের অনুপাত মাত্র ১৭ শতাংশের মতো। অথচ পাশের দেশ ভারতেও প্রায় ৭৭ শতাংশ। মালয়েশিয়া ও হংকং এ ১০০ শতাংশের বেশি। দেশের অর্থনীতির স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নে দেশে পুঁজিবাজারের বিকাশ খুবই জরুরি সময় এসেছে শিল্পায়নে ব্যাংক নির্ভর অর্থায়ন থেকে বের হয়ে পুঁজিবাজার কেন্দ্রীক অর্থায়নের দিকে যাওয়ার। সরকার বড় বড় বিদ্যুৎকেন্দ্র, এক্সপ্রেসওয়ে ইত্যাদি অবকাঠামো র্নিমাণের পরিকল্পনা করেছে। এসব অবকাঠামোর জন্য যা পুঁজিবাজার থেকে প্রয়োজনীয় অর্থ সংগ্রহ করা সম্ভব। এর মাধ্যমে দাতা ও ঋণনির্ভরতা থেকে বের হয়ে নিজের পায়ে দাঁড়ানো সহজ হবে।

লিখিত বক্তব্যে অর্থসূচক সম্পাদক জিয়াউর রহমান বলেন, সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত অর্থনীতির দেশে উন্নীত করার পরিকল্পনা নিয়েছে। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বিশাল বিনিয়োগ প্রয়োজন। আমরা বিশ্বাস করি, এক্ষেত্রে পুঁজিবাজার গুরুত্বর্পূণ ভূমিকা রাখতে পারে।

তিনি আরো বলেন, পুঁজিবাজার সম্পর্কিত সচেতনতা বাড়ানোর বিষয়টিকে মাথায় রেখে এক্সপোতে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন, ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ, ব্রোকারহাউজ, মার্চেন্ট ব্যাংক, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান, তালিকাভুক্ত কোম্পানিসহ বিভিন্ন স্টেকহোল্ডারের স্টল থাকবে।

তিনদিনের এ এক্সপোতে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের কলাকৌশল, পুঁজিবাজারে ক্যারিয়ার গড়ার সম্ভাবনা, বিদ্যুৎ খাতের সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ, ফিন্যান্সিয়াল রিপোটিং কাউন্সিল ও পুঁজিবাজার, শিল্পায়নে পুঁজিবাজারের অবদান ইত্যাদি বিষয়ে কয়েকটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো সকাল ১০ থেকে শুরু হয়ে চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য খোলা থাকবে। এক্সপোতে প্রবেশের জন্য কোনো টিকিট লাগবে না। উল্টো প্রবেশ কূপণের র‌্যাফেল ড্র-তে থাকবে মূল্যবান সব পুরস্কার।

এক্সপোর প্রথম পুরস্কার রানার অটোমোবাইলসের সৌজন্যে একটি ১২৫ সিসি মোটরসাইকেল। ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো ২০১৯ এর লিড স্পন্সর থাকছে- জিপিএইচ ইস্পাত ও ক্রাউন সিমেন্ট। স্পন্সর হিসেবে আছে বিবিএস ক্যাবলস। এছাড়া দু’টি সেমিনার স্পন্সর করছে যথাক্রমে প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও ইউসিবি ক্যাপিটাল লিমিটেড। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ০২, ২০১৫
এসএমএকে/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: শেয়ার বাজার
ওয়েঙ্গার ফুটবলে ফিরবেন তবে কোচ হয়ে নয়
রাজধানীতে ৫ হাজার ইয়াবাসহ বিক্রেতা আটক
নরেন্দ্র মোদীকে বলিউড তারকাদের অভিনন্দন
মাতামুহুরী সেতুতে একলেনে চলছে যানবাহন, যানজটে ভোগান্তি
থ্রোবল খেলতে বাংলাদেশ দল ভারতে 


পাকা আমের কাঁচা আঁটি!
তিস্তাসহ সব সমস্যার সমাধান হবে: কাদের
রাজনৈতিক কারণে জামিন পাচ্ছেন না খালেদা
অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন আরও ১৭ অভিযোগ
ঈদযাত্রা নির্বিঘ্নে প্রস্তুত কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুট