php glass

সাভারে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ২৫, পরিস্থিতি স্বাভাবিক

সাভার করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে পোশাক শ্রমিকদের

walton

সাভার (ঢাকা): ষষ্ঠদিনের মতো আশুলিয়ায় ৩৫টি কারখানার শ্রমিকরা বেতন বৈষম্যসহ কয়েকটি দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছ। এসময় তারা মহাসড়কে চলমান প্রায় ২০টি যানবাহনে ভাঙচুর চালায়। শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরাতে গেলে পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) সকালে ৮টার দিকে শ্রমিকরা কাজে যোগ দিলেও পরে ৯টায় কারখানাগুলো থেকে শ্রমিকরা বের হয়ে মহাসড়কে নেমে এসে বিক্ষোভ শুরু।

এসময় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের আশুলিয়ার জামগরা এলাকা ও জিরাবো-বিশমাইল সড়কে কাটগড়া অবরোধ করতে চেষ্টা করলে বিকেল ৩টা পর্যন্ত পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে পুলিশ, সাংবাদিকসহ প্রায় ২৫ শ্রমিক আহত হয়। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি আট প্লাটুন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্য মোতায়েন করা হয়। 

এছাড়াও শ্রমিক বিক্ষোভের কারণে ৩৫টি কারখানাতে শনিবারের জন্য সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

শ্রমিকরা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সরকার নির্ধারিত মজুরি কাঠামোর বৈষম্যসহ বিভিন্ন কারণে ষষ্ঠদিনের মতো কারখানায় প্রবেশ করার কিছু সময় পরই প্রায় ৩৫টি কারখানার শ্রমিকরা মহাসড়কে নেমে আসে। এসময় তারা বাইপাইল-আব্দুল্লাপুর ও কাঠগড়া-জিরাবো সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। পরে মহাসড়কে চলমান যাত্রীবাহী বাসসহ প্রায় ১৭টি যানবাহনে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে এবং রট দিয়ে ভাঙচুর চালায়। এতে প্রায় সাতজন আহত হয়। 

খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরিয়ে দিতে চাইলে শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর পুলিশ লাঠিচার্জ, টিয়ারশেল ও জলকামান নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে শ্রমিক, পুলিশ, সাংবাদিকসহ অন্তত ১৮ জন আহত হয়। পরে শ্রমিকরা মূল সড়ক থেকে সরে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। 

এদিকে শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ করে রাখার কারণে সকাল থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। বেলা ৩টার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার পর ওই এলাকায় ফের যানচলাচল শুরু হয়।

অপরদিকে সকালে সাভারের উলাইল এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করে শ্রমিকরা। এসময় পুলিশ তাদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ব্যাপারে ঢাকা-১ শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার (এসপি) সানা সামিনুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, আশুলিয়া জামগড়া এলাকাসহ আশপাশের প্রায় ৩৫টি কারখানার শ্রমিকরা মহাসড়কে নেমে এসে যানবাহনে ভাঙচুর ও অবরোধ করে রাখে। এসময় তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিতে জলকামান নিক্ষেপ করা হয়। শ্রমিক অসন্তোষের কারণে ওইসব কারখানায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

ফের যেন তারা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করতে না পারে সেজন্য ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ ও ৮ প্লাটুন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলেও জানান পুলিশের এ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০১৯
জিপি

ইয়াবাসহ র‌্যাবের হাতে আটক দুই
কসবায় ট্রেন সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় স্পিকারের শোক
শাবিপ্রবিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু
কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনা তদন্তে পাঁচটি কমিটি
‘বুলবুল’র তাণ্ডবে ৫০৫০৩ কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত, দ্রুত পুনর্বাসন


মধুপুরে আড়াই লাখ টাকার হেরোইনসহ বিক্রেতা আটক
ট্রেন সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় অর্থমন্ত্রীর শোক
তূর্ণার লোকোমোটিভ মাস্টার দায়ী: রেলমন্ত্রী 
৭০৩ যাত্রী নিয়ে সিলেট ছাড়ে উদয়ন
অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার সংগঠনের প্রেসিডেন্ট হলেন ওয়াটসন