বিনিয়োগকারীদের ৯ হাজার কোটি টাকা নেই

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের লোগো

walton

ঢাকা: দুই কার্যদিবস সূচক সামান্য উত্থান আর তিন কার্যদিবস সূচক পতনের মধ্য দিয়ে আরো একটি সপ্তাহ পার করেছে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। একই সপ্তাহে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) একদিন উত্থান আর চারদিন সূচক পতন হয়েছে।

আলোচিত সপ্তাহে ব্যাংক, বিমা, অর্থিক প্রতিষ্ঠান, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, ওষুধ ও রসায়ন, বস্ত্র খাতসহ সব খাতের শেয়ারের দাম কমেছে। এতে বাজারে দরপতন অব্যাহত ছিলো। ফলে আস্থা সংকটে বিনিয়োগকারীরা ‘প্যানিক সেল’ করছেন বলে মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এই দরপতনে গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের মূলধন অর্থাৎ পুঁজি কমেছে ৯ হাজার ২৪৬ কোটি টাকার বেশি। এর মধ্যে ডিএসই থেকে কমেছে ৩ হাজার ৩২৬ কোটি ৫৬ লাখ ৪৯ হাজার ৭৯২ টাকা। আর ৫ হাজার ৩৫২ কোটি ৯৯ লাখ টাকা পুঁজি হারিয়েছে সিএসই।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মার্চেন্ট ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ বড় কোম্পানির তৃতীয় প্রান্তিক শেষ হবে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর। এ কারণে প্রতিষ্ঠানগুলো শেয়ার সেল করে পোর্টফলিও অ্যাডজাস্ট করছে। পাশাপাশি চীনের কাছ থেকে পাওয়া অর্থ দিয়ে কম দামে শেয়ার কিনতে ব্রোকারেজ হাউজগুলো একটু সেল প্রেসার বাড়িয়েছে।

এছাড়াও জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে এক ধরনের শঙ্কায় রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। এসব কারণে হঠাৎ করেই ‘প্যানিক সেল’ করছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। ফলে পুঁজিবাজারে দরপতনও হয়েছে। তবে নতুন সপ্তাহ থেকে পুঁজিবাজারের এই খরা কেটে যাবে বলে মনে করেন তারা।

ডিএসই’র তথ্যমতে, বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৮৪৯ কোটি ৭৯ লাখ ৪৭ হাজার ৮৪২ টাকা। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিলো ৩ হাজার ৮৮৩ কোটি ৮৫ লাখ ৬৯ হাজার ৬৯৯ টাকা। 

তিন সূচকে পথচলা ডিএসই’র প্রধান সূচক ডিএসইএক্স গত সপ্তাহে ১২৪ দশমিক ১৬ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩৪২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান সূচকের পাশাপাশি ডিএসই-৩০ সূচক আগের সপ্তাহের চেয়ে ১৬ দশমিক ১৭ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৮৮৪ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ২৫ দশমিক ৪৯ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৩০ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৭১টির, কমেছে ২৫৭টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১২টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছিল ১০৬টির, কমেছে ২২০টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১৫টি কোম্পানির শেয়ারের দর।
 
দেশের অপর পুঁজিবাজার সিএসইতে সার্বিক সূচক ২৬৯ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৯৫৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। গত সপ্তাহে এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ২৩৮ কোটি ৬০ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৪৬টির, কমেছে ২২৯টির আর অপরিবর্তিত ছিল ৯টি কোম্পানির। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন বেড়েছিল ৮৭টির, কমেছে ১৭৯টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১৫টি শেয়ারের দাম।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮
এমএফআই/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: শেয়ার বাজার
যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়ালো
শ্রমিকদের ব্যাংক হিসাব খোলার শেষ সময় ২০ এপ্রিল
সিলেটে আইসোলেশনে বৃদ্ধার মৃত্যু
সংগীতজ্ঞ রবিশঙ্করের জন্ম
ইতিহাসের এই দিনে

সংগীতজ্ঞ রবিশঙ্করের জন্ম

করোনা চিকিৎসায় চীনের সাফল্য তুলে ধরলো হুয়াওয়ে


চট্টগ্রামে ৭টার পর থেকে বন্ধ দোকান, প্রবেশ মুখে চেকপোস্ট
মঙ্গলবার থেকে পটুয়াখালী শহরের প্রবেশ বন্ধ
সন্ধ্যা ৬টার পর রাজশাহীতে ওষুধ ছাড়া সব দোকান বন্ধ
১৬ এপ্রিলের মধ্যে শ্রমিকদের বেতন পরিশোধের অনুরোধ
এবার বাংলাদেশ ছাড়লো রাশিয়ার নাগরিকরাও