নারকেলের ছোবড়া ছাড়িয়ে জীবিকা

সাজ্জাদুর রহমান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নারকেলের ছোবড়া ছাড়াচ্ছেন এক শ্রমিক

নারকেলের ছোবড়া ছাড়িয়ে সংসার চলছে কয়েকশো পরিবারের। এসব পরিবারের প্রধানদের একমাত্র পেশা নারকেলের ছোবড়া ছাড়ানো। সারাবছর ধরে ছোবড়া ছাড়ানোর কাজ করেন তারা। এতেই চলে তাদের সংসার খরচসহ ছেলে-মেয়ের পড়ালেখা।

উপকূলীয় জেলা লক্ষ্মীপুরে ভৌগলিক কারণে ও উপযোগী মাটি হওয়ায় নারকেলের বাম্পার ফলন হয়। এখানকার গ্রামে গ্রামে সারি সারি নারকেল গাছ। জেলার রায়পুর, রামগঞ্জ, রামগতি, কমলনগর ও সদর উপজেলা থেকে প্রতিদিন হাজারো গাছ থেকে নারকেল পাড়া হয়। স্থানীয় ও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা ব্যবসায়ীরা এসব নারকেল কেনেন। পরিবহনের সুবিধায় তারা ছোবড়া ছাড়িয়ে নেন। আর এই ছোবড়া ছাড়িয়ে জীবন-জীবিকা চলে স্থানীয় প্রায় ৩শ’ পরিবারের।

সদর উপজেলার দালাল বাজার নারকেল বেচাকেনার বড় মোকাম। বাজারের আশপাশে বেশ কয়েকটা আড়ৎ রয়েছে। প্রতিদিন এসব আড়তে হাজার হাজার নারকেল থেকে ছোবড়া ছাড়ানো হয়।
নারকেলের ছোবড়া ছাড়ানো শ্রমিকরা। ছবি: বাংলানিউজদালাল বাজার এলাকার বাসিন্দা নারকেল ছোবড়া ছাড়ানো শ্রমিক নারায়ণ জানান, এক যুগের বেশি সময় ধরে নারকেলের ছোবড়া ছাড়ানের কাজ করেন তিনি। ৫০ পয়সা থেকে দেড় টাকা পর্যন্ত প্রতি পিসের ছোবড়া ছাড়ানোর কাজ নেন। এতে প্রতিদিন ৭০০ থেক ১২০০ টাকা রোজগার হয়।

শুধু দালাল বাজার এলাকাতে প্রায় ৫০ জন শ্রমিক এ কাজ করেন। এদের মধ্যে কেউ কেউ মাসিক চুক্তিতেও কাজ করছেন বলে জানা গেছে।
নারকেলের ছোবড়া ছাড়ানো শ্রমিকরা। ছবি: বাংলানিউজ১৫ বছরের বেশি সময় ধরে নারকেলের ছোবড়া ছাড়াচ্ছেন ছোবড়া আমান উল্লাহ। বাংলানিউজকে তিনি জানান, এ কাজ করে পরিবার-পরিজন নিয়ে তিনি ভালোই আছেন। 

একদিনে প্রায় ১৮শ’ থেকে ২ হাজার নারকেলের ছোবড়া ছাড়াতে পারেন রায়পুরের কামরুল। এতে ১২শ’ টাকার মতো আয় হয় বলে জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০৪১৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৮
এমজেএফ

ঢাকার সঙ্গে চট্টগ্রাম-সিলেটের রেল যোগাযোগ বন্ধ
আদিতমারীতে বিধবার ঘরে আগুন দিল দুর্বৃত্তরা
দশ বছর পর আরেকটি অভিষেকের অপেক্ষায় কোহলি 
গৌরনদীতে বাস-মাহিন্দ্রা সংঘর্ষে আহত ১৫
কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে ছোট লঞ্চ চলাচল বন্ধ
তানজানিয়ায় ফেরি ডুবিতে নিহত বেড়ে ৮৬
পুকুর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার, মৃত্যু নিয়ে ধুম্রজাল! 
সুস্থ হয়ে নীড়ে ফিরলো পাখিগুলো
কর্মীর ভুলে জরুরি অবতরণ, প্রাণে বাঁচলেন ১৬৬ যাত্রী
নতুন ম্যাচ, হিসাবের মার-প্যাচে বাংলাদেশ-ভারত