গ্রামীণ ব্যাংকের নয়া ভারপ্রাপ্ত এমডির চেয়ারে শাহজাহান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

গ্রামীণ ব্যাংকের নয়া ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন ব্যাংকটির কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহজাহান।

ঢাকা: গ্রামীণ ব্যাংকের নয়া ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন ব্যাংকটির কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহজাহান।

ইউনূসের পর ভারপ্রাপ্ত এমডি হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী নূরজাহান বেগম অবসরে যাওয়ায় শাহজাহানকে ভারপ্রাপ্ত এমডির দায়িত্ব দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে ভারপ্রাপ্ত এমডি হিসেবে চেয়ারে বসে দায়িত্ব পালন শুরু করেন শাহজাহান।

গত রোববার নূরজাহান বেগম ভারপ্রাপ্ত এমডি হিসেবে গ্রামীণ ব্যাংকে শেষ কর্মদিবস কাটান। মঙ্গলবার সকালে তিনি দায়িত্ব বুঝে দেন, যদিও ১৫ তারিখকে দায়িত্ব হস্তান্তরের তারিখ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। কারণ ১৪ আগস্ট চাকরি থেকে অবসরে গেছেন নূরজাহান বেগম।

শাহজাহান মঙ্গলবার দায়িত্ব নিলেও গত ২৬ জুলাই পরিচালনা পর্ষদের সভায় তাকে ভারপ্রাপ্ত এমডি নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সে অনুযায়ী তাকে জেনারেল ম্যানেজার থেকে উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়।  

গ্রামীণ ব্যাংকের একটি সূত্র জানায়, শাহজাহানকে ভারপ্রাপ্ত এমডি নিয়োগের সিদ্ধান্তের পরও নূরজাহান বেগমের দায়িত্বের মেয়াদ বাড়াতে গ্রামীণব্যাংকের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের একটি অংশ দাবি করেন যদিও পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মোজাম্মেল হক তা মানতে রাজি হননি।

ব্যাংকের কর্মকর্তাদের ওই অংশটি অবশ্য পরিচালনা পর্ষদের ৯ নারী সদস্যকে ম্যানেজ করে নূরজাহানের মেয়াদ বাড়াতে পর্ষদকে চাপ দিতে রাজি করে। তবে শেষ পর্যন্ত শাহজাহানই ভারপ্রাপ্ত এমডি হন।    

এদিকে গ্রামীণ ব্যাংকে ইউনূসের জামানায় নিয়োগ পাওয়া ৯ নারী সদস্য বর্তমান পরিচালনা বোর্ডের মেয়াদ বাড়ানো এবং ইউনূসকে ‘এমডি ইমেরিটাস’ নিয়োগ দিতে পরিচালনা পর্ষদকে চাপ দেয়।

গ্রামীণব্যাংকে চূড়ান্তভাবে একজন ‘ব্যবস্থাপনা পরিচালক’ নিয়োগের জন্য ৫ সদস্যের একটি সিলেকশন কমিটি কাজ করছে।

‘সিলেকশন কমিটি’ নামে পর্ষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বের কমিটি নতুন একজন ব্যক্তিকে এমডি নিয়োগের সুপারিশ করবে।

নয়া এমডি বাছাই কমিটিতে অন্যরা হলেন পর্ষদের একজন পরিচালক, একজন নির্বাচিত প্রতিনিধি এবং ব্যাংকের বাইরের দু’জন প্রতিনিধি।

ভারপ্রাপ্ত এমডি হিসেবে নিয়োগ পাওয়া এম. শাহজাহান জ্যেষ্ঠ মহা-ব্যবস্থাপক (জিএম) হিসেবে গ্রামীণ ব্যাংকের অর্থ ও হিসাব এবং পরিকল্পনা, মনিটরিং ও মূল্যায়ন বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১৯৭৭ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন শাহজাহান। পরে ফিন্যান্সেও তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্সিতেও ডিগ্রি নিয়েছেন।

গ্রামীণ ব্যাংক ছাড়াও মো. শাহজাহান গ্রামীণফোনের পরিচালনা পর্ষদের একজন পরিচালক। যদিও তিনি গ্রামীণ ব্যাংক থেকেই মনোনীত পরিচালক।   

প্রসঙ্গত, নির্ধারিত বয়স পেরিয়ে যাওয়ায় গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে ড. ইউনূসকে অপসারণ করে সরকার। গ্রামীণ ব্যাংক অধ্যাদেশের বরখেলাপ করে এমডি পদে প্রায় দশ বছর বেশি থাকার পর গত ২ মার্চ সরকার ইউনূসকে সরিয়ে দেয়। এরপর বিষয়টি নিয়ে আদালতে যান ইউনূস। তবে শেষ পর্যন্ত রায় সরকারের পক্ষেই যায় এবং ১২ মে ইউনূস ওই পদটি থেকে সরে দাঁড়ান।

বাংলাদেশ সময়: ২১০০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০১১

লেবার পার্টির শ্যাডো কেবিনেটে টিউলিপ
ফায়ার সার্ভিসের ল্যান্ড ফোন বিকল
মিরপুর ও নারায়ণগঞ্জে করোনা পরিস্থিতি ভয়ংকর
ঢাকার বাইরে করোনা রোগী বেড়েছে
এটিএম বুথগুলোর সামনে ‘সামাজিক দূরত্ব’ মানা হচ্ছে না!


ফেনীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু
বগুড়ায় হতদরিদ্রদের ৫০ বস্তা চালসহ কৃষক লীগ নেতা আটক
সাহায্যের জন্য নগদ অর্থ সংগ্রহ করবেন না: মুখ্যমন্ত্রী
সিলেটে প্রবাস ফেরত যুবককে কুপিয়ে খুন
নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন বাসার ছাদে সারারাত জামাতে নামাজ আদায়