বিশ্বে জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দেবে: শিল্পমন্ত্রী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে বিশ্বে উদীয়মান জাহাজভাঙ্গা শিল্প খাতে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দেবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া।

ঢাকা: আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে বিশ্বে উদীয়মান জাহাজভাঙ্গা শিল্প খাতে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দেবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া।

গত বুধবার চীনের ফুজিয়ান প্রদেশের এলাকায় অবস্থিত ফুজিয়ান সাইজিয়ান শিপিং ডিপার্টমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের জাহাজ ভাঙ্গা ইয়ার্ড পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের কাছে তিনি এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, এ শিল্প বংলাদেশের দারিদ্র্য-বিমোচন ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের ক্ষেত্রে অন্যতম শিল্প খাত হিসেবে আত্ব প্রকাশ করবে। তাই পরিবেশের প্রশ্ন তুলে জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত হতে দেওয়া হবে না। পরিবেশ দূষণের প্রশ্ন তুলে কেউ বাংলাদেশে জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পখাতের অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে চাইলেও আগামী দুই বছরের মধ্যে এ সংক্রান্ত সব ধরনের সংশয় কেটে যাবে।

তিনি আরও বলেন, পরিবেশবান্ধব সবুজ জাহাজ ভাঙ্গা শিল্প গড়ে তোলার লক্ষ্যে মহাজোট সরকারের গৃহীত উদ্যোগ সঠিক পথে এগিয়ে যাচ্ছে। শিগগিরই বাংলাদেশের জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পখাত পরিবেশবান্ধব শিল্প হিসেবে বিশ্বে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হিসেবে বিবেচিত হবে।

উল্লেখ্য, জাহাজ ভাঙ্গা শিপ ইয়ার্ডের কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করতে শিল্পমন্ত্রীর নেতৃত্বে ১০ সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের এক প্রতিনিধিদল বর্তমানে চীন সফর করছেন। শিপব্রেকিং ইয়ার্ডের পরিবেশসম্মত ব্যবস্থাপনা, বর্জ্য সংশোধন এবং সংশ্লিষ্ট শ্রমিক-কর্মচারীদের স্বাস্থ্য ও পেশাগত নিরাপত্তার বিষয়ে প্রতিবেশী দেশগুলোর জাহাজ ভাঙ্গা ইয়ার্ডের অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য এ সফরের আয়োজন করা হয়।

সরকার এ লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় নীতি ও বিধিমালা প্রণয়নের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে বলে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের জানান।

দিলীপ বড়–য়া বলেন, সরকার যে কোনো মূল্যে পরিবেশবান্ধব জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পের বিকাশে অঙ্গীকারবদ্ধ। পরিবেশ ও জনগণের সুরক্ষা করেই এ শিল্পের বিকাশ ঘটানো হবে। জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে বাংলাদেশ তুলনামূলকভাবে নতুন হওয়ায় এ শিল্পে অর্জিত প্রতিবেশী দেশগুলোর অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত সহায়ক হবে।

এক্ষেত্রে বাংলাদেশ সবসময় প্রতিবেশী দেশের সাথে অভিজ্ঞতা ও প্রযুক্তি বিনিময়ে আগ্রহী হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। গুণগত শিল্পায়নের স্বার্থে সরকার জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে পরিবেশের প্রশ্নে কোনো ধরণের ছাড় দেবে না বলে তিনি জানান।

পরিদর্শনের পাশাপাশি শিল্পমন্ত্রীর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদল গত বুধবার চীনা শিপ ইয়ার্ড মালিক, শ্রমিক ও কর্মচারিদের সঙ্গে জাহাজ ভাঙ্গা, রিসাইক্লিং ও বর্জ্য সংশোধনের জন্য ব্যবহৃত অত্যাধুনিক প্রযুক্তিসহ অন্যান্য বিষয়ে দ্বি-পাক্ষিক মতবিনিময় করেন। তারা ফুজিয়াং প্রাদেশিক সরকারের ঊর্ধ¡তন কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠকে মিলিত হন।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাংসদ এবিএম আবুল কাশেম, শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাংসদ মুহিবুর রহমান মানিক, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ বি এম খোরশেদ আলম, বাংলদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েটের) অধ্যাপক ড. মো. আমিনুল ইসলাম, শিপব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হেফাজতুর রহমান ও কারিগরি উপদেষ্টা সালাহ্উদ্দিন আহমেদসহ প্রতিনিধিদলে ছিলেন।

শুক্রবার ভোরে প্রতিনিধিদল দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৭ ঘণ্টা, আগষ্ট ১১, ২০১

শ্বাসকষ্ট নিয়ে চবি শিক্ষকের মৃত্যু
প্রথম ইউরোপীয় দেশ হিসেবে ‘করোনামুক্ত’ মন্টেনিগ্রো
উল্লাপাড়ায় ঘুড়ি কেনাবেচা নিয়ে সংঘর্ষে নিহত এক
ইডিইউতে হারমনি অব আর্টস আজ ও কাল
বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস রোববার


খুলনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা রোগীর মৃত্যু
ছোটপর্দায় আজকের খেলা
বরিশালে শুরু হয়েছে যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল, যাত্রী সঙ্কট
চট্টগ্রামে ভিন্ন পরিবেশে যাত্রীদের ট্রেন যাত্রা
চেম্বার পরিচালক সৈয়দ জামাল আহমেদের মৃত্যু