হজ ফ্লাইট নিয়ে সংকটে বিমান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

আসন্ন হজযাত্রীদের পরিবহন তালিকায় জামবো জেট (বোয়িং ৭৪৭) ভাড়া করতে না পারায় নতুন করে সংকটে পড়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। গত শনিবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস দুবাই থেকে একটি উড়োজাহাজ ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ঢাকা: আসন্ন হজযাত্রীদের পরিবহন তালিকায় জামবো জেট (বোয়িং ৭৪৭) ভাড়া করতে না পারায় নতুন করে সংকটে পড়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। গত শনিবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস দুবাই থেকে একটি উড়োজাহাজ ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গত শনিবার বিমান যে একটি উড়োজাহাজটি ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটির জন্য প্রতি ঘণ্টায় আট হাজার মার্কিন ডলার দিতে হবে।

উড়োজাহাজ ভাড়া করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও তা তিন মাসের জন্য না কি এক বছরের জন্য সে বিষয়টি স্পষ্ট করা হয়নি। অবশ্য বিমান কর্তৃপক্ষ বিতর্কিত কাবো এয়ারলাইনস থেকে বোয়িং ৭৪৭ উড়োজাহাজ  ভাড়া করতে আগ্রহী ছিল।

আসন্ন হজকে সামনে রেখে বিমানের কয়েকজন অতি উৎসাহী ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিতর্কিত কাবো এয়ারলাইনসের কাছ থেকে উড়োজাহাজ ভাড়া করতে চেয়েছিলেন।

যদিও  কাবো এয়ারলাইন থেকে উড়োজাহাজ ভাড়া নেওয়ার বিষয়টি সমর্থন করে কয়েকজন কর্মকর্তার দেওয়া প্রস্তাবটি শেষ পর্যন্ত বাতিল হয়ে যায়। কারণ অনেকে তাদের এ প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছিলেন।

এটা হজযাত্রায় বিঘ্ন সৃষ্টি করবে কি না এ সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে বিমানের প্রধান নির্বাহী জাকিউল ইসলাম বালেন, হজযাত্রায় বিমানের ফ্লাইট নিশ্চিত করার জন্য তারা কাজ করছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে  বিমানের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘কাবো থেকে উড়োজাহাজ ভাড়া করার বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করে বিমান বাংলাদেশ সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু আমাদের ৫৫০ যাত্রী ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি বোয়িং ৭৪৭ উড়োজাহাজ প্রয়োজন।’

তিনি আরও জানান, ‘আমাদের দেশের উড়োজাহাজগুলোর ধারণ ক্ষমতা বোয়িং ৭৪৭ উড়োজাহাজের বিমানের ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক।’

উল্লেখ্য, চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে এক লাখ আট হাজার মানুষ হজ পালন করতে যাবে। হজের প্রথম ফ্লাইট যাবে ২৯ সেপ্টেম্বর যা ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।

বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয় থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, এ বছর বিমান বাংলাদেশ ৩০ হাজার, সৌদি এয়ারলাইনস ২০ হাজার যাত্রী বহন করবে। তৃতীয় আরেকটি বিমানে বাকি হজযাত্রীদের বহন করা হবে।

সূত্র জানায়, হজ মৌসুমে সৌদি আরবে অবতণের জন্য দেশটির সরকারের কাছ থেকে বিমান বাংলাদেশ সীমিত অনুমতি পাবে। যদি বিমান বাংলাদেশ সম্পূর্ণ হজযাত্রা পরিচালনা করতে চায় তবে তাদের একটি জাম্বো বিমান প্রয়োজন। অন্যথায়, সৌদি কর্তৃপক্ষের দেওয়া নির্ধারিত অবতরণ-অনুমতি অনুযায়ী বিমান বাংলাদেশ সব হজ যাত্রীকে বহন করতে পারবে না।

বিমানের মার্কেটিং ডিরেক্টর মো. শাহনেওয়াজ বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমরা যেহেতু বোয়িং ৭৪৭ উড়োজাহাজ ভাড়া করব, তাই সঠিক সময় হজযাত্রীদের পৌঁছে দিতে কোনো সমস্যা হবে না।’

বিমানের কর্মকর্তারা খুব শিগগিরই বোয়িং ৭৪৭ উড়োজাহাজ ভাড়া করার ব্যাপারে আশাবাদী হলেও সঠিক সময়ে এটা পাওয়া অত্যন্ত কঠিন।

গত ১৯ জুলাই বিমান বাংলাদেশ উড়োজাহাজ লিজ দেওয়ার ব্যাপারে বিভিন্ন কোম্পানিকে প্রস্তাব পাঠানোর আহ্বান জানায়। এতে কোনও সাড়া পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ০৮, ২০১১

সবাই এগিয়ে এলে করোনা মোকাবিলা সম্ভব: আতিক
সিলেটে হোম কোয়ারেন্টিন ছাড়লো ১৭৩৪ জন
শ্রমজীবীদের অর্থ সহায়তা দিলেন মেয়র নাছির
৭-১০ দিনের মধ্যে সব বিভাগে করোনা শনাক্ত পরীক্ষা
হোম কোয়ারেন্টিনের শর্ত ভঙ্গ: ২৫ প্রবাসীকে জরিমানা


করোনায় রোগী কমেছে চমেক হাসপাতালে, চব্বিশ ঘণ্টায় ভর্তি ১৪ জন
মুশফিক-লিটন অন্যদের জন্য উদাহরণ হতে পারে: তামিম
আইসোলেশনে থাকা শিশুটি সুস্থ হলেও বাড়ি ফিরতে পারছে না 
সব এসিল্যান্ডকে সতর্ক করা হয়েছে: প্রতিমন্ত্রী
গৃহবন্দি জীবনে অস্বস্তি, বাড়ছে পারিবারিক বন্ধনও