বাজারে মূল্য তালিকা টানানোর নির্দেশ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

রমজানে নির্ধারিত মূল্যে ভোজ্য তেল ও চিনির সরবরাহ নিশ্চিত করতে ডিলার ব্যতীত অন্য কোনো মাধ্যমে সরবরাহ না করা এবং বাজারে প্রত্যেক দোকানে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

ঢাকা: রমজানে নির্ধারিত মূল্যে ভোজ্য তেল ও চিনির সরবরাহ নিশ্চিত করতে ডিলার ব্যতীত অন্য কোনো মাধ্যমে সরবরাহ না করা এবং বাজারে প্রত্যেক দোকানে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার বাণিজ্য সচিব মো. গোলাম হোসেনের সভাপতিত্বে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ভোজ্যতেল ও চিনি উৎপাদক ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুক খানও উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করা হয়।  

বৈঠকে সম্প্রতি চিনির মূল্য বেড়ে যাওয়ার বাণিজ্যমন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের কাছে এর কারণ জানতে চান।
একই সঙ্গে উপস্থিত ব্যবসায়ীদের কাছে রমজান মাসে বেসরকারি খাতের চারটি রিফাইনারি মিল বন্ধ থাকারও ব্যাখ্যা দাবি করেন তিনি।
প্রসঙ্গক্রমে মন্ত্রী আরও বলেন, রমজানে চিনি ও ভোজ্যতেলের উৎপাদন ও সরবরাহ যাতে স্বাভাবিক থাকে সেজন্যে বহু আগে থেকেই এ নিয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে একাধিকবার বৈঠক করা হয়েছে। তারপরও এ ধরনের পরিস্থিতি উদ্ভব হওয়ার পেছনে নিশ্চই কোনো কারণ আছে। তিনি বলেন, এ ব্যাপারে ব্যবসায়ীরা এবং তাদের সমিতি দায়িত্বশীল আচরণ করছে না।

বাণিজ্য সচিব জানান, বৈঠকে চিনির মূল্য মিলগেটে ৬০ টাকা এবং সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৬৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, নির্ধারিত মূল্যে চিনি ও ভোজ্য তেল বিক্রি করা হচ্ছে কি না তা দেখার জন্য মনিটরিং র্কাযক্রম জোরদার করাসহ মোবাইল টিম পরিচালনা করা হবে।
এছাড়া পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিয়োগকৃত পরিবেশক ছাড়া অন্য কোনো মাধ্যমে তেল ও চিনি সরবরাহ করা যাবে না বলে সচিব সাংবদিকদের জানান।

বাণিজ্যমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেন, ভোজ্যতেল ও চিনির সরবরাহ যাতে স্বাভাবিক থাকে সেজন্য প্রতি উপজেলায় ডিলার নিয়োগ দিতে হবে। চিনি ও ভোজ্যতেল কেনার সময় অন্য কোনো পণ্য কিনতে বাধ্য করা যাবে না বলে বানিজ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ার করে দেন।
তবে টিসিবি ৬২ টাকা দরে চিনি বিক্রি করবে বলে তিনি জানান।
বাজারে চিনি ও তেলের যথেষ্ট মজুদ আছে উল্লেখ করে যে পরিমাণ চিনি ও তেল পাইপলাইনে আছে, এতে করে রোজার পরেও সরবরাহ স্বাভাবিক থাকবে  বলে ব্যবসায়ীদের তিনি আশ্বস্ত করেন।

বাণিজ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের জবাবে পারটেক্স গ্রুপের পরিচালক একেএম হাশমি বলেন, যথাসময়ে অপরিশোধিত চিনি আমদানি না করতে পারার কারণে তাদের রিফাইনারি মিল বন্ধ রাখতে হয়েছে।

কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী রহমতুল্লাহ বলেন, কারওয়ান বাজারে চিনির পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। এ বাজারে দেশবন্ধু ও সিটিগ্রুপের চিনি সরবরাহ স্থিতিশীল রয়েছে। এ বাজারে ৬৫ টাকা দরেই চিনি বিক্রি হচ্ছে বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪২ ঘণ্টা, আগস্ট ০৪, ২০১১

বেওয়ারিশ কুকুরের খাবার দিচ্ছেন পটুয়াখালীর মেয়র
করোনা: আইনজীবীদের প্রণোদনা দেওয়ার দাবি
মোবাইল কলে জানালে পৌঁছে যা‌বে সহায়তা
ক্ষুদ্র-মাঝারি উদ্যোক্তাদের জন্য তহবিল গঠনের আহ্বান 
বরিশাল বিভাগে ২৪৬৪ জনের হোম কোয়ারেন্টিন সম্পন্ন


যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় বিএনপি নেতার মৃত্যু, ফখরুলের শোক
সুন্দরগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
লোহাগাড়ায় আমিনুল ইসলামের ত্রাণ পেলো ১৮শ কর্মহীন শ্রমজীবী 
ফেনীতে মারা যাওয়া সেই যুবকের করোনা নেগেটিভ
মিরপুর থানার ‘করোনা প্রতিরোধ প্লাটুন’