php glass

প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড না পাওয়ায় হতাশ বিনিয়োগকারীরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৫ কোম্পানি গত এক সপ্তাহে ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। কিন্তু এর মধ্যে ৪টি কোম্পানিই আগের বছরের চেয়ে তুলনামূলক কম ডিভিডেন্ড দিয়েছে।

ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৫ কোম্পানি গত এক সপ্তাহে ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। কিন্তু এর মধ্যে ৪টি কোম্পানিই আগের বছরের চেয়ে তুলনামূলক কম ডিভিডেন্ড দিয়েছে। প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড না পাওয়ায় গত সপ্তাহে বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। ফলে সূচকের ওঠানামা দিয়ে সপ্তাহ শেষ হয়েছে।

জানা গেছে, গত সপ্তাহে ডিভিডেন্ড ঘোষণা করা কোম্পানিগুলো হলো- যমুনা ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, সিঙ্গার বাংলাদেশ, উত্তরা ব্যাংক ও মেঘনা পেট্রোলিয়াম। এর মধ্যে সিঙ্গার বাংলাদেশ ছাড়া বাকি ৪টি কোম্পানির ডিভিডেন্ড ঘোষণা হতাশ করেছে বিনিয়োগকারীদের।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায, যমুনা ব্যাংক ২০১০ সালের জন্য গত সপ্তাহে ২২ শতাংশ বোনাস শেয়ার দিয়েছে। আগের বছর এ কোম্পানি ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার দিয়েছিল। এনসিসি ব্যাংক এ বছরের জন্য ৩২ শতাংশ বোনাস শেয়ার দিয়েছে। আগের বছর এ কোম্পানি ৪৭ শতাংশ বোনাস দিয়েছিল।

উত্তরা ব্যাংক এ বছরের জন্য ২০ শতাংশ নগদ ও ২০ শতাংশ বোনাস দিয়েছে। আগের বছর এ কোম্পানি ৫০ শতাংশ বোনাস দিয়েছিল। মেঘনা পেট্রোলিয়াম এ বছর ৪৫ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস দিয়েছে। আগের বছর এ কোম্পানি ৪০ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস দিয়েছিল।

শুধুমাত্র সিঙ্গার বাংলাদেশ তুলনামূলক ভালো ডিভিডেন্ড দিয়েছে। এ বছর কোম্পানিটি ৬০০ শতাংশ নগদ ও ৭৫ শতাংশ বোনাস দিয়েছে। আগের বছরে এ কোম্পানি ৯০ শতাংশ নগদ দিয়েছিল।

বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ২০১০ সালের ডিসেম্বরে এসে পুঁজিবাজারে ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে আসে। এতে বিনিয়োগকারীরা ৫০ শতাংশেরও বেশি মূলধন হারান। এতে বাজার বিমুখ হয়ে ওঠে বিনিয়োগকারীরা। তবে বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্থ হলেও লাভবান হয় কোম্পানিগুলো। কারণ গত এক বছরের চাঙ্গা বাজারে কোম্পানিগুলো ভালো মুনাফা অর্জন করে।

বিশেষ করে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো সবচেয়ে বেশি মুনাফা তুলে নেয়। ফলে বিনিয়োগকারীদের ক্ষতি পুষিয়ে দিয়ে দুই স্টক এক্সচেঞ্জ ও সরকার থেকে কোম্পানিগুলোকে ভালো ডিভিডেন্ড দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে প্রথম দিকে ব্যাংকগুলো থেকে ভালো ডিভিডেন্ডের ঘোষণা আসতে শুরু করে। এতে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে স্বস্তি ফিরতে শুরু করে। কারণ আগের বছরের তুলনায় এ বছরে বোনাস শেয়ার বেশি দেওয়া হলে বিনিয়োগকারীরা লোকসান কিছুটা পুষিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাবে।

তবে ডিভিডেন্ড ঘোষণার শেষ দিকে এসে এ ধারাবাহিকতা থাকেনি। গত সপ্তাহে ঘোষণা করা ৩ ব্যাংকের ডিভিডেন্ড হতাশ করেছে বিনিয়োগকারীদের। এর নেতিবাচক প্রভাবে ওই দিন বাজারে সূচকের পতনও ছিল লক্ষনীয়। প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড না আসায় বিনিয়োগকারীদের এসব কোম্পানি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার প্রবণতাও ছিল বেশি। এতে আগের সপ্তাহের তুলনায় গত সপ্তাহে এসব কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে।

যমুনা ব্যাংকের আগের সপ্তাহে সর্বশেষ শেয়ার দর ছিল ৪৯ টাকার মধ্যে। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে এর শেয়ার দর হয় ৪২ টাকা ২০ পয়সা। সপ্তাহের ব্যবধানে দর কমেছে প্রায় ৭ টাকা।

এনসিসি ব্যাংকের আগের সপ্তাহে সর্বশেষ শেয়ার দর ছিল ৫৯ টাকা ৬০ পয়সা। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে এর শেয়ার দর হয় ৫৪ টাকা ২০ পয়সা। সপ্তাহের ব্যবধানে দর কমেছে প্রায় ৫ টাকা।

উত্তরা ব্যাংকের আগের সপ্তাহে সর্বশেষ শেয়ার দর ছিল ১২১ টাকা। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে এর শেয়ার দর হয় ৯৭ টাকা ৫০ পয়সা। সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ২৩ টাকা ৫০ পয়সা।

মেঘনা পেট্রোলিয়ামের আগের সপ্তাহের সর্বশেষ শেয়ার দর ছিল ১৯৭ টাকা ৯০ পয়সা। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে এর শেয়ার দর হয় ১৯০ টাকা। সপ্তাহের ব্যবধানে দর কমেছে প্রায় ৮ টাকা।

এদিকে ভালো ডিভিডেন্ড ঘোষণা করায় সিঙ্গার বাংলাদেশের গতি ছিল উল্টো পথে। আগের সপ্তাহে এ কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ৫ হাজার ৪০০ টাকার মধ্যে। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে এর দর হয় ৭ হাজার ৬৬৭ টাকা। সপ্তাহের ব্যবধানে দর বেড়েছে ২ হাজার ২৬৭ টাকা।    

বাংলাদেশ সময়: ১৫০২ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০১১

একই কারখানায় ২ বছরে তিন বার আগুন
সু চির অস্বীকার: রোহিঙ্গারা বললেন ‘মিথ্যুক’
সোলায়মানের পদত্যাগ নিয়ে জামায়াতে তোলপাড়
রাজশাহীর মধ্য শহর থেকে বাস টার্মিনাল সরবে আগামী বছর
স্মার্ট রেফ্রিজারেটরের বিজ্ঞাপনে মাশরাফি


নেপিদোতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সেনাপ্রধানদের বৈঠক
এবার রাজ্যসভায়ও পাস হলো ‘বিতর্কিত’ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল
আগুনের সূত্রপাত ‘গ্যাস রুমে’, নেভাতে গিয়েই দগ্ধ শ্রমিকরা
বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন মেয়র আতিকুল
মেডিক্যাল বোর্ডের রিপোর্ট কোর্টে, শুনানি বৃহস্পতিবার