মাঠে পড়ে আছে ৪০ হাজার মণ, তারপরেও আমদানীর অনুমতি

কক্সবাজারে সাগরে লবণ ফেলে আমদানীর বিরুদ্ধে চাষীদের প্রতিবাদ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

সরকারি সিদ্ধান্তে বঞ্চনার শিকার কক্সবাজারের লবণচাষীরা সাগরে ও খালে লবণ ফেলে দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। রোববার দুপুরে কক্সবাজারের একমাত্র লবণশিল্প এলাকা ইসলামপুরে লবণচাষীরা এ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেন।

কক্সবাজার: সরকারি সিদ্ধান্তে বঞ্চনার শিকার কক্সবাজারের লবণচাষীরা সাগরে ও খালে লবণ ফেলে দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। রোববার দুপুরে কক্সবাজারের একমাত্র লবণশিল্প এলাকা ইসলামপুরে লবণচাষীরা এ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় আয়োজিত এক সমাবেশে লবণ চাষীরা জানান, সারাদেশে লবণের চাহিদা যেখানে ১৪ লাখ টন সেখানে দেশের চাষীরাই উৎপাদন করেছেন ১৬ লাখ টন। সে হিসেবে দেশে প্রতিবছর ২ লাখ টন উদ্বৃত্ত । এর পরও সরকার বিদেশ থেকে লবণ আমদানির অনুমতি দিয়েছে।

তারা জানান, এই আমদানির সুযোগে দেশে ঢুকে পড়েছে ১০ লাখ টন বোল্ডার লবণ। এর ফলে দেশে উৎপাদিত লবণ মাঠেই পড়ে রয়েছে। ক্রেতা মিলছে না। ক্রেতা মিললেও ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তারা।

লবণচাষী ঐক্য পরিষদের আহবায়ক ও ইসলামপুর লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি মাস্টার আবদুল কাদের বাংলানিউজকে বলেন, ‘সরকার বিদেশ থেকে লবণ আমদানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার না করলে আগামী মৌসুমে চাষীরা আর মাঠে নামবেন না। চেষ্টা করেও তাদের মাঠে নামানো সম্ভব হবে না।’

তিনি জানান, এক একর মাঠে লবণ চাষ করতে ৬৩-৬৫ হাজার টাকা খরচ পড়ে। বিপরীতে ওই পরিমাণ জমিতে সর্বোচ্চ লবণ উৎপাদিত হয় মাত্র ৫০০ মণ। কিন্তু বাজারে লবণের যে দাম চলছে তাতে প্রতি একরেই চাষীদের ২০-২৫ হাজার টাকা লোকসানের শিকার হতে হচ্ছে।

ইসলামপুরের লবণ চাষী নুরুল আবছার জানান, বর্তমানে মাঠ পর্যায়েই প্রতি মণ সাদা (পলিথিন) লবণ ৯০ টাকা ও কালো লবণ (মাটি মিশ্রিত) ৬৫ টাকা। সে হিসাবে প্রতি কেজি লবণ ২ টাকা ৬০ পয়সায় বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন কৃষকরা।

ক্ষুব্ধ লবণচাষীরা বলেন, ‘আমরা প্রতি কেজি লবণের দাম পাচ্ছি মাত্র আড়াই টাকা। যারা বাজারজাত করছে তাদের সব মিলিয়ে কেজি প্রতি খরচ হয় ৫-৬ টাকা। অথচ সেই লবণ সাধারণ ভোক্তাদের কিনে খেতে হয় ১৮ থেকে ২২ টাকায়।

এর ফলে প্রতি কেজিতে বাজারজাতকারীরা ১৫ টাকার বেশি লাভ করলেও লবণ চাষীদের গুনতে হচ্ছে লোকসান।
 
মালিক সমিতির নেতা আবদুল কাদের জানান, ইসলামপুর শিল্প এলাকায় ৪৩টি লবণ ক্রাশিং মিল রয়েছে। এগুলোর মধ্যে বর্তমানে চালু রয়েছে মাত্র ৩৫টি। এ অবস্থায় বর্তমানে কক্সবাজার জেলায় ৪০ লাখ মণ লবণ মাঠে পড়ে রয়েছে। দাম কমে যাওয়ায় চাষীরা মাঠে গর্ত খুঁড়ে লবণ রেখে দিয়েছে। তারা বিক্রি করতে সাহস করছেন না।

এদিকে ইসলামপুর শিল্প এলাকায় নিয়োজিত দেশের অন্যতম প্রধান লবণ বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান এসিআই সল্ট কোম্পানির সুপারভাইজার জাহেদুর রহমান জানান, এসিআই এবার কক্সবাজার থেকে সাড়ে ৩ লাখ মণ লবণ সংগ্রহ করেছে। তাদের ক্রয় মূল্য ছিল কালো লবণ প্রতি মণ ১০০-১১০ টাকা ও সাদা লবণ ১৫০ টাকা।
 
জাহেদুর রহমান জানান, বর্তমানে প্যাকেটজাত লবণ এসিআই ১৮-২১ টাকা, কনফিডেন্ট ১৮-২০ টাকা ও মোল্লা ২২ টাকায় খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে।

তবে ক্রয় মূল্যের চেয়ে বাজারজাতের মূল্যের তফাত মাত্রাতিরিক্ত বেশি হওয়া সম্পর্কে তিনি কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি।

লবণ চাষী নেতা নুরুল আবছার জানান, সরকারের অন্যায় সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে লবণ চাষীরা এখন রাজপথে নামতে বাধ্য হচ্ছেন। দেশে প্রথমবারের মতো লবণ চাষী সমাবেশও হয়েছে ইসলামপুরে।

রোববার বিকালে ইসলামপুর বাজারে আয়োজিত লবণ চাষী সমাবেশে প্রধান অতিথি কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজল বলেন, দেশে সবজির কেজি যখন ৪০ টাকা, চালের দাম যেখানে ৩০ টাকা সেখানে চাষীদের লবণ বিক্রি করতে হয় মাত্র ১ থেকে দেড় টাকায়।

তিনি বলেন, ‘শিল্প মন্ত্রী দীলিপ বড়ুয়া কক্সবাজার সফরকালে চাষীদের বলে গেছেন, সরকার লবণ বোর্ড গঠন করবে। অথচ আমি যখন সংসদে এ বিষয়ে প্রশ্ন করলাম, তখন জবাবে মন্ত্রী বললেন, লবণ বোর্ড গঠন করার কোনও পরিকল্পনা সরকারের নেই।’
 
তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলেই লবণের দাম কমে যায়।’
 
সমাবেশে বিশেষ অতিথি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সলিম উল্লাহ বাহাদুর বলেন, ‘দেশে ৩ পার্বত্য জেলা নিয়ে যদি পার্বত্য মন্ত্রণালয় হতে পারে তাহলে ১৯ উপকূলীয় জেলা নিয়ে কেন উপকূলীয় মন্ত্রণালয় করা যাবে না!’
 
তিনি বলেন, লবণ বোর্ড না হলে চাষীদের দাবিগুলো নিয়ে কথা বলেও কোনও কাজ হবে না।
 
লবণ চাষী ঐক্য পরিষদের আহবায়ক মাস্টার আবদুল কাদেরের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কৃষক দলের জেলা আহবায়ক আনোয়ারুল ইসলাম, যুবদল নেতা মোহাম্মদ শাহজাহান, মোজাফ্ফর আহমদ সুমন, মামুন সিরাজুল মজিদ ও তাঁতী দল নেতা আবদুস সালাম।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০১০

Nagad
ফিল্ড হাসপাতালে হাই ফ্লো-ন্যাসাল ক্যানোলা প্রদান
খুলনা জেলা পরিষদের শিক্ষাবৃত্তি পেলো ৪৫০ ছাত্র-ছাত্রী
শূন্য পদে নিয়োগ চান এসআই সুপারিশ বঞ্চিতরা
দোকানে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য, হোটেলে বাসি খাবার
আশুলিয়ায় চাঁদাবাজির অভিযোগে যুবক আটক


করোনায় আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
কিন্ডারগার্ডেন স্কুল অ্যান্ড কলেজ ঐক্য পরিষদের ৬ দফা দাবি
ঠিকাদার পরিচয়ে রেলওয়ের মালামাল চুরি, যুবক আটক
বসুন্ধরা সিমেন্টের পরিবেশক তারেকুল ইসলামের বাবা আর নেই
শিশুতোষ অনুষ্ঠান ‘রঙ-বেরঙের গল্প’