ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

কলকাতায় চলছে কড়া লকডাউন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০০ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০২০
কলকাতায় চলছে কড়া লকডাউন কলকাতায় চলছে লকডাউন/ছবি: বাংলানিউজ

কলকাতা: ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে বর্তমানে দৈনিক প্রায় দুই হাজারের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হচ্ছে। ফলে পরিস্থিতি মোকাবিলায় গত সপ্তাহ থেকে রাজ্যজুড়ে বিশেষ ধরনের লকডাউন চলছে।

সপ্তাহে দু’দিন সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলছে লকডাউন।

গত সপ্তাহেই নির্ধারণ করা হয়েছিল বুধবার (২৯ জুলাই) রাজ্য জুড়ে থাকবে লকডাউন। বিশেষ ধরনের এই লকডাউন রাজ্যে প্রথম শুরু হয়েছিল বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই)। ওই সপ্তাহের শনিবারও (২৫ জুলাই) ছিল লকডাউন। আজ বিশেষ এই লকডাউনের তৃতীয় দিন।

এদিন সকাল থেকেই শুরু হয়েছে থেকে থেকে অঝোরে বৃষ্টি। একদিকে বৃষ্টি অন্যদিকে লকডাউন। ফলে কলকাতার সড়ক জনমানবহীন। তবে সকাল থেকেই সক্রিয় আছে পুলিশ। দুএকজন যারা পথে বের হচ্ছেন পুলিশের কঠোর শাসনের সম্মুখীন হচ্ছেন। নির্দিষ্ট কারণ দেখাতে না পারলে মহামারি আইনে করা হচ্ছে গ্রেপ্তার।

ফলে সব পরিষেবাই স্তব্ধ। সকাল থেকেই বন্ধ বাজার-হাট, দোকান-পাট। চলছে না বাস, ট্যাক্সি, অটোসহ বিভিন্ন যানবাহন। এমনকি সম্পূর্ণ বন্ধ উড়োজাহাজ পরিষেবা। বন্ধ হাওড়া ও শিয়ালদাগামী বেশ কয়েকটি দূরপাল্লার ট্রেনও।

রাজ্যের প্রশাসনিক ভবন নবান্নের নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, রাজ্যে যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে সম্পূর্ণ লকডাউনের বিধি কার্যকর করার ক্ষেত্রে কোনোভাবেই গা ছাড়া মনোভাব নেওয়া চলবে না। এর জেরে মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ৫, ৮, ১৬, ১৭, ২২, ২৩, ২৯, ৩১ আগস্ট রাজ্যজুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে। অর্থাৎ সপ্তাহের প্রতি শনি ও রোববার চলবে সম্পূর্ণ লকডাউন।

তবে ১ আগস্ট ঈদুল আযহা ও ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসের কারণে, এ দুইদিন রাজ্যে লকডাউন থাকবে না।

ভারতে গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়েছে বলে সম্প্রতি দাবি করেছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ)। এই প্রেক্ষাপটে সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গে যেভাবে রোজ সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ছে, তাতে গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মমতা সরকার।

রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের সর্বশেষ বুলেটিন অনুযায়ী পশ্চিমবাংলায় একদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ১৩৪ জন।

ফলে বুধবার (২৯ জুলাই) পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়ালো ৬২ হাজার ৯৬৪ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৪৪৯ জনের।

অপরদিকে ভারতেও বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ৪৭ হাজার ৭০৩ জন। এই নিয়ে বুধবার পর্যন্ত ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো প্রায় ১৫ লাখ (১৪ লাখ ৮৩ হাজার ১৫৬) জন। একদিনে মৃত ৭০০ জন। সবমিলিয়ে দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৩ হাজার ৪২৫ জনের।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০২০
ভিএস/এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa