ঢাকা, শনিবার, ৮ মাঘ ১৪২৭, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

রাজনৈতিক পরিচয় ‘অস্বীকার’ করে জামিন চাইলেন ৩ ছাত্রদল নেতা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৪, ২০২০
রাজনৈতিক পরিচয় ‘অস্বীকার’ করে জামিন চাইলেন ৩ ছাত্রদল নেতা আদালত থেকে নিয়ে যাওয়ার সময় তিন ছাত্রদল নেতা। ছবি: সংগৃহীত

চট্টগ্রাম: নিজেদের রাজনৈতিক পরিচয় ‘অস্বীকার’ করে বিস্ফোরক আইনে দায়ের করা মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চেয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের তিন নেতা। তবে আদালত তাদের জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

 

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত তাদের জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।  

কারাগারে পাঠানোর আদেশপ্রাপ্ত তিন ছাত্রদল নেতা হলেন- আলিফ উদ্দিন রুবেল, সামিয়াত আমিন চৌধুরী জিসান ও মহসিন কবির আপেল। তারা দীর্ঘদিন কোনো কমিটি না হওয়ায় পদবী পাননি। তবে প্রস্তাবিত মহানগর ছাত্রদলের কমিটিতে আলিফ উদ্দিন রুবেল ও মহসিন কবির আপেলকে সহ-সভাপতি ও সামিয়াত আমিন চৌধুরী জিসানকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাখা হয়েছে বলে ছাত্রদল সূত্রে জানা গেছে।  

মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট ফখরুদ্দীন চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, কোতোয়ালী থানায় ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে বিস্ফোরক আইনে দায়ের হওয়া একটি মামলায় মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন আলিফ উদ্দিন রুবেল, সামিয়াত আমিন চৌধুরী জিসান ও মহসিন কবির আপেল। রাষ্ট্রপক্ষে আমি বিরোধিতা করলে আদালত তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

আদালতে জমা দেওয়া জামিন আবেদনে উল্লেখ করা হয়- আলিফ উদ্দিন রুবেল একজন ছোট ব্যবসায়ী, সামিয়াত আমিন চৌধুরী জিসান দেশ বাংলা টুরিজম প্রতিষ্ঠানে টিকেট বিক্রেতা ও মহসিন কবির আপেল চুক্তিতে বিভিন্ন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে পাথর সরবরাহ করেন। তারা কোনো রাজনৈতিক দলের নেতা বা কর্মী নন। তাদের শত্রুতা বশত মামলার এজাহারে নাম দেওয়া হয়েছে।  

তবে মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মোহাম্মদ সিরাজ উল্লাহ বাংলানিউজকে বলেন, আলিফ উদ্দিন রুবেল, সামিয়াত আমিন চৌধুরী জিসান ও মহসিন কবির আপেল তিনজনই মহানগর ছাত্রদলের সক্রিয় কর্মী। দীর্ঘদিন কোনো কমিটি না হওয়ায় পদবী পাননি। প্রস্তাবিত মহানগর ছাত্রদলের কমিটিতে আলিফ উদ্দিন রুবেল ও মহসিন কবির আপেলকে সহ-সভাপতি ও সামিয়াত আমিন চৌধুরী জিসানকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাখা হয়েছে।

জামিনের আবেদনে নিজেদের কোনো রাজনৈতিক দলের কর্মী নন দাবি করার বিষয়টি জানালে ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মোহাম্মদ সিরাজ উল্লাহ বলেন, এটি জামিন নেওয়ার কৌশল হতে পারে। তারা ছাত্রদলের সক্রিয় কর্মী।  

সন্ধ্যায় মহানগর ছাত্রদলের পক্ষ থেকে আলিফ উদ্দিন রুবেল, সামিয়াত আমিন চৌধুরী জিসান ও মহসিন কবির আপেলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশের প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দেওয়া হয়েছে।

এদিকে বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের হওয়া মামলায় ওসমান বাদশা ও মো. লিয়াকত আলী নামে দুই বিএনপি নেতা আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৪, ২০২০
এসকে/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa